প্রচ্ছদ স্বাস্থ্য

দাঁত ব্যথা কমানোর কিছু ঘরোয়া টোটকা

88
পড়া যাবে: < 1 minute

দাঁত ব্যথা খুব সাধারণ একটি স’মস্যা। এতে দাঁত ও চোয়াল উভয় অংশেই ব্যথা করে। দাঁতের ক্ষয়, সংক্রমণ, মাড়ির রোগ, জয়েন্টে সমস্যাসহ নানা কারণে দাঁত ব্যথা হয়। দাঁত ব্যথা হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। পাশা*পাশি ব্যথা কমাতে কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি অনুসরণ করতে পারেন। গোলমরিচের মধ্যে লবণ মিশিয়ে ব্যবহার করলে ব্যথা কমতে অনেকটা সাহায্য হয়। এ দুটির মধ্যেই আছে ব্যাকটেরিয়ারোধী, প্রদাহরোধী ও অ্যানালজেসিক উপাদান। সম’পরিমাণ গোলমরিচ ও লবণ নিন। এর মধ্যে কয়েক ফোঁটা পানি দিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। আক্রান্ত দাঁতে সরাসরি পেস্ট লাগান এবং কয়েক মিনিট রাখুন। কয়েক দিন নি’য়মিত এটি করুন।

দাঁতের ব্যথা কমাতে রসুন একটি ভালো উপাদান। রসুনের মধ্যে আছে অ্যান্টিবায়োটিক আর আছে এমন উপাদান, যেটি ব্যথা ক’মাতে কার্যকর। রসুনের গুঁড়া নিন অথবা কয়েকটি রসুনের কোয়া থেঁতলে নিন। এর মধ্যে সামান্য পরিমাণ লবণ মেশান। আক্রান্ত দাঁতে সরাসরি মিশ্রণটি লাগান। এতে ব্যথা কমবে। পাশাপাশি কয়েকটি রসুনের কোয়া চিবাতে পারেন। কয়েক দিন এই পদ্ধতি অনু’সরণ করুন। এক গ্লাস গরম পানিতে আধা চা চামচ লবণ মেশান। এটি দিয়ে কুলি করুন। ফোলা ও প্রদাহ কমাতে কাজ করবে। ব্যাকটেরিয়ার সঙ্গে ল’ড়াই করে ব্যথা কমাতে কাজে দেবে।

আরও পড়ুন:  ফলের জুসে ফল নেই, যা আছে তা দেখে হতভম্ব মেজিস্ট্রেট !

এক টুকরো আদা কেটে নিন এবং যে দাঁতে ব্যথা করছে সে দাঁত দিয়ে চিবাতে থাকুন। যদি চিবাতে বেশি ব্যথা লাগে তাহলে অন্য পা’শের দাঁত দিয়ে চিবিয়ে যে রস এবং আদার পেস্ট তৈরি হবে সেটা ওই আক্রান্ত দাঁতের কাছে নিয়ে যান। জিহ্বা দিয়ে একটু চেপে রাখুন দাঁতের কাছে। কিছুক্ষণের মাঝেই ব্যথা চলে যাবে। শসাকে ফালি করে কেটে দাঁতে এবং মাড়িতে ধরে রাখুন। যদি ঠা’ণ্ডায় সেনসিটিভিটি না থাকে তাহলে ঠাণ্ডা শসা মাড়িতে লাগান। ঠাণ্ডা শসার রস দাঁত ও মাড়ির ব্যথা দ্রুত উপশম করে। লেবুর রসও দাঁতের ব্যথা নিরাময়ে সাহায্য করে। লেবুর এক অংশ ফালি করে কেটে নিন এবং দাঁতে, মাড়িতে ঘষে ঘষে লে’বুর রস লাগান।

আরও পড়ুন:  ফলের জুসে ফল নেই, যা আছে তা দেখে হতভম্ব মেজিস্ট্রেট !

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

  • 24
    Shares