প্রচ্ছদ বিশ্ব সংবাদ

মেয়েকে গণধর্ষণ করতে সাহায্য করলেন মা

154
মেয়েকে গণধর্ষণ করতে সাহায্য করলেন মা
প্রতীকী ছবি
পড়া যাবে: < 1 minute

নিজের ছেলেকে দিয়ে ৯ বছরের সৎ মেয়েকে ধর্ষণ করিয়েছেন সৎ মা। এ পৈশাচিক ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের বারমুল্লা জেলায়।

কাশ্মীরের বারমুল্লা জেলা পুলিশের সিনিয়র পুলিশ সুপার ইমতিয়াজ হোসেন জানান, শিশুটির সৎ মা ফাহমিদা তার ছেলে (১৪) ও ছেলের বন্ধুদের ডেকে মেয়েটিকে জঙ্গলে নিয়ে যায়। সেখানে তার উপস্থিতিতে ছেলেসহ ৪ জন মিলে মেয়েটিকে গণধর্ষণ করে। এরপর তাকে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়। হত্যার পর এসিড ঢেলে পুড়িয়ে দেয়া হয় শরীর। লাশটি গভীর জঙ্গলে নিয়ে ঝোঁপঝাড় দিয়ে ঢেকে দেয়া হয়। কয়েকদিন পর স্থানীয়রা লাশ উদ্ধার করে।

আরও পড়ুন:  দুই ভাগ হলো কাশ্মীর,৩৭০ ধা*রা বাতিল ১৪*৪ ধা*রা জারি,নেতারা গৃ*হব*ন্দী

জানা যায়, ওই সৎ মায়ের নাম ফাহমিদা। তার ক্ষোভ, দ্বিতীয় স্ত্রীকে বেশি ভালবাসেন তার স্বামী। একই সঙ্গে সবচেয়ে বেশি স্নেহ করেন দ্বিতীয় স্ত্রীর নয় বছর বয়সী মেয়েকে। এ থেকে সৎ মেয়েকে হত্যা করার সিদ্ধান্ত নেন ফাহমিদা। লোমহর্ষক নির্যাতন, গণধর্ষণ করিয়ে নয় বছরের মেয়েটিকে হত্যার পর পুড়িয়ে দেয়া হয় লাশ।

এক সপ্তাহ আগের পৈশাচিক এ ঘটনায় ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে আলোড়ন সৃষ্টি হয়। জড়িত থাকার প্রমাণ মেলায় ফাহমিদা, তার ছেলেসহ মোট ৯ জনকে আটক করে পুলিশ।

ঘটনাস্থলের তথ্য প্রমাণের সঙ্গে আসামির স্বীকারোক্তির পুরোপুরি মিল পেয়েছেন তারা।

আরও পড়ুন:  'মুসলিম মেয়েদের প্রকাশ্যে গণধর্ষণ করুক হিন্দু পুরুষরা'

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি