প্রচ্ছদ বিশ্ব সংবাদ

প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় অবহেলার কথা স্বীকার করে নিলো চীন

126
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

প্রাণ’ঘাতি করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় অবহেলা ও ঘাটতির কথা স্বী’কার করে নিলো চীন । সোমবার ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টির পলিটব্যুরো স্টান্ডিং কমিটির পক্ষ থেকে এমনটি জানানো হয়। করোনা ভাইরাস মোকা’বিলায় জরুরি ব্যবস্থাপনার সিস্টেম আরো উন্নয়ন করা দরকার ছিল বলে মনে করেন কমিটিটি। এর মধ্যে বন্যপ্রাণীর বাজারে বড় ধরনের অভিযান চালানোর আদেশ দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ২০ হাজার ছাড়িয়েছে। আর মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪২৫ জনে। এর মধ্যে শুধু একদিনেই তিন হাজার মানুষের আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এমন পরিস্থিতিতে সোমবার প্রেসিডেন্ট শি জিন’পিংয়ের সভা’পতিত্বে বৈঠকে বসে স্টান্ডিং কমিটি। রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থ সিনহুয়ায় প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায়  দেখা যাওয়া অব’হেলা ও ঘাটতি মেটাতে আমাদের অবশ্যই জাতীয়  জরুরি ব্যবস্থাপনা

সিস্টেমের উন্নতি ঘটাতে হবে এবং জরুরি ও বিপ’জ্জনক কাজ তদারকিতে আমাদের সামর্থ্য বাড়াতে হবে। এছাড়া ওই বৈঠকে অবৈধ বণ্যপ্রাণীর ব্যবসা কঠোরভাবে নিষিদ্ধ এবং বাজারে তদারকি বাড়ানোরও সি’দ্ধান্ত নেওয়া হয়। ধারণা করা হচ্ছে হুবেই প্রদেশের উহান শহরের একটি বণ্য’প্রাণীর বাজার থেকে এবার করোনা ভাইরাস ছড়িয়েছে। চীনের গবেষকদের ধারণা বাদুড় থেকে ছড়িয়েছে এই ভাইরাস। রিপোর্টে বলা হয়েছে, মহামারি প্রতিরোধে কর্ম’কর্তাদের পূর্ণ দায়িত্ব নিয়ে কাজ করতে হবে এবং যারা দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হবেন তাদের শাস্তির মুখে পড়তে হবে। এর মধ্যে সেরিব্রাল পালসিতে আক্রান্ত এক কিশোরের মৃত্যুর পর দুজন কর্ম’কর্তাকে তাদের পদ থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। ওই কিশোরের বাবাকে করোনা ভাইরাস সন্দেহভাজন হিসেবে কোয়ারেন্টাইনে নেয়ার পর ওই কিশোরের মৃত্যু হয়। বাবা ছাড়া তাকে দেখ’ভালের আর কেউ ছিলো না।

আরও পড়ুন:  সন্ধ্যার পর জবি ক্যাম্পাসে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

সোমবার একদিনেই ৬৪ জনের মৃত্যু এখন পর্যন্ত এক দিনে বেশি মৃত্যুর রেকর্ড। এর আগের দিন ৫৭ জন মারা গিয়েছিল। উহানে দ্রুত’তার সাথে দুটি নতুন হাসপাতাল করা হয়েছ, যদিও সেগুলো এখনো পুরো’পুরি কার্যক্রম শুরু করেনি। ওই প্রদেশের সব মানুষের জন্যই মাস্ক পরিধান বাধ্যতা’মূলক করা হয়েছে। কিন্তু সেখানে উপকরণ সংকট আছে এবং সেজন্য বিশ্ব সম্প্রদায়ের কাছে সহযোগিতা চেয়েছে চীনের পর’রাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। একজন মুখপাত্র বলেছেন, চীনের এ মূহূর্তে জরুরি’ভাবে মেডিকেল মাস্ক, প্রটেকটিভ স্যুট ও নিরাপত্তা চশমা দরকার। এদিকে সাংহাইয়ের মতো কিছু শহরে নতুন বছরের ছুটি বাড়ানো হয়েছে, বন্ধ আছে স্কুল’গুলোও। আবার হংকংয়ে পনের জন্য আক্রান্ত হওয়ার পর দেশ’টি চীনের সাথে ১৩টি সীমান্ত পথের দশটিই বন্ধ করে দিয়েছে।

আরও পড়ুন:  করোনা নিয়ে ‘ভয়াবহ আশঙ্কা’ প্রকাশ প্রধানমন্ত্রীর

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 45
    Shares