প্রচ্ছদ অপরাধ

ঘুমিয়ে থাকা বান্ধবীর পাশ থেকে তুলে নিয়ে একটি কক্ষে আটকে রেখে গণধর্ষণ

12
পড়া যাবে: < 1 minute

গাজীপুরে বান্ধবীর বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছের এক কিশোরী। ভিকটিম কিশোরী বাদী হয়ে ৪ জনকে আসামিকে থানায় মামলা করেছেন। অভিযুক্ত দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে শ্রীপুর থানা পুলিশ। এ ঘটনায় আরো দুজন পলাতক রয়েছে।আসামিরা হলেন- উপজেলার ধামলই গ্রামের মজনু মিয়ার ছেলে সুজন (২৪), মুলাইদ গ্রামের মুন্না (২২), মাওনা উত্তরপাড়া গ্রামের সজল মাস্টারের বাড়ির কেয়ারটেকার দুলু (৪৫) ও মো. বাবুল (৪৮)। এদের মধ্যে সুজন ও বাবুলকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ভিকটিমের বরাত দিয়ে শ্রীপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) গোলাম সারোয়ার বলেন, উপজেলার মাওনা উত্তরপাড়া গ্রামের একটি বাড়ির কেয়ারটেকার হিসেবে কাজ করেন দুলু ও বাবুল। ওই বাড়ির ভাড়াটিয়া দম্পতির এক বান্ধবী পার্শ্ববর্তী ভালুকা থেকে বৃহস্পতিবার ওই বাড়িতে বেড়াতে আসে। পরে রাত ২টার দিকে কেয়ারটেকার দুলু ও বাবুল ঘুমিয়ে থাকা ওই ভিকটিমকে তার বান্ধবীর পাশ থেকে তুলে নিয়ে পাশের একটি কক্ষে আটকে রাখে।

পরে সুজন ও মুন্না ভিকটিমকে হত্যার হুমকি দিয়ে পর্যায়ক্রমে একাধিক ধর্ষণ করেন। রিয়ার ঘর থেকে প্রায় দেড় লাখ টাকার স্বর্ণালংকার ও মোবাইল ফোন নিয়ে যায় ধর্ষণকারীরা। শ্রীপুর থানার ওসি খোন্দকার ইমাম হোসেন জানান, মেয়েটির স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাকি অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান চলছে।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।