প্রচ্ছদ ধর্ম ও জীবন

আমি অক্সফোর্ডে তিনবার শ্রেষ্ট টিচার হয়েছি

216
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

ইসলামি বক্তা মাওলানা তারেক মনোয়ারের বেশ’ কিছু বক্তব্য সম্প্রতি সামাজিক মাধ্যমে আলোচনার জন্ম দিয়েছে। এসব বক্তব্যকে কেন্দ্র করে কেউ কেউ ‘তারেক মনোয়ারের সমালোচনা করে ভিডিও প্রকাশ করেছেন ফেসবুকে। আবার অনেকেই তারে’ক মনোয়ারের পক্ষে দাঁড়িয়ে ভিডিও প্রকাশ করছেন। সম্প্রতি তারেক মনোয়ারের বেশকিছু ওয়া’জের বক্তব্য ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। বিভিন্ন সময়ে ওয়াজে তিনি অসংলগ্ন কিছু কথা বলেছেন ব”লে অনেকে অভিযোগ তুলেছেন।

সম্প্রতি তারেক মনোয়ারের দেয়া একটি বক্তব্য ‘ফেসবুকে ভাইরাল হয়। তাতে দেখা যায় একটি মাহফিলে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মাওলানা” তারেক বলছেন, পৃথিবীতে সবচেয়ে পয়সাওয়ালা বেলগ্রেট, আইফোনের মালিক। দেখা হয়েছে আমার^ সাথে… আমার কাছে মনে হয়েছে টিকটিকি। তিনি মূলত বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি বিল গেটসকে বুঝিয়েছেন। যদিও প্রকৃতপক্ষে বিল গেটস আইফোনের উৎপাদনকারী কোম্পানি ”অ্যাপলের মালিক নন।

অন্য আরেকটি ওয়াজে তারেক মনোয়ারকে বলতে শোনা যাচ্ছে, আমি অক্সফোর্ডে তিনবার শ্রেষ্ট টিচার হয়েছি, আজকেই বলে ফেললাম। এটা কেউ জানে না.. আমার পরিবারও জানে না। অক্সফোর্ডের সিলেবাসে ইংল্যান্ড” আমেরিকার স্কুলগুলো চলে। তিনি আরও জানান, ১৯৯০ সালে তিনি ‘বেস্ট টিচার’ হ’য়েছিলেন।

এছাড়াও ভাইরাল হওয়া’ অপর একটি ভিডিওতে তারেক মনোয়ার নিজেকে নব্বইয়ের দশকে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের ফুটবলার ‘দাবী করে বলেন ‘ভালো খেলতাম.. অনেক ভালো খেলতাম…তিন চারটা গেইম তো খুব ভালো খে’লতাম। ঢাকার চ্যাম্পিয়নশিপ পুরষ্কারও আছে আমার ব্যাটমিন্টনে। তারেক মনোয়ার আরও বলেন, ফুটবল….ইংল্যান্ডে গিয়ে ‘লীগে (ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগ) খেলেছি। ১৯৯০ সাল..অত্যন্ত কম বয়স। পয়সা দিয়ে নিয়ে যে’ত খেলার জন্য। ভালোই ইনকাম… শেষে দেখি যে পুরাটা হারাম।

আরেক ভিডিওতে তাকে’ বলতে দেখা গেছে, ১৯৯০ সালে তিনি ইংল্যান্ডের ব্রাইটন ইসলামিক সেন্টারের খতিব ছিলেন। সে সময়ে তিনি একজন ব্রিটিশ মডেলকে ইসলাম গ্রহণ করান। ১৯৯০ সালে একই সাথে মসজিদের ‘খতিব থাকা এবং ফুটবল লিগে খেলার দাবিকে অনেকে হাস্যকর ও অসত্য বলে মনে করছেন। এ ‘নিয়ে ফেসবুকে অনেকে তারেক মনোয়ারের সমালোচনায় সরব হলেও কেউ কেউ তার পক্ষেও ‘দাঁড়াচ্ছেন।

এদিকে, তারেক মনোয়ারের পক্ষেও দাঁড়িয়েছেন অনেকে। তাদের দাবি, জনপ্রিয়তায় ইর্ষান্বিত হয়ে অনেকেই তারেক মনোয়ারকে’ নিয়ে সমালোচনা করছেন। মূলত তাদের উদ্দেশ্যে তারেক মনোয়ারকে বিতর্কিত করা। অন্যদিকে, সম্প্রতি মিজানুর রহমান আজহারী ও তারেক মনোয়ার যুদ্ধাপরাধী দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর ‘পক্ষ নিয়ে ওয়াজ মাহফিল করায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছে জাতীয় সংসদে। গত ‘বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে’ শফিকুর রহমান বিষয়টি উত্থাপন করেন।

শফিকুর’ রহমান বলেন, দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী রাজাকার ছিলেন। প্রকাশ্য আদালতে তার বিচার হয়েছে, বিচারে তার’ শাস্তি হয়েছে। এখন কিছু লোক একজনের নাম মিজান আরেক জনের নাম’ মনোয়ার। তারা বলছেন’ ঘরে ঘরে দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী বেরিয়ে আসবে। শুধু তাই না, একজন বলছে, এখন আর তীর’ ধনুকের যুগ না, এখন একে ফোরটি সেভেনের যুগ। এটি প্রচ্ছন্ন নয়, প্রকাশ্যে হুমকি। এতে মনে হয়, জামায়াত-শিবির-রাজাকার তৎপর হয়ে গেছে। এসব’ বিষয়ে মাওলানা তারেক ‘মনোয়ারের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 25
    Shares