প্রচ্ছদ বিশ্ব সংবাদ

পরীক্ষায় ফেল করলে বিয়ে করা যাবে না ২০২০ থেকে সরকারি নিয়ম

105
পড়া যাবে: < 1 minute

‘পরীক্ষায় ফেল করলে বিয়ে দিয়ে দিবো’- এমন কথা হারহামেশা শোনা যায় আমাদের দেশে। কিন্তু ইন্দোনেশিয়ার চিত্রটা ভিন্ন। সেখানে বিয়ে করতে হলে পরীক্ষায় পাস করতে হবে। তারপর সরকার থেকে দেয়া হবে প্রশংসাপত্র। তবেই মিলবে বিয়ের অনুমতি।জানা গেছে, ন্যূনতম যোগ্যতা হিসেবে পাস করতে হবে তিন মাসের প্রি ওয়েডিং কোর্স। শুধু কোর্স করলেই হবে না, সঠিক নম্বরও পেতে হবে। ২০২০ থেকে এই নিয়ম চালু করতে চলেছে ইন্দোনেশিয়া সরকার। প্রশাসন সূত্রে এমনটাই জানা গেছে। খবর ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

প্রাথমিক ভাবে জানা যাচ্ছে দেশে ক্রমশ বাড়তে থাকা বিবাহবিচ্ছেদ আ’ট’কাতেই সরকারের এই সিদ্ধান্ত। কী’ভাবে সংসারের দৈনন্দিন কাজ সামলে দাম্পত্য জীবন সুখের করে তোলা করা যায়, থাকছে সেই প্রশিক্ষণও। বেশ কিছু রােগ এবং তার প্রাথমিক চিকিৎসা স’ম্পর্কেও আলােচনা করা হবে এই পাঠক্রমে।

সম্প্রতি সে দেশের হিউম্যান ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড কালচারাল অ্যাফেয়ার্স কো-অর্ডিনেটিং মন্ত্রী মুহাদজির এফেন্দি সংবাদ সংস্থাকে জানিয়েছেন, নব দম্পতিরা যাতে শান্তিতে সংসার করতে পারেন, সে কারণেই প্রি-ওয়েডিং কোর্সের ভাবনা। সরকারের এই প্রি-ওয়েডিং কোর্সের পাঠক্রমে থাকছে যৌ’ন শিক্ষা, সন্তান কী’ভাবে মানুষ করবেন তার প্রশিক্ষণ।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

  • 109
    Shares