প্রচ্ছদ উপজেলা প্র’কাশ্যে আ.লীগ নেতার মা’রধ’র করার অপমানে কৃষকের আ’ত্মহ’ত্যা

প্র’কাশ্যে আ.লীগ নেতার মা’রধ’র করার অপমানে কৃষকের আ’ত্মহ’ত্যা

132
পড়া যাবে: 4 মিনিটে
advertisement

ফেনীর পরশুরামে স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা ফিরোজ আহম্মদের বিরুদ্ধে এক কৃষককে প্রকাশ্যে মা’রধ’র করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় অপমানে আবু আহাম্মদ (৫০) নামের ওই কৃষক আ’ত্মহ’ত্যা করেছেন। আজ মঙ্গলবার সকালে ওই কৃষকের লা’শ উদ্বার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় নি’হতের স্ত্রী রহিমা আক্তার বাদি হয়ে পরশুরাম থানায় একটি অ’পমৃ’ত্যুর মা’মলা দা’য়ের করেছেন।

advertisement

এর আগে গতকাল সোমবার রাতে উপজেলার মির্জানগর ইউনিয়নের কাউতলী গ্রামে আ’ত্মহ’ত্যা করেন ওই কৃষক। নি’হতের স্ত্রীর অভিযোগ, গতকাল সোমবার রাতে ধানখেতে ওষুধ দেওয়াকে কেন্দ্র করে স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফিরোজ আহম্মদ তার স্বামীকে অফিসে ডেকে নিয়ে বটতলী বাজারে প্র’কাশ্যে মা’রধ’র করেন। একপর্যায়ে আবু সেখান থেকে পা’লিয়ে যান।

আরও পড়ুন:  বেতন বেড়েছে কয়েক গুণ তবুও এতিমদের টাকা মে*রে দিচ্ছেন স*রকারি কর্মকর্তারা

রহিমা আক্তার বলেন, ওই আওয়ামী লীগ নেতা তার মোবাইল ফোনে কল দিয়ে আবুকে অফিসে পাঠানোর জন্য তাকে হু’মকি দেন। জবাবে স্বামী বাড়িতে নেই জানালে ফিরোজ লোকজন পাঠিয়ে তাকে বাড়ি থেকে তুলে নেওয়ার হু’মকি দেয় এবং অ’শ্লীল ভাষায় গা’লিগা’লাজ করে।

রাত ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত ফিরোজ তার মোবাইালে ১০/১২ বার ফোন করে দিয়ে হু’মকি দিয়েছেন বলে পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন কৃষকের স্ত্রী। পরে রাত ১০টার দিকে আবুর লা’শ বাড়ির পেছনে একটি গাছের সঙ্গে ঝু’লন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। এরপরই স্থানীয়রা পরশুরাম থানা পুলিশকে খবর দেয়।

পরশুরাম থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মাহবুবুর রহমান জানান, নি’হতের লা’শ উদ্বার করে ম’য়নাত’দন্তের জন্য ফেনী সদর হাসপাতালের ম’র্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় একটি অ’পমৃ’ত্য মা’মলা রেকর্ড করা হয়েছে। এ ব্যাপারে ত’দন্ত করা হবে। ঘটনায় কেউ জড়িত থাকলে তাকে আইনের আওতায় আনা হবে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

আরও পড়ুন:  অ’পরাধীদের আ’গুনে পু’ড়িয়ে মা’রা হোক যাতে বুঝতে পারে আ’গুনের পো’ড়া য’ন্ত্রণা কত ক’ষ্টের

এ বিষয়ে জানতে চাইলে তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করেন আওয়ামী লীগের ওই নেতা। ফিরোজ আহাম্মদ বলেন, আবু আহাম্মদের স্ত্রীকে রাতে মোবাইল করে আজ সকালে তার সঙ্গে দেখা করতে বলা হয়েছিল। তাকে তার জমিতে ওষুধ দিতে বলা হলে সে অন্য একজনের ধানখেতে ওষুধ দেওয়ায় তাকে জিজ্ঞাসা করতে ডাকা হয়েছিল।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সর্বশেষ আপডেট

  • 503
    Shares
advertisement