প্রচ্ছদ অপরাধ গণধর্ষণে তরুণীর গোপনাঙ্গের ভেতরের অংশ ফেটে প্রচুর রক্তক্ষরণ

গণধর্ষণে তরুণীর গোপনাঙ্গের ভেতরের অংশ ফেটে প্রচুর রক্তক্ষরণ

192
গণধর্ষণে তরুণীর গোপনাঙ্গের ভেতরের অংশ ফেটে প্রচুর রক্তক্ষরণ
ছবি : প্রতীকী
পড়া যাবে: < 1 minute

চাকরির খোঁজে ঢাকায় এসে সৎ বোনের সহযোগিতায় গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক তরুণী। তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সোমবার (২৭ আগস্ট) জরুরি বিভাগের সামনে মেয়েটিকে (২৫) চাদর মোড়ানো বিধ্বস্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। এ সময় তার দু’পা বেয়ে রক্ত ধরছিল। হাতে-পায়ে রক্তের ছোপ ছোপ দাগও দেখা গিয়েছে।

ঢাকা মেডিকেল পুলিশ ক্যাম্পের (এএসআই) বাবুল মিয়া জানান, তাৎক্ষণিকভাবে মেয়েটির চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয় এবং মেয়েটির সাথে কথা বলে জানা যায়, চাঁদপুর ফরিদগঞ্জ এলাকার একটি গ্রামের বাসিন্দা মেয়েটি। লঞ্চ যোগে সদরঘাট আসে। তবে কবে ঢাকায় আসে তা জানাতে পারেনি। ওখান থেকে বোনের বাসা গুলিস্তানে যায়। তারপরে চারজন ব্যক্তি তাকে গণধর্ষণ করে বলে সে জানায়। তবে মেয়েটিকে দেখে মনে হয় মানসিক কোনও সমস্যা আছে।

আরও পড়ুন:  পাবনায় সপ্তম শ্রেণির স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণ

ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার (ওসিসি) এর সমন্বয়কারী ডাক্তার বিলকিস বেগম জানান, ওই যুবতীর গোপনাঙ্গ থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ হচ্ছে। প্রাথমিকভাবে দেখা গেছে তার যৌনাঙ্গের ভেতরের অংশ ফেটে গিয়েছে। পরে তাকে অস্ত্রোপচারের জন্য দ্রুত ২১২ গাইনি ওয়ার্ডে রেফার করা হয়। প্রাথমিকভাবে তার গণধর্ষণের শিকার হওয়ার প্রমাণ মেলেছে।

তিনি জানান, মেয়েটির সাথে কথা বলে জানতে পেরেছি, গুলিস্তান এলাকায় সে তার সৎ বোনের বাসায় আসে। গত রাতে সৎ বোনের বাসায় সে গণধর্ষণের শিকার হয়। পরে ধর্ষকদের একজন তাকে উলঙ্গ অবস্থায় হাসপাতালে ফেলে যায়। মেয়েটি চাকরির জন্য সৎ বোনের বাসায় আসে এবং সৎ বোন খারাপ ছিল তা তার জানা ছিল না। ওই বোনের সহযোগিতায় ধর্ষিত হয়েছে বলে সে জানিয়েছে।

আরও পড়ুন:  'মুসলিম মেয়েদের প্রকাশ্যে গণধর্ষণ করুক হিন্দু পুরুষরা'

তিনি আরও জানান, ধর্ষিতা এক ছেলে সন্তানের জননী। তার স্বামীর সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদ হয়ে গেছে অনেক আগেই। তবে মেয়েটির সাথে কথা বলে মনে হয়নি সে মানসিক রোগী।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সর্বশেষ আপডেট: