প্রচ্ছদ বিশ্ব সংবাদ

হাতির ভয়ে ১৩ বছর ধরে গাছের উপরে বসবাস

191
পড়া যাবে: < 1 minute

ভুটানের জঙ্গল থেকে নেমে আসা হাতির পাল গ্রামে আসলে হাতির ভয়ে পালিয়ে গাছে উঠতে হত। চোখের সামনে হাতে গড়া ঘর বাড়ী ভেঙে তছ’নছ করে দিত হাতির পাল। এভাবে অনেক বছর কাটানোর পরে আসামের বাক্সা জেলার মুসলপুরের বাসিন্দা বিজয় ব্রহ্মের বি’রক্তি এসে যায়। তাই গাছের উ’পরেই বাস করা শুরু করেন তিনি। গত ১৩ বছর ধরে গাছের উপরে বাস করা বিজয়কে গ্রামের মানুষ এখন বনমানুষ বলেই চেনে।

বিজয় জানান, মানুষের সং’স্পর্শে আসতে পছন্দ করেন না তিনি। ছোটবেলায় অনাথ হওয়ার পরে তিনি অন্যের বাড়িতে কাজ করতেন। বনাঞ্চলের কাছে বাড়ি ছিল তার। একলা মানুষ, তাই ছোট্ট ঘরই ছিল শেষ সম্বল। কিন্তু সেটাও প্রায়ই ভেঙে দিত হাতিরা। বিজয় বলেন, বার’বার এই ঘটনার পরে ভা’বলাম রাত নামলে যখন হাতির ভয়ে গাছেই উঠতে হয়, তখন মাটিতে ঘর বানায় লাভ কী

আরও পড়ুন:  পরকীয়ায় সন্দেহে স্বামীর গায়ে গরম তেল ঢাললেন স্ত্রী

তাই কাঠ, তক্তা জো’গাড় করে বনে গাছের উপরেই ছোট্ট ঘর তৈরি করে ফেলি। এরপর অন্যের বাড়ির কাজও ছেড়ে দেন। জঙ্গলে যা পাওয়া যায় তাই খেয়ে থাকতেন তিনি। বছয় ছয়েক ব’নাঞ্চলের ভিতরে থাকার পরে পাগলাদিয়া নদীর পারে খৈরানি পথারের কাছে নতুন একটি গাছে বাসা বেঁধেছেন তিনি। সে’খানেও প্রায় সাত বছর হতে চলল।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 115
    Shares