প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জেলা

সন্তানের চিৎকারে বেঁচে গেলেন বাবা

327
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

সিঁধ কেটে ঘরে ঢুকে ঘুমন্ত অবস্থায় ব্যবসায়ীকে গলাকেটে হত্যা’চেষ্টা করেছে দুর্বৃত্তরা। এ সময় দুই সন্তান ও স্ত্রী জেগে ওঠায় বেঁচে গেলেন কাপড় ব্যবসায়ী বিশ্বরূপ চন্দ্র দাস (৪০)। ভোলার মনপুরায় এ ঘটনা ঘটে। রাতেই গুরুত্বর আহত অবস্থায় ব্যবসায়ীকে মনপুরা সদর হাস’পাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানায় পুলিশ। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ওসি সাখাওয়াত হোসেন। ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ওসি সাখাওয়াত হোসেন জানান, পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থল থেকে একটি ছুরি ও টর্চ লাইট উদ্ধার করেছে। শ’নিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়নের রহমানপুর গ্রামের ৯নং ওয়ার্ডে কাপড় ব্যবসায়ীর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। আহত ব্যবসায়ী বিশ্বরূপ চন্দ্র দাস উপজেলার দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়নের ঢালী মার্কেটের নিলয় বস্ত্রালয়ের মালিক। এ বিষয়ে মনপুরা সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত আবাসিক ডা. শফিকুর রহমান জা’নান, গলা ও চোয়ালে ১০ সেন্টিমিটার পর্যন্ত কাটা ছিল।

আরও পড়ুন:  ফনির প্রভাবে মধ্যরাত থেকে প্রবল ঝড় হবে

রোগীর প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রয়েছে। এদিকে শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে বাসার পিছনের ঘরে তারা ঘুমিয়ে ছিলেন জানান আহত ব্যবসায়ীর স্ত্রী গন্ধেশ্বরী। তিনি বলেন, রাতে এক’পর্যায়ে গলা চেপে ধরে ছুরি দিয়ে আঘাত করলে চিৎকারের শব্দে পাশে থেকে আমি ও ভিতরের কামরায় ঘুমিয়ে থাকা দুই সন্তান জেগে উঠে। এই সময় এক ব্যক্তি উলঙ্গ অবস্থায় দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে দেখা যায় ঘরের সিঁধ কাটা। ঘরে কাপড়ের দোকানের মালামাল ছিল কি’ন্তু কোনো মাল দুর্বৃত্তরা নেয়নি। তবে একটি বিকাশের সিম থাকা মোবাইল পাওয়া যাচ্ছে না বলে অভিযোগ করেন গন্ধেশ্বরী। কিন্তু কারো সঙ্গে ব্য’বসায়িক ও পারিবারিক শত্রুতা নেই বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ী বিশ্বরূপ। ঘটনার পরে ব্যবসায়ীসহ সাধারণ মানুষের মধ্যে আ’তঙ্ক বিরাজ করছে।

আরও পড়ুন:  ভোলায় নৌকা ডুবে মামা ও ভাগ্নের মৃত্যু

এর আগে উপজেলার ফকিরহাট বাজারে ব্যবসায়ী ও ডাচ-বাংলা ব্যাংক এজেন্ট আলাউদ্দিনকে নিজ বাড়ির সামনে গলাকেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। ওই ঘটনায় পুলিশ ও পিআইবি ৮ জনকে আটক করলেও এখন পর্যন্ত হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন করতে পারেনি। দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউ’পি চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক অলিউল্লা কাজল জানান, ঘটনা শুনার সঙ্গে সঙ্গে আমরা পুলিশকে অবহিত করি। ওই ব্যবসায়ীর সঙ্গে কারো দ্বন্দ্ব নেই। তবে মনপুরার শান্তি-শৃঙ্খলা নষ্ট করতে কোনো অ’পশক্তি পাঁয়তারা করছে। এ ব্যাপারে মনপুরা থানার ওসি সাখাওয়াত হোসেন জানান, ঘটনা শুনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে একটি ছুরি ও টর্চ লাইট উদ্ধার করা হয়। এ ছাড়াও একটি বিকাশের সিমসহ মোবাইল নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। পুলিশি তদন্ত শেষে আ’ইনি ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলেও জানান ওসি।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

  • 99
    Shares