প্রচ্ছদ বিশ্ব সংবাদ

রাতে নারীদের ফ্রি সার্ভিস দেবে পুলিশ

90
পড়া যাবে: < 1 minute

সাম্প্রতিক সময়ে ধর্ষণের ঘটনা অনেকটাই বেড়ে গেছে ভারতে। জনমনে বিশেষ করে নারীদের মাঝে এ নিয়ে চরম উদ্বেগ সৃষ্টি হয়েছে। রাতে একা চলাফেরা করতে ভয় পান ভারতের অধিকাংশ নারী। তারই পরিপ্রক্ষিতে রাতে নারীদের সুরক্ষা দিতে যুগান্তকারী পরিষেবার কথা ঘোষণা করলেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং। তিনি জানিয়েছেন, তাঁর রাজ্যে নারীদের সুরক্ষায় রাতে ফ্রিতে বাড়ি পৌঁছে দেবে পু’লিশ। মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী এ কথা জানিয়েছেন।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, দেশজুড়ে যেভাবে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে চলেছে, তাতে করে নিজের রাজ্যের নারীদের সুরক্ষার জন্য রাত ৯টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত যে সকল নারী কাজ থকে ফেরার সময়ে রাস্তায় আটকে পরবেন, তাঁদের বিনামূল্যে পু’লিশ সুরক্ষিতভাবে বাড়ি পৌঁছে দেবে। সম্প্রতি তেলেঙ্গানায় ঘটা নারী পশুচিকিৎসককে গণধ’র্ষণ ও পরে পুড়িয়ে হ’ত্যা করার ঘটনা প্রসঙ্গে এই নতুন সমাধান সূত্রের কথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অম’রিন্দর সিং। তিনি বলেন, ইতোমধ্যে রাজ্যজুড়ে ১০০, ১১২ এবং ১৮১ এই তিনটি হেল্পলাইন পরিষেবা চলু রয়েছে। যা সরাসরি পু’লিশ কন্ট্রোলরুমের সঙ্গে যুক্ত। একইসঙ্গে এই পরিষেবা যাতে সঠি ভাবে পরিচালনা হয় তার জন্যেও মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অম’রিন্দর সিং রাজ্যের ডিজিপি দীনকর গুপ্তাকেও নির্দেশ দেন। অম’রিন্দর সিং বলেন, এই বিশেষ পরিষেবা তাঁরাই পাবেন, যে নারীরা রাতে বাড়ি ফেরার জন্য কোনও সুরক্ষিত গাড়ি অথবা ট্যাক্সি বা তিন চাকার বাহন পাবেন না। তিনি আরও বলেন, এই সময়ে পু’লিশের সঙ্গে একজন নারী পু’লিশ কর্মীর থাকা বাধ্যতামূলক। এ বিষয়ে রাজ্যের ডিজিপি দীনকর গুপ্তা জানান, পু’লিশ কন্ট্রোলরুমকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, এই পরিষেবা অবশ্যই মোহালি, পাটিয়ালা এবং ভাটিন্ডার মতো শহরে থাকা বাধ্যতামূলক।

আরও পড়ুন:  ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক ও গুলশান ক্লাবের সভাপতির গাড়ি থেকে গু’লি ও মা’দক উদ্ধার

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

  • 35
    Shares