প্রচ্ছদ বিশ্ব সংবাদ কে আগে ধ’র্ষণ করবে তা নিয়ে মারামারি,নি’হত ১

কে আগে ধ’র্ষণ করবে তা নিয়ে মারামারি,নি’হত ১

548
পড়া যাবে: < 1 minute

বিধবা এক নারীকে রাস্তা থেকে তুলে জঙ্গলে নিয়ে যায় অ’পহ’রণকা’রীরা। এরপর ‌‘কে আগে ওই নারীকে ধ’র্ষণ করবে’ তা নির্ধারণ করতে তাদের মধ্যে লেগে যায় মা’রামা’রি। এ ঘটনায় প্রথমে ধ’র্ষণ করতে চাওয়া এক অ’পহ’রণকা’রীকে পি’টিয়ে মে’রে ফেলেছে অপর চারজন। পরে ওই নারীকে পালাক্রমে ধ’র্ষণ করে অ’পহ’রণকা’রীরা।

চাঞ্চল্যকর এ গ’ণধ’র্ষণের ঘটনা ঘটেছে ভারতের তামিলনাড়ুর কুড্ডালোর জেলার নেভেলি এলাকায়। গতকাল বৃহস্পতিবার এ ঘটনায় জড়িত চার সন্দেহভাজন ধ’র্ষককে গ্রে’প্তার করেছে পুলিশ। ওই চারজনের বিরুদ্ধে তাদেরই এক সঙ্গীকে পি’টিয়ে হ’ত্যার অভিযোগ রয়েছে।

অভিযুক্তরা হলেন- এস কার্তিক (২৩), এম সতীশ কুমার (২৩), সি রাজাদুরাই (২৫) এবং এ সিভাবালান (২২)। আর যে সঙ্গীকে তারা মে’রে ফেলেছেন তার নাম হলেন- এম প্রকাশ (২৬)। অভিযুক্তরা পেশায় দিনমজুর ছিলেন।

ভারতীয় গণমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া ও ইন্ডিয়া টুডের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তামিলনাড়ুর নেভেলিতে ৩২ বছরের এক বিধবা নারীকে গ’ণধ’র্ষণের অভিযোগ উঠেছে। মুদি দোকান থেকে ফেরার পথে তার রাস্তা আটকায় অ’পহ’রণকা’রীরা। ওই সময় রাস্তা দিয়ে একাই ফিরছিলেন তিনি। সে সময় অ’পহ’রণকারী পাঁচজনই ম’দ্যপ ছিলেন।

ধ’র্ষণের শি’কার ওই নারীর বরাত দিয়ে পুলিশ বলছে, রাস্তায় ওই নারীকে উত্ত্যক্ত করা শুরু করেন অভিযুক্তরা। ওই নারী দৌঁড়ে পালানোর চেষ্টা করেন; কিন্তু অ’পহ’রণকা’রীরা ধাওয়া দিয়ে আ’টক করে তাকে। এরপর তাকে টেনে হেঁচড়ে পরিত্যক্ত জঙ্গলে নিয়ে যায় তারা।

জঙ্গলে নেওয়ার পর কে আগে ওই নারীকে ধ’র্ষণ করবে তা নিয়ে অপহরণকারীদের মধ্যে তর্ক-বিতর্ক শুরু হয়। এম প্রকাশ নামে এক অ’পহ’রণকারী প্রথমে ওই নারীকে ধ’র্ষণ করতে চাইলে বাকিরা তাতে আপত্তি জানায়। পরে বাকি চারজন তাকে পি’টিয়ে মে’রে ফেলে। ওই নারীকে পালাক্রমে ধ’র্ষণের পর অবচেতন অবস্থায় ম’রদে’হের পাশে রেখে পালিয়ে যায়।

জ্ঞান ফেরার পর গ’ণধ’র্ষণের শি’কার নারী পুলিশ স্টেশনে গিয়ে অভিযোগ দা’য়ের করেন। পরে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে মেডিকেল পরীক্ষা করা হয়। এ ঘটনার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই চারজনকে গ্রে’প্তার করেছে কুড্ডালো পুলিশ।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সর্বশেষ আপডেট:

  • 45
    Shares