প্রচ্ছদ ক্রিকেট আঁধার পেরি’য়ে আলো’য় বাংলাদেশে’র ক্রিকেট

আঁধার পেরি’য়ে আলো’য় বাংলাদেশে’র ক্রিকেট

18
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

একে তো মাঠে খারাপ সময় পার করছে বাংলাদেশ। সঙ্গে ক্রিকেটারদের আন্দোলন, সাকিব আল হাসানের নিষেধাজ্ঞা; সব মিলিয়ে নিকষ অন্ধকারে ঢেকে গিয়েছিল বাংলাদেশের ক্রিকেট। এমন গুমোট পরিস্থি’তি থেকে পুরো দেশ এবং দলকে আলোর মুখ দেখাতে পারে একটি জয়। বাংলাদেশ দলের সবারই জানা ছিল তা।’ ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ জয়ে আলোক মুখ দেখেছে বাংলাদেশের ক্রিকেট, মনে করছেন মুশফিকুর রহিম।’

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের শেষ দিক থেকে শুরু হয়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেটের অন্ধকার সময়। ‘টুর্নামেন্টের শুরুতে দেখানো পারফরম্যান্স মলিন হয়ে যায় শেষে এসে। এরপর শ্রীলঙ্কা সফরে গিয়ে হোয়াইটও’য়াশ হয় বাংলাদেশ। ঘরের মাঠে আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে যেন নিজেদের হারিয়ে খুঁজছিল সাকিব আ’লা হাসানের দল।

ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে’ও আফগানদের কাছেই হারতে হয়েছে স্বাগতিকদের। এরপর ১’৩ দফা দাবি নিয়ে ক্রিকেটারদের আন্দোলন। এর ‘কয়েকদিন বাদে সাকিবের বিরুদ্ধে আইসিসির দুই বছরের নিষেধা’জ্ঞা।

আরও পড়ুন:  মোহাম্মদ সামির ঠিকানা সিলেট থান্ডার

অস্বস্তিকর, অস্থিতিশীল পরিস্থি’তির মধ্য দিয়ে গেছে বাংলাদেশের ক্রিকেটের সাম্প্রতিক সময়।’ এমন পরিস্থিতির মধ্যে ভারত সফরে গিয়েছে বাং’লাদেশ। তবে ভারতের বিপক্ষে একটি জয় অনেক পরিবর্তন এনে’ দেবে বাংলাদেশ ক্রিকেটে, জানতেন দলের ক্রিকে’টাররা।’

সফরের আগে দলের সকলকে এ’মনই বা’র্তা দেন অভিজ্ঞ মুশফিক। ভারতের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ জয় বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য অনে’ক বড়’ মুহূর্ত, ম্যাচ শেষে বলেছেন দলের জয়ে অবদান রাখা ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান।”’

অপরাজিত ‘৬০ রানের ইনিংস খেলা মুশফিক বলেন, ‘আমার ১৫ বছরের ক্যারিয়ারে গত ২-৩ সপ্তাহ সবচেয়ে কঠিন সময় ‘ছিল। আমি দেশ ছাড়ার আগে সবাইকে বলেছিলাম একটি জিনিসই ‘আমাদের ভাল ছন্দে ফেরাতে পাবে। তা হলো’, ভালো খেলা এবং একটি জয়। এটাই আমাদের দলে এবং পুরো জা’তির মুখে হাসি ফিরিয়ে আনতে পারে।”’

জয়ের ‘জন্য নি’জেদের সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছে বাংলাদেশ। কারণ এই পরিস্থিতি থেকে বের হওয়ার একটাই পথ খোলা ছিল, ভা’র’ত বধ। সেটাই করেছে বাংলাদেশ দল। যা হাসি এনে দিয়েছে পুরো দেশের মুখে, মনে করছেন মুশফিক।’

আরও পড়ুন:  বাংলাদেশের পক্ষে ব্যাট ধরলেন কোহলি

‘কখনই ”কেউ চায় না এমন পরিস্থিতি আসুক। এখান থেকে ফিরে আসার একটাই পথ ছিল, একটা জয় বা ভালো কিছু করা”। ১৭-১৮ কোটি মানুষ সব সময় আমাদের দিকে তাকিয়ে থাকে। আমরা মরিয়াভাবে চেষ্টা করেছি, বাকিটা ছিল উপরওয়ালার উপর। অন্তত এই চেষ্টাটা যেন সব সময় করতে পারি।’ যোগ করেন তিনি।

টি-টোয়েন্টি’ ফরম্যাটে ভারতের বিপক্ষে গত আটবারের দেখায় একবারও জয়ের মুখ দেখেনি বাংলাদেশ। সেই অপূর্ণতা রবি’বার দিল্লির অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে পূর্ণ করেছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকরা।

২০১৬ টি-টো’য়েন্টি বিশ্বকাপ, নিদাহাস ট্রফিতে হারের আক্ষেপ ঘুচিয়েছে বাংলাদেশ। নতুন আলোয় আরও অনেক দূর পাড়ি দিক’ বাংলাদেশের ক্রিকেট, চাওয়া সকলের।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

  • 44
    Shares