প্রচ্ছদ ঘটনা-দুর্ঘটনা বিমান দুর্ঘটনার প্রতিবেদন নিয়ে মিথ্যাচার করল নেপালের পত্রিকা

বিমান দুর্ঘটনার প্রতিবেদন নিয়ে মিথ্যাচার করল নেপালের পত্রিকা

67
বিমান দুর্ঘটনার প্রতিবেদন নিয়ে মিথ্যাচার করল নেপালের পত্রিকা
ছবি : সংগৃহীত
পড়া যাবে: < 1 minute
advertisement

ইউএস-বাংলার বিমান দুর্ঘটনা নিয়ে নেপালের গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনকে অনৈতিক ও প্রত্যারণামূলক আখ্যা দিয়ে প্রত্যাখ্যান করেছে দেশটির তদন্তকারীরা। সোমবার নেপালের অ্যাকসিডেন্ট ইনভেস্টিগেশন কমিশনের পক্ষ থেকে দেওয়া  এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে কমিটি এখনও কাজ করছে।

advertisement

এই অবস্থায় এরকম একটি স্পর্ষকাতর ঘটনা নিয়ে যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে সত্যতা যাচাই না করেই প্রতিবেদন প্রকাশ করা লজ্জাজনক ঘটনা।’

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ‘কমিশন বিশ্বাস করে, দুর্ঘটনার তদন্ত গণমাধ্যমের প্রোপাগান্ডার বিষয় নয়। কমিশন সবাইকে জানাতে চায়, তদন্ত প্রতিবেদন এখনও সম্পূর্ণ হয়নি এবং প্রকাশিত হয়নি। এ ধরনের অনৈতিক ও প্রতারণামূলক প্রতিবেদন জনমনে ভুল বার্তা পৌঁছাতে পারে।’

গতকাল সোমবার কাঠমান্ডু পোস্টের খবরে বলা হয়, এই দুর্ঘটনা নিয়ে নেপাল সরকার যে তদন্ত চালিয়েছে তার প্রতিবেদন তাদের হাতে এসেছে।

কথিত তদন্ত প্রতিবেদনকে উদ্ধৃত করে খবরে বলা হয়েছিল, অবতরণের সময় উড়োজাহাজটির পাইলট কনট্রোল টাওয়ারের কাছে অসত্য তথ্য দিয়েছিলেন এবং পুরো এক ঘণ্টার যাত্রাতেই ককপিটে বসে তিনি ক্রমাগত ধূমপান করেছিলেন। দুর্ঘটনার কারণ হিসেবে বলা হয়, পাইলট আবিদ সুলতান প্রচণ্ড রকম ব্যক্তিগত মানসিক চাপে ছিলেন। এ কারণেই তিনি বার বার ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যার ফলাফল হিসেবে বিমানটি অবতরণের মুহূর্তে বিধ্বস্ত হয়।

গত ১২ মার্চ ৭১ জন আরোহী নিয়ে ঢাকা থেকে কাঠমান্ডুগামী বাংলাদেশের বেসরকারি বিমান সংস্থা ইউএস-বাংলার ফ্লাইট বিএস২১১ ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় বিধ্বস্ত হয়। এতে নিহত ৫১ জনের মধ্যে ২২ জন নেপালি ও একজন চীনের নাগরিক। অন্যরা সবাই বাংলাদেশি।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সর্বশেষ আপডেট

advertisement