fbpx
প্রচ্ছদ জীবন-যাপন

প্যান্টের পকেট ছেলেদের বড় আর মেয়েদের ছোট হয় কেন ?

314
প্যান্টের পকেট ছেলেদের বড় আর মেয়েদের ছোট হয় কেন
ছবি : সংগৃহীত

পড়া যাবে: < 1 minute

আমরা যখন লিঙ্গ অসমতার কথা ভাবি, তখন প্যান্টের পকেটের কথা কি ভাবি? পুরুষের প্যান্টের পকেটটি বেশ বড় আর নারীর প্যান্টের পকেটটি ছোট। কিন্তু নারীর পকেটটি কেন ছোট? এর কি কোনো উপকারিতা আছে? নতুন এক গবেষণা এর উত্তর দিয়েছে। বলছে, এটা বাস্তবসম্মত নয়। ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের সামনের পকেট অনেক ছোট। এ কারণে ছেলেরা বেশি সুবিধা ভোগ করেন। তবে পকেটে লিঙ্গবৈষম্য কমিয়েছে ডেনিম ব্র্যান্ড। তাদের জিন্সে পকেট বেশ বড়। যাহোক, মেয়েদের পকেট একটু বড় হলে সামান্য কিছুর জন্য আর বড় পার্স টানতে হতো না!

এতদিন আমরা এটা জেনে আসলেও নতুন এ গবেষণা আনুষ্ঠানিকভাবে জানাল, পুরুষের তুলনায় সত্যিই নারীর পকেট উল্লেখযোগ্যভাবে ছোট, যা সম্পূর্ণ অকার্যকর।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, গবেষণার মাধ্যমে দ্য পুডিং দেখিয়েছে, ছেলেদের জিন্সের তুলনায় মেয়েদের জিন্স ৪৮ শতাংশ ছোট এবং সাড়ে ছয় শতাংশ সরু।

ক্যালভিন ক্লেইন, এইচ অ্যান্ড এম, লেভিস, রালফ লরেনের মতো বিশ্বের প্রধান কুড়িটি ফ্যাশন ব্র্যান্ডের আশি প্রকার জিন্সের পকেটের মাপ পরীক্ষা করে গবেষক দল জানিয়েছেন, মেয়েদের পকেট খুব ছোট। তবে তাঁরা বলছেন, এ কারণে মেয়েদের প্যান্ট নান্দনিকও।

পকেটে রাখা হয় এমন জিনিস, যেমন চাবির গোছা, ফোন, ওয়ালেট— এসব ছেলেদের পকেটে রাখা যায়, কিন্তু মেয়েদের পকেটে রাখা যায় না। ৪০ শতাংশ মেয়েদের জিন্সে আইফোন রাখা যায় আর ২০ শতাংশ মেয়েদের জিন্সে স্যামসাং গ্যালাক্সি রাখা যায়। আর সব রাখার জায়গা কই!

এদিকে, ছেলেদের জিন্সের সামনের পকেটে আইফোন রাখা যায়। ৯৫ শতাংশ জিন্সে স্যামসাং গ্যালাক্সি অনায়াসে রাখা যায়। কিন্তু মেয়েরা তা পারেন না।

পকেট এত ছোট যে, মেয়েরা জিন্সের প্যান্টের সামনের পকেটে সহজে হাত পর্যন্ত ঢোকাতে পারেন না। গবেষণা বলছে, মাত্র ১০ শতাংশ জিন্সের পকেট মেয়েদের হাত ঢোকানোর উপযোগী। অথচ ছেলেদের জিন্সের সামনের পকেটে ছেলে-মেয়ে উভয়ের হাত একসঙ্গে ফিট হয়ে যায়!

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @banglanewsmagazine আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।