প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জেলা

নোয়াখালীতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে মাদ্রাসার ছাত্রীকে ধর্ষণ

141
পড়া যাবে: < 1 minute

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ফাজিল প্রথম বর্ষের এক মাদ্রাসা ছাত্রী’কে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার (২৪ জানুয়ারি) রাত ৯ টার দিকে ভুক্তভোগী পরিবারের মৌখিক অভিযোগের প্রেক্ষিতে এ ঘ’টনায় অভিযুক্ত যুবক মনিরুল ইসলাম তারেক (১৮) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সে উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের ওয়াতী ভূঞা বাড়ির মো. খান সাহেবের ছেলে। পরে ধর্ষণের শিকার মাদ্রাসা ছাত্রীর মা বাদী হয়ে রাত সাড়ে দশ’টার দিকে ধর্ষক ও তার

সহযোগী চরকাঁকড়া ইউনিয়নের আহছান উল্যার ছেলে মো.নাহিদকে আসামী করে কোম্পানীগঞ্জ থানায় লিখিত অ’ভিযোগ দায়ের করেন। লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত (২২ জানুয়ারি) গ্রেফতারকৃত যুবক ওই মাদ্রাসা ছাত্রীকে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে অপহরণ করে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ফেনীর একটি আবাসিক হোটেলে নিয়ে তাকে একা’ধিকবার ধর্ষণ করে। পরে ওই ছাত্রীর পরিবার ঘ’টনাটি জানতে পেরে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।

আরও পড়ুন:  নোয়াখালীতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণ

এ বিষয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো.আরিফুর রহমান বলেন, অভিযোগ আলোকে অভিযুক্ত যুবকদের বিরুদ্ধে মা’মলা দায়ের করা হবে। গ্রেফতারকৃত যুবককে আগামীকাল শনিবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হবে। অপর দিকে, এ ঘটনায় প’লাতক আরও এক আসামীকে গ্রে’ফতারে পুলিশ জোর চেষ্টা চালাচ্ছে।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

  • 123
    Shares