প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয়

*জাতিগতভাবে মুসলিমদের নির্মূল করার অ’পচেষ্টা চলছে*

59
পড়া যাবে: < 1 minute

ভারতে মুসলিম জাতির ঐতিহ্য, সংস্কৃতি ও স্বতন্ত্র অস্তিত্ব বিনাশ করার মাধ্যমে মুসলমানদের জাতিগত’ভাবে নির্মূল করার অপচেষ্টা চলছে বলে মন্তব্য করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ। তিনি বলেন, ভারতের পার্লামেন্টের উভয় কক্ষে ‘নাগরিকত্ব সংশোধন বিল’- সিএবি তারই অন্যতম প’দক্ষেপ। বাবরি মসজিদের রায়, এনআরসি, কাশ্মীরের স্বায়ত্বশাসন বাতিল, তিন তালাক নিষিদ্ধ’করণ, অভিন্ন দেওয়ানি আইন প্রবর্তনের অপচেষ্টা এসব একই সূত্রে গাঁথা। অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে, মুসলিম নিধনে বিজেপি সরকার স্পেন মডেল অনুসরণ করতে চায়।

আরও পড়ুন:  ইসলামী আন্দোলনের ৩০০ আসনের চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা

শু’ক্রবার ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সহ-প্রচার সম্পাদক শেখ মুহাম্মাদ সাইফুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তিনি এসব কথা বলেন।মাওলানা মাসউদ বলেন, বিজেপি সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতনের এবং তাদের নরক যন্ত্রণার যে কথা বলেছেন, তা সর্বৈব মিথ্যা। সংখ্যালঘু নির্যাতন, জাতিগত দাঙ্গা ও বর্ণভেদ ভারতীয় সমাজের বৈশিষ্ট্য। ভারত যেখানে হিন্দু ধর্মের অনুসারীদেরকেই বিভিন্ন জাত*পাতে বিভক্ত করে রাখে এবং সব সময় নিন্ম শ্রেণির হিন্দুদের মানসিক নির্যাতন সইতে হয়, সেখানে সংখ্যা’লঘু সম্প্রদায় কেমন অস্থিরতা, সন্দেহ ও ভীতিকর পরিবেশে থাকতে হয় তা সহজে অনুমেয়।

এর বিপরীতে বাংলাদেশ সম্প্রদায় সম্প্রীতির জন্য বিশ্বে অনন্য।এদেশে অন্য ধর্মাবলম্বীরা শু’ধু নিরাপত্তা এবং সমতাই নয়, অনেক ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার ভোগ করে। বাংলাদেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষ মুসলমান বলেই তা সম্ভব হয়েছে। ভারতের মনে রাখা উচিত, ভারতের মুসলমানরা মুসলিম উম্মাহর অংশ এবং বিশ্ব সমাজ থেকে বিচ্ছিন্ন কেউ নয়।নগর উত্তর সভাপতি আরও বলেন, সরকার ‘ভারত*বাংলাদেশ’ স’ম্পর্কের সোনালী অধ্যায় চলছে বললেও ভারতের একের পর এক বাংলাদেশের স্বার্থবিরোধী পদক্ষেপে দেশবাসী উদ্বিগ্ন। স্রোতের গতিপথ তৈরি হলে স্রোতকে থামিয়ে রাখা যায় না। সুতরাং,সরকারকে এখনই কার্যকর উ’দ্যোগ নিতে হবে।

আরও পড়ুন:  কাশ্মীরের পর সুযোগ পেলেই বাংলাদেশ দখল করার চক্রান্ত করবে মোদি

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

  • 373
    Shares