প্রচ্ছদ দৈনিক খবর

জেনে নিন এই আশ্চর্যজনক ১২টি কারণ, এগুলোর জন্যই রাতে আপনি ভালো ভাবে ঘুমাতে পারেন না

2
পড়া যাবে: 3 মিনিটে

নিয়মিত ঘুমের ঘাটতি আপনার দিনের বেলার সকল কাজের ১২টা বাজাতে যথেষ্ট। তার উপর পর্যাপ্ত ঘুমের অভাব আপনার ওজনও বাড়িয়ে দেবে এটা এখন প্রমাণিত সত্য।এখানে কিছু টিপস দেওয়া হলো যা আপনার আরাম’দায়ক ঘুম নিশ্চিত করবে এবং আপনি হয়ে উঠবেন সুস্বাস্থ্যের অধিকারী।

১. বেকায়দায় শোয়া
পাশে কেউ থাকুক বা আপনি একাই ঘুমান, উল্টোপাল্টা ভাবে শুয়ে আপনি ভালো’ভাবে ঘুমাতে পারবেন না। বরং এতে আপনার শরীর ব্যথা করতে পারে।সমাধান: আপনার জন্য আরাম’দায়ক শোয়ার ভঙ্গি বেছে নিন। গভীর ঘুম না আসা পর্যন্ত সেই ভঙ্গি পরিবর্তন করবে না।

৩. মনে মনে হাজার কথা
বিছানায় শুয়ে যদি মনে মনে হাজার রকম কথা বলেন বা কোনে কিছু নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়েন তাহলে ভালো ঘুম হবে না এটাই স্বাভাবিক।সমাধান: চিন্তা নিয়ে বিছানায় যাবে না এবং মনকে অন্যদিকে সরিয়ে নিতে উল্টো দিক থেকে সংখ্যা গোনার চেষ্টা করুন।

২. প্রস্তুতি না থাকা
অন্য সব কিছুর মত ঘুমের জন্যও প্রস্তুতি প্রয়োজন। ঘুমানোর যথাযথ প্রস্তুতি না নিলে আপনি খুব সহ’জে ঘুমাতে পারবেনা।সমাধান: ঘুমানোর আগে কুসুম গরম পানি দিয়ে গোসল করতে পারেন। বিছানাপত্র ঝেড়ে সুন্দর করে গুছিয়ে নিন। যদি মশারি টানাতে হয় টানিয়ে নিন।

৮. শব্দ
বাইরের গাড়ি কিংবা ঘড়ির টিকটিক শব্দ মাঝরাতে আপনার ঘুম ভেঙ্গে দিতে পারে।সমাধান: ঘুমাতে গেলে মা’থা কাপড় দিয়ে মুড়িয়ে নিন। মা’থা মুড়িয়ে ঘুমাতে অস্বস্তি লাগলে ইয়ার প্লাগ কিনে নিন। ইয়ার প্লাগ কানে গুজে ঘুমলে বাইরের কোনো শব্দ আপনার কানে ঢুকবে না।

৭. বিছানায় অন্যান্য কাজ করা
কিছু কিছু মানুষ বিছানাকে শুধু ঘুমানোর কাজেই ব্যবহার করেন না, বিছানাটাকেই যেন অফিস বানিয়ে ফেলেন, যা আপনার ঘুমের মান নষ্ট করে।
সমাধান: শোবার ঘরে কোনো কাজ নিয়ে ঢুকবেন না।

আরও পড়ুন:  গার্মেন্টসকর্মী থেকে কোটা ছাড়াই ১ম বারেই বিসিএস ক্যাডার!

৬. ক্যাফেইন
এটা তো আর গো’পন কথা না যে, রাতের বেলা চা বা কফি খেলে ঘুমাতে দেরি হয়। শুধু চা-কফি কেন, ক্যাফেইন সমৃদ্ধ যেকোনো খাবার যেমন-চকলেট আপনাকে জাগিয়ে রাখার ব্যাপারে বড় ভূমিকা পালন করে।সমাধান: বিকালের পর ক্যাফেইন সমৃদ্ধ কোন খাবার খাবেন না।

