প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জেলা

ময়মনসিংহে টয়লেট থেকে এক ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার

50
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

ময়মনসিংহের ঈশ্বর’গঞ্জে নিখোঁজের ২১দিন পর ব্যবসায়ী হেলাল উদ্দিন (৩৫) নামে এক ব্যবসায়ীর লাশ টয়লেট থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত হেলাল উদ্দিন উপ’জেলার বড়হিত ইউনিয়নের রাধা’বল্লভপুর গ্রামের মো. হাসিম উদ্দিনের ছেলে। এ ঘটনায় ৬ জনকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঈশ্বর’গঞ্জ থানার ওসি মোখলেছুর রহমান। শুক্র’বার (৭ ফেব্রয়ারী) দিনগত রাত ২টার দিকে উপজেলার বড়হিত ইউনিয়নের রাধাবল্লভপুর গ্রামের একটি পুরাতন টয়লেট থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। শ’নিবার (৮ ফেব্রুয়ারী) সকালে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ময়মন’সিংহ মেডিকেল কলেজ হাস’পাতালে পাঠানো হয়। ওসি বলেন, গত ১৮ জানুয়ারি ব্যবসার কাজে উচা’খিলা বাজারে যান। প্রতিদিন রাতে বাড়িতে ফিরলেও ওই দিন হেলাল উদ্দিন বাড়ি ফেরেননি। সম্ভাব্য বিভিন্ন জায়গায় খোঁজা’খুঁজি করেও কোনো হদিস পাওয়া যায়নি।

নিখোঁজের বিষয়ে ২০ জানুয়ারি ঈশ্বর’গঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন নিখোঁজ ব্যবসায়ীর স্ত্রী মাজেদা খাতুন। কিন্তু ২১ জানুয়ারি রাতে মুঠোফোনে হেলালের বড় ভাই মো. দুলাল মিয়ার মুঠো’ফোনে কল আসে। ফোনের অপর প্রাপ্ত থেকে বলা হয়- তোর ভাই কি হারানো গেছে? তোর ভাইকে আমরা নিয়ে গেছি। ফেরত পেতে হলে ২ লাখ টাকা লাগবে। তখন দুলাল মিয়া এতো টাকা দিতে পারবে না অনু’নয় বিনয় করলে এক লাখ টাকায় রফা হয়। টাকা নিয়ে যেতে বলা হয় উচাখিলা-লক্ষীগঞ্জ সড়কে। ওই দিন কিছুদূর গিয়ে মুঠোফোনে ওই নম্বরে কল দিয়ে তা বন্ধ পান দুলাল। ওই অবস্থায় বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়। পুলিশ মুঠো’ফোনের নম্বরটি দিয়ে প্রযুক্তির স’হায়তায় উচাখিলা ইউনিয়নের মঘা গ্রামের নুর ইসলাম ও তার ছেলে আজিজুলকে আটক করে।

আরও পড়ুন:  ময়মনসিংহে ট্রাক চাপায় অটোরিকশার দুই যাত্রী নিহত, আহত ৫

মুঠো’ফোনের ওই নম্বরটি নুর ইসলামের নামে থাকায় এবং ফোনটি আজিজুল ব্যবহার করায় তাদের আটক করা হয়। কিন্তু ঘটনার অন্তত ১৫ দিন আগে ফোনটি হারিয়ে যাওয়ায় এবং তাদের কাছ থেকে কোনো ধরণের ক্লু না পাওয়ায় পুলিশ স্থা’নীয় ইউপি সদস্যের জিম্মায় দুজন’কে ছেড়ে দেন। পরে তথ্য-প্রযুক্তির সহায়তায় একই গ্রামের আক্কাস ও আকাশ, কাঞ্চন, ফারুক, রিপন, খাইরুলকে গ্রে’ফতার করা হয়। তাদের দেয়া তথ্য মতে সিলেট থেকে উত্তম নামে এক যুবককে গ্রেফতার করে শুক্র’বার রাত দশটার দিকে ঈশ্বরগঞ্জ থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। পরে মধ্যরাতে ঈশ্বর’গঞ্জ থানার ওসির নেতৃত্বে উত্তমকে নিয়ে অভিযানে যায় পুলিশের একটি দল। এ সময় উত্তমের দেয়া স্বীকারোক্তি মতে রাধাবল্লভপুর গ্রামের কামরুল ইসলামের বাড়ির পিছনের পরিত্যক্ত টয়’লেট থেকে হেলাল উদ্দিনের লাশ উ’দ্ধার করে পুলিশ।

আরও পড়ুন:  ময়মনসিংহে পানিতে পড়ে দেড় বছরের শিশুর মৃত্যু

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 23
    Shares