প্রচ্ছদ স্বাস্থ্য

মে*দ ক*মা*তে ঘু’ম থে’কে উ’ঠে’ই ডি’ম খা’ও’য়া’র প’রা’ম’র্শ গ’বে’ষ’ক’দে’র।

7
মে*দ ক*মা*তে ঘু’ম থে’কে উ’ঠে’ই ডি’ম খা’ও’য়া’র প’রা’ম’র্শ গ’বে’ষ’ক’দে’র।
পড়া যাবে: < 1 minute

অনেকেই মনে করেন ডিম খেলে ওজন বাড়ে। কথাটি সম্পূর্ণ ভুল। সকালে একটি বা দুটি ডিমের সাদা অংশ খেলে তা অনেকটা সময় ধরে পেটে থাকে এবং কম ক্ষুধে পায়৷ এতে অন্যান্য খাওয়া কম হয়। ডিম প্রোটিনের খুব ভালো একটি উৎস। ফলে সারা দিন শরীরে কাজ করার ক্ষমতা পাবেন। পাশাপাশি ওজন কমাতে পারবেন।

মেদ কমাতে ঘু’ম থেকে উঠেই দু’টি ডিম খেয়ে ফেলুন। বিজ্ঞানীরা এমনটাই দাবি করছেন। সকাল বেলা খালি পেটে দু’টি ডিম খেয়ে নিলেই নাকি মেদ কমতে শুরু করবে। বিশেষজ্ঞরা দাবি করছেন, সকালে প্রয়োজন পর্যা’প্ত খাবার। এবং সকালের এই খাবার স্বাস্থ্য ঠিক রাখার মূল সূত্র। সেই সকালেই খেতে হবে দু’টি ডিম।

আরও পড়ুন:  প্রতিদিন সকালে ১টি এলাচে এতো উপকার

ব্রিটিশ মেডিক্যাল জার্নালের প্রকাশিত এক সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায়, সকাল ৮টার আগে যেমন ইচ্ছা তেমন করে খেলে হবে না।

আধ চামচ অলিভ অয়েল দিয়ে ডিম রান্না করুন। এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ডি, প্রোটিন ও বায়োটিন রয়েছে।

অনেকেরই মনে ’হতে পারে, ডিমের কুসুম খাবেন, নাকি খাবেন না। যাদের মনে এমন প্রশ্ন রয়েছে, তারা জেনে রাখু’ন, দুটো ডিমের

কুসুম শরীরে কোনও ক্ষ’তি করবে না। অনায়াসেই খাওয়া যেতে পারে। তবে, কোলেস্টেরলের সমস্যা থাকলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর’্শ নিন।

ব্রিটিশ একট গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে যে, সকালে হাই প্রোটিন খেলে অ্যাব’ডোমেনাল টিস্যু কমে যায়। এতে পেটের মেদ কমে৷

আরও পড়ুন:  এক পা’তা’তেই সা’রবে কা’শি, হাঁ’পা’নি ও শ্বা’স’ক’ষ্ট

তবে রিপোর্ট বলছে, ওজন বা শরীরের মেদ অনেক কারণেই বাড়তে পারে। এর মধ্যে হরমোনাল জটিলতাও অন্যতম।

সেক্ষেত্রে মেদ কমাতে চিকিৎসকের পরামর’্শই প্রথম প্রয়োজন। যারা হার্টের রোগী বা কোলেস্টোরেল সংক্রা’ন্ত জটিলতায় ভুগছেন, তাদের জন্য ডিম একরকম নি’ষি’দ্ধই বলা চলে। সেক্ষত্রে প্রথমেই দরকার চিকিৎসক বা পুষ্টিবিদের পরামর’্শ।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।