প্রচ্ছদ উপজেলা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক কামরানের অ’বৈধ স’ম্পর্কের ভিডিও ভাইরাল

উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক কামরানের অ’বৈধ স’ম্পর্কের ভিডিও ভাইরাল

806
পড়া যাবে: 5 মিনিটে
advertisement

এক নারীর সাথে আ’পত্তিকর অবস্থায় নাটোরের সিংড়া উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যবসায়ী কামরুল হাসান কামরানের কিছু ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এ নিয়ে সিংড়া উপজেলায় জনগণসহ রাজনৈতিক ব্যাক্তিদের মাঝে আলোড়ন ও সমালোচনা শুরু হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও চলছে পক্ষে-বিপক্ষে নানা আলোচনা সমালোচনা। বিষয়টি এখন টক অব দ্যা টাউন।

advertisement

চেয়ারম্যান কামরান একজন নারীকে জ’ড়িয়ে অ’ন্তরঙ্গভাবে শু’য়ে থাকাসহ বিভিন্নভাবে অবস্থান করতে দেখা গেছে ছবিতে। তবে কে ওই নারী তা কেউ নিশ্চিত করতে পারেনি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয়রা বলেন, সিংড়া উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কামরুল হাসান কামরানের বিরুদ্ধে তার সুদর্শন চেহারা এবং মিষ্টভাষী আচার-আচরণে ফাঁ’দে ফেলে একাধিক তরুণীর সাথে অ’বৈধ স’ম্পর্কের অভিযোগ উঠেছে। কামরানের প্রেমের ফাঁ’দে প’ড়ে ঘর ভেঙেছে উপজেলার ছাতারদীঘি ইউনিয়নের এক দম্পতির৷

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ভুক্তভোগী প্রান্ত ইসলামের এক ঘনিষ্ঠজন বলেন, ‘বিভিন্ন প্র’লোভোনের মাধ্যমে উপজেলা যুবলীগ সম্পাদক কামরান, ছাতারদীঘি ইউনিয়নের গৃহবধূর সাথে গভীর প্রেমের সম্পর্কে জড়ান। সম্পর্কের শুরুর দিকে ওই ব্যক্তি তার স্ত্রীকে স’তর্ক করলেও কোনো লাভ হয়নি৷ এক পর্যায়ে এই অ’বৈধ সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে তাদের একমাত্র ৭ বছরের মেয়েকে ফেলে কামরানের আশায় ঘর ছাড়েন ওই নারী। পরে বিভিন্ন হোটেলে তারা অ’বৈধ স’ম্পর্কে লি’প্ত হন।’

আরও পড়ুন:  সাঈদের নেতৃত্বে লোকমান ক্যা*সিনো থেকে পেতেন ২১ লাখ টাকা,৪১ কোটি টাকা অস্ট্রেলিয়ার ব্যাংকে

ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা যায় যে ইতিমধ্যে গোপনে বিয়ে করেছেন কামরান এবং ওই নারী ৷ যদিও বর্তমানে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান এবং যুবলীগের সেক্রেটারি কামরান এখনও পর্যন্ত তাকে সামাজিকভাবে নিজের স্ত্রী হিসেবে স্বীকৃতি দেননি। স্থানীয় যুবলীগের নেতাকর্মীদের সাথে কথা বলে জানা যায়,তার মতো আরও অনেক বিবাহিত/অবিবাহিত নারীর সাথে কামরানের অ’বৈধ স’ম্পর্ক আছে৷

জাতীয় পার্টির নেতা এবং সাবেক এমপি ইয়াকুব আলীর ঘনিষ্ঠ আত্মীয় উপজেলার বেলোয়া গ্রামের এক মেয়ের সাথেও কামরানের দীর্ঘদিনের অ’বৈধ প্রেমের সম্পর্কের কথা এলাকাবাসীর সবারই জানা৷ কামরানের সাথে অ’বৈধ স’ম্পর্কের কারণে পারিবারিকভাবে বেশ ভালো ব্যাকগ্রাউন্ড, শিক্ষাগত যোগ্যতা, সুন্দর চেহারা সবকিছু থাকার পরও একের পর এক বিয়ের ভেঙে যাচ্ছে তার৷

কিন্তু সরকার দলীয় সংগঠন যুবলীগের উপজেলা সেক্রেটারি হওয়ার কারণে কামরানের বিরুদ্ধে প্র’কাশ্যে মুখ খুলতে ভয় পান এলাকার মানুষ। ওই নারীর মতো আরও অনেক তরুণীকে প্রেমের ফাঁ’দে ফেলে তাদেরকে বিভিন্নভাবে ক্’ষতিগ্রস্ত করার অভিযোগ কামরানের বিরুদ্ধে৷ নারী আ’সক্তির বাইরেও গোপনে অ’বৈধ অ’স্ত্র এবং মা’দক ব্য’বসায়ীদের ম’দদ দেয়ার অভিযোগ রয়েছে কামরানের বিরুদ্ধে।

আরও পড়ুন:  কাঠগড়ায় বুক চেপে ধরে বসে পড়লেন যুবলীগ নেতা জি কে শামীম

কামরানের স্বজনদের দাবি, রাজনৈতিকভাবে হে’য় প্রতিপন্ন করার উদ্দেশ্যে ছবি এডিট করে কামরানকে ফাঁ’সাতে চান প্রতিপক্ষরা। নিজেদের যুক্তির সপক্ষে ছড়িয়ে পড়া ছবিটি থেকে কামরানের মাথা কেটে অন্য মাথা বসিয়েও ফেসবুকে ছবি প্রকাশ করেছেন তারা। এ বিষয়ে জানতে কামরানের মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

সিংড়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি শরিফুল ইসলাম শরিফের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ঘটনাটি তিনি যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেখেছেন। এরপর সারাদিন এই বিষয় নিয়ে তিনি অনেকজনের ফোন পেয়েছেন।

তিনি বলেন, যা কিছু রটে তার কিছুতো বটেই। ফেসবুকের বিষয়ে তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি নন। ঘটনার বিষয়ে জেলা কমিটি তদন্ত করবেন। ঘটনা যদি সত্যি হয় তাহলে জেলা কমিটিই সিদ্ধান্ত নেবেন। দলীয় গঠনতন্ত্র হিসেবে জেলা কমিটির সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সর্বশেষ আপডেট

  • 1.2K
    Shares
advertisement