প্রচ্ছদ কৃষি, প্রাণী ও পরিবেশ

১০ নভেম্বর বাংলাদেশে আ’ঘাত হানতে পারে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’

214
পড়া যাবে: < 1 minute

ঘূর্ণিঝড় কিয়ারের পর এবার দরজায় কড়া নাড়ছে ঘণ্টায় ১৪০ থেকে ১৫০ কিলোমিটার বেগের ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। এমনটাই জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। পশ্চিমবঙ্গের আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরে ঘনীভূত গভীর নিম্নচাপ আগামী ২৪ ঘণ্টায় ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে। বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ওই ঘূর্ণিঝড় পশ্চিমবঙ্গ উপকূলের দিকে এগোচ্ছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর।

এরপর ঘূর্ণিঝড়টি ভারতের উড়িষ্যা ও পশ্চিমবঙ্গ হয়ে বাংলাদেশে আ’ঘাত হানতে পারে আগামী ১০ নভেম্বর। আজ রাতেই ভারতে এর প্রভাবে ভারী বৃষ্টি শুরু হতে পারে।

আজ বিকালে বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদপ্তরের আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরে থাকা নিম্নচাপটি সামান্য পশ্চিম-উত্তর পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়েছে। সকাল নয়টার দিকে একই এলাকায় থাকা এ নিম্নচাপ গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। এটি আরও ঘনীভূত হয়ে উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়েছে।

আরও পড়ুন:  ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ এর কারণে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সোমবারের সব পরীক্ষা স্থগিত

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় দেশের উপকূলীয় অঞ্চলের দু-একটি জায়গায় হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে। দেশের অন্যত্রও এর প্রভাবে আকাশ মেঘলা থাকবে।

এখন পর্যন্ত উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত সকল মাছ ধ’রার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে ও গভীরসাগরে বিচরণ না করতে নির্দেশ দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

এর আগে আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছিল, এই ঘূর্ণিঝড়ের সেরকম একটা প্রভাব দুই বাংলার ওপর পড়বে না। তবে কিছুটা বৃষ্টিপাত হতে পারে।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

  • 1.2K
    Shares