৫. জো’র করে ঘুমানোর চেষ্টা
জো’র করে যেমন সব কিছু করা যায় না তেমনি ঘুমও জো’র করে আনা সম্ভব না। ঘুমের সাথে জো’র করলে বিছানায় শুধু গড়াগড়িই হবে ঘুম আর আসবে না।সমাধান: শোয়ার ২০ মিনিটের মধ্যে যদি ঘুম না আসে একটা বই হাতে নিয়ে পড়তে শুরু করুন। মুঠোফোন বা ট্যাবলেট পিসি নিয়ে বসবেন না যেন। এতে আবার হিতে বিপরীত হতে পারে।

৪. অ্যালকোহল
যদিও অ্যালকোহল পান করলে দ্রুত ঘুম চলে আসে, কিন্তু এর সবচেয়ে বড় অ’সুবিধা হলো যখন ঘুম থেকে উঠবেন তখন আপনার ক্লান্ত লাগবে এবং বমি বমি ভাব হবে।সমাধান: অ্যালকোহল খাওয়া ছেড়ে দিন অথবা ঘুমানোর ২ ঘণ্টা আগে খাবেন।

১০. ঘুমের রুটিন নেই
আজ কাজ কম তাই আগে ভাগে বাসায় গিয়ে ফ্রেশ হয়ে বিছানায় শুয়ে পড়লেন, দেখবেন মাঝ রাতে ঘুম ভেঙ্গে যাবে। আবার অনেকে অকারণেই বিছানায় ল্যাপটপ বা মুঠোফোন নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। তাদেরও রাতের ঘুম মাটি হয়ে যায়। ফলাফল পর দিনই তো টের পাওয়া যায়।সমাধান: প্রতিদিন একই সময় ঘুমাতে হবে। রাত ১০টা থেকে ১১টার মধ্যে ঘুমিয়ে পড়ুন।

৯. আলোর যন্ত্র’ণা
শোবার ঘরে খুব ছোট আলোও ঘুমের ব্যাঘাত ঘটানোর জন্য দায়ী হতে পারে। এই আলো আসতে পারে ঘরের বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স যন্ত্রপাতি থেকে। মনে রাখবেন, যত অন্ধকার ঘর তত ভালো ঘুমের নিশ্চয়তা।সমাধান: আলো উৎপাদন করে এমন যন্ত্রপাতি শোবার ঘর থেকে সরিয়ে নিন বা ঘুমানোর আগে সব ইলেকট্রনিক্স বন্ধ করে ঘুমান। তাও যদি সম্ভব না হয় তাহলে চোখে স্লিপিং মাস্ক ব্যবহার করুন। বাজারে এখন স্লিপিং মাস্ক কিনতে পাওয়া যায়।

আরও পড়ুন:  সদস্যদের জন্য দূরপাল্লার বাস চালু করছে পুলিশ

১২. শোয়ার ঘরের তাপমাত্রা
হয়তো খেয়াল করেছেন অসহনীয় ঠাণ্ডা বা গরম তাপমাত্রার কারণে রাতে ঠিক মত ঘুম হয় না আপনার। ভালো ঘুমের জন্য শোয়ার ঘরের তাপমাত্রা ১৫-২৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি বা কম কোনোটাই হওয়া উচিত নয়।সমাধান: শীতের দিনে মোটা লেপ বা কম্বলের সাথে আরও একটি পাতলা কাঁথা নিয়ে ঘুমবেন। তাহলে অ’তিরিক্ত ঠাণ্ডা লাগলে ওটাও গায়ে জড়িয়ে নিতে পারবেন। আর গরমের দিনে হলে দরজা জানালায় পাতলা পর্দা ব্যবহার করবেন অথবা পর্দা সরিয়ে রাখবেন ঘুমানোর সময়। এতে ঘরে বাইরের খোলা বাতাস চলাচল করবে এবং আপনি আরামে ঘুমাতে পারবেন।

১১. শরীরচর্চা
নিয়মিত ব্যায়াম আপনার স্নায়ুর সংবেদনশীলতা বৃদ্ধি করে। তবে দীর্ঘক্ষণ ব্যায়ামের পর ঘুম চলে আসতে পারে। যদি ক্লান্তি দূর করতে দিনের বেলায় হালকা ঘুমিয়ে নিতে অভ্যস্ত হয়ে পড়েন তাহলে রাতে সহ’জে ঘুম আসতে চাইবে না।সমাধান: ঘুমানোর ৩ ঘণ্টা আগে শরীরচর্চা করুন।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।