প্রচ্ছদ খেলা ক্রিকেট

জুনিয়র টাইগাররা হচ্ছে সিনিয়রদের রোল মডেল

34
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

রোববার (১০ ফেব্রুয়ারি) চারবারের চ্যাম্পিয়ন ভারতকে হারিয়ে প্রথম’বার অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের শিরোপা জিতেছে বাংলাদেশ। ফাইনালে বৃষ্টি আইনে ৩ উইকেটের রোমাঞ্চ’কর জয় পায় আকবর আলীর দল। এক’দিকে যখন জুনিয়র টাইগাররা বিশ্ব জয়ের আনন্দে ভাসছে তখন অন্য’দিকে বাংলার সিনিয়র টাই’গাররা রাওয়ালপিন্ডিতে ইনিংস পরাজয়ের লজ্জায় ডুবেছে। প্রথম ধাপে পাকিস্তান সফরে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টিতে ২-০ ব্যবধানে সিরিজ হারের পর দুই টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচেও শোচনীয় পরা’জয় বরণ করেছে বাংলাদেশ। ছোটদের থেকে অনেক কিছু শে’খার আছে মন্তব্য করে টাই’গারদের টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল হক বলেছেন, তারা মাঠে যেভাবে লড়াই করেছে, যে ধৈর্য্য দেখিয়েছে সেটা আমাদের শেখা উচিত। তাদের থেকে আ’রেকটি বিষয়ও নিতে পারি। তারা যেভাবে নিজেদের ওপর বিশ্বাস রেখেছে এবং একে অ’পরের সাথে যেভাবে যোগা’যোগ করেছে সেটাও আমরা গ্রহণ করতে পারি।

তাহলে জুনিয়র টাই’গাররা হতে যাচ্ছে সিনিয়রদের রোল মডেল। পাকিস্তানি সাং’বাদিকদের এমন প্রশ্ন এড়াতে পারেননি টেস্ট অধিনায়ক, আপনি জুনিয়র কিংবা সিনিয়র যে কারো কাছ থেকেই কিন্তু শিখতে পারেন। আপনার শিখতে পারাটাই হচ্ছে মূল বিষয়। তারা আমাদের বুঝিয়ে দিয়েছে কী’ভাবে বড় সাফল্য পেতে হয়। তারা অ’সাধারণ পারফরম্যান্স করেছে। তাদের দলের পক্ষ থেকে অভিনন্দন জানাই। মুমিনুলের দৃষ্টিতে আকবরদের সাফল্যের রেসিপি হলো তাদের এক্যবদ্ধ মান’সিকতা, আমার কাছে মনে হয় যারা যুবদলের খেলোয়াড়, তারা খুব বেশি ক্ষুধার্ত ছিল। সবথেকে ভালো যে দিক, তারা দুই বছর এক’সঙ্গে খেলেছে। এটা খুবই ইতি’বাচক দিক। একজন আরেক’জনকে জানা, একজন আরেক’জনের সঙ্গে যোগা’যোগ রাখা, বিশ্বাস করা এসবও কাজে দিয়েছে।

আরও পড়ুন:  বিশ্বকাপ জিতে বীরের বেশে দেশে ফিরল বাংলার যুবারা

মাঠে দেখে’ছেন হয়তো, একজন আরেকজনের জন্য চিৎকার করে যাচ্ছিল, যেভাবে ব্যাকআপ করছিল, সেখানে বিশ্বাস চলে আসে। যুব’দল থেকে ভবিষ্যতের জাতীয় দলের ক্রিকেটারা উঠে আসবেন বলে মনে করেন মুমিনুল, এটা বাংলাদেশ ক্রিকেটের সব’চেয়ে বড় অর্জন। এর থেকে বেশি কিছু আর হতে পারে না। আমার বিশ্বাস, এখান থেকে ছয়-সাত জন খেলোয়াড় পাওয়া যাবে পরে যারা বাংলাদেশ জাতীয় দলকে সাপোর্ট দিতে পারে। নিজেদে হতাশা’জনক পারফরম্যান্সের ব্যাখ্যাও দিয়েছেন টেস্টের ভার’প্রাপ্ত অধিনায়ক মুমিনুল, খুবই হতাশাজনক পারফর’ম্যান্স। কোনো অজুহাত দেবো না। আসলে আমাদের অনেক উন্নতি করতে হবে। আমাদের আমাদের ভুল’গুলো শুধরাতে হবে। টেস্ট চ্যাম্পিয়ন’শিপের এখনও ৮-৯টি ম্যাচ আছে। আশা করছি, আমরা দ্রুত ঘুরে দাঁড়াতে পারবো।

আরও পড়ুন:  ভারতকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 25
    Shares