প্রচ্ছদ বাংলাদেশ উপজেলা

স্ত্রীকে হাসপাতালে রেখে কলেজছাত্রীকে নিয়ে উধাও যুবলীগ নেতা

239
পড়া যাবে: < 1 minute

বগুড়ার নন্দীগ্রামে স্ত্রীকে হাসপাতালে রেখে কলেজছাত্রীকে নিয়ে নিরুদ্দেশ হয়েছেন যুবলীগ কর্মী শাহীন আলম (৩০)। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শাহিন আলমের স্ত্রী রেহেনা বেগম (২৫) রবিবার ভোরে মা’রা যান। জানা গেছে, নন্দীগ্রাম উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি শাহিন আলমের তুলাশন গ্রামের এক কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

বিষয়টি জানাজানি হলে শাহীন আলমের সাথে তার স্ত্রীর ঝগড়া হয়। এক পর্যায় শুক্রবার শাহীনের স্ত্রী রেহেনা বেগম বাড়িতে ডিটারজেন পাউডার পানিতে মিশিয়ে পান করে অসুস্থ হয়ে পড়েন। শাহীন আলম অসুস্থ স্ত্রীকে হাসপাতালে ভর্তি করে ওই দিনই সন্ধ্যার পর সুমি আকতারকে নিয়ে নিরুদ্দেশ হন। এ দিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রবিবার ভোরে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মা’রা যান।

আরও পড়ুন:  হাসপাতাল থেকে চুরি হওয়া নবজাতক উদ্ধার, নারী গ্রে'ফতার

বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নূর মোহাম্মাদ জানান, শাহীনের দুইটি সন্তান রয়েছে। এরপরেও এক কলেজছাত্রীকে নিয়ে নিরুদ্দেশ হয়েছেন। তাদের খোঁজ পাওয়া যায়নি। বগুড়ার নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ শওকত কবির জানান, এমন একটি খবর শুনেছি। কিন্তু কেউ কোন লিখিত অভিযোগ দায়ের করেনি।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

  • 121
    Shares