ওয়াজ মাহফিলে জামায়াতের প্রচারণা চালাচ্ছেন আজাহারী

176
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

বর্তমান সময়ের আলোচিত ইসলামি বক্তা ড. মিজানুর রহমান আজহারীকে জামায়াতের প্রোডাক্ট উল্লেখ করে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আবদুল্লাহ বলেছেন, বি’ভিন্ন ওয়াজ মাহফিলে অত্যন্ত সুক্ষ্মভাবে জামায়াতের প্রচারণা চালাচ্ছেন আজাহারীসহ কিছু বক্তা। মঙ্গলবার (২৮ জানুয়ারি) দুপুরে জামালপুর শহরের গৌরীপুর কাচারি এলাকায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মডেল মসজিদের নির্মাণকাজ পরিদর্শনকালে এসব কথা বলেন তিনি। ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, জামায়াতের অর্থে শিক্ষিত হয়ে কতিপয় আলেম কৌশলে ইসলামের ভুল ব্যা’খ্যা দিয়ে দেশের জনগণকে বিভ্রান্ত করছে। তিনি বলেন, বর্তমানে প্রকাশ্যে জামায়াতের রাজনীতির সুযোগ না থাকায় কৌশলে বিভিন্ন ওয়াজ মাহফিলে জামায়াতের পক্ষে কথা’বার্তা বলছেন এসব বক্তা। তারা কোরআন হাদিসের যেসব ব্যাখ্যা দেন তার অধিকাংশই মিথ্যা এবং আজেবাজে কথা। প্রতিমন্ত্রী বলেন, ফেসবুক, ইউটিউবসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ধর্মীয় বিষয়ে বিতর্কিত বক্তব্যগুলো সরকারের নজরে এসেছে।

আরও পড়ুন:  পায়ে হেঁটে ৩০০ কিলোমিটার পাড়ি দিলেন ৩ তরুণ

এসব বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে ইতো’মধ্যে কাজ শুরু করেছে সরকার। এসব বক্তাকে সামাজিকভাবে প্রতিহত করতে হবে। ইসলামের ভুল ব্যাখ্যাকারীদের বাংলাদেশ থেকে চিরদিনের জন্য বিতাড়িত করা হবে’ বলেও হুঁশিয়ারি দেন শেখ মো. আবদুল্লাহ। এ সময় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম এমপি, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হক ও জেলা পরিষদের চেয়ার’ম্যান ফারুক আহাম্মেদ চৌধুরী তার সাথে ছিলেন। পরে বিকালে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মেলান্দহ উপজেলা মডেল মসজিদের নির্মাণ কাজ পরিদর্শন ও জামিয়া হুসাইনিয়া আরাবিয়া মা’দ্রাসার ৬০ বছর পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত ইসলামী মহা সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন। উল্লেখ্য, সম্প্রতি মিজানুর রহমান আজহারী ও তারেক মনোয়ার যুদ্ধাপরাধী দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর পক্ষ নিয়ে ওয়াজ করেছেন বলে অভিযোগ উঠে।

এ নিয়ে গত ২৩ জানুয়ারি জাতীয় সংসদে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়। ওইদিন বিষয়টি উ’ত্থাপন করে সংসদ সদস্য ও সাংবাদিক নেতা মো.শ’ফিকুর রহমান বলেন, দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী রাজাকার ছিলেন। প্রকাশ্য আদালতে তার বিচার হয়েছে, বিচারে তার শাস্তি হয়েছে। এখন কিছু লোক একজনের নাম মিজান আরেক জনের নাম মনোয়ার। তারা বলছেন ঘরে ঘরে দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী বেরিয়ে আসবে। শুধু তাই না, একজন বলছে, এখন আর তীর ধনুকের যুগ না, এখন একে ফোরটি সে’ভেনের যুগ। এটি প্রচ্ছন্ন নয়, প্রকাশ্যে হুমকি। এতে মনে হয়, জামায়াত-শিবির-রাজাকার তৎপর হয়ে গেছে  যোগ করেন তিনি।

আরও পড়ুন:  সাত জেলার জেল সুপারকে বদলি

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 118
    Shares