প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয়

বাজারে শিগগিরই পেঁয়াজের কেজি ৫০ টাকায় নেমে আসবে

57
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

দেশের বাজারে শিগ’গিরই পেঁয়াজের কেজি ৫০ টাকায় নেমে আসবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। তিনি বলেন, ইতোমধ্যে ভারতের মহা’রাষ্ট্রের নাসিকে পেঁয়াজের দাম ৩৬-৩৭ রুপিতে নেমে এসেছে। এখন তারা তাদের প্রয়োজনেই পেঁয়াজ রফতানি করবে। আবার আগামী মাসের প্রথম দিকে দেশি পেঁয়াজও পুরোপুরি (বাজারে) ওঠা শুরু করবে। তাই শিগগিরই পেঁ’য়াজের দাম ৫০-৬০ টাকায় নেমে আসবে। সোম’বার (১০ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে সচিবালয়ে কানাডার সাচকাচোয়ান প্রদেশের কৃষি’মন্ত্রী ডেভিড মারিটের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি’দলের সঙ্গে মত’বিনিময়ের পর বাণিজ্যমন্ত্রী সাং’বাদিকদের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলেন মন্ত্রী। নতুন করোনা’ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দীর্ঘমেয়াদী হলে এর প্রভাব দেশের বাজারে পড়তে পারে এ আ’শঙ্কা প্রকাশ করে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, প্রয়োজনে আদা-রসুন ও অন্যান্য মসলা আমদানির জন্য বিকল্প বাজারের দিকে সর’কার নজর রাখা হচ্ছে।

চীন থেকে পেঁয়াজ আম’দানি করতে না পারলে সমস্যা হবে কিনা জানতে চাইলে বাণিজ্য’মন্ত্রী বলেন, এখন পেঁয়াজ আসছে মিয়ানমার, তুরস্ক, মিসর, পাকিস্তান থেকে। চীনের জন্য পেঁয়াজের বাজারে প্রভাব পড়বে না। তবে রসুন-আদাসহ অন্যান্য ম’সলার সমস্যা হবে কিনা সেটি দেখছি। সমস্যা হলে আমাদের বি’কল্প মার্কেটে যেতে হবে। এই মুহূর্তে তেমন পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়’নি। তবে আমরা লক্ষ্য রাখছি যে কি ধরনের স’মস্যা আসতে পারে। রসুনের দাম বেড়ে ২০০ টাকা হয়ে গেছে- এ বিষয়ে বাণিজ্য’মন্ত্রী বলেন, আমরা এ বিষয়ে খুব সিরিয়াসলি নজর রাখছি। পেঁয়াজেও সুযোগ নিয়েছিল, এখনো ব্যবসায়ীরা সুযোগ নিচ্ছে। সমস্যা একটু হলেই তারা সু’যোগ নেন। বেশ কিছু’দিন থেকে বাজারে দেশি পেঁয়াজ এসেছে, তারপরও দাম কমছে না- এমন প্রশ্নে জ’বাবে মন্ত্রী বলেন,

আরও পড়ুন:  বাজারে কমতির দিকে পেঁয়াজের দাম

দেশি পেঁয়াজ ফুল স্পিডে এখনো আসে’নি। আমি গত ২৪ জানুয়ারি পেঁয়াজ উৎ’পাদনের অঞ্চলে গিয়েছিলাম। সেখানে গিয়ে বুঝলাম, আগামী মাসের প্রথম থেকে দ্বিতীয় সপ্তাহে ফুল স্পিডে পেঁয়াজ ওঠা শুরু করবে। সে সময়টায় পেঁয়াজের দাম ক’মবে আসবে। তিনি বলেন, ভারতের নাসিকের যে মার্কেট থেকে আমরা পেঁয়াজ আম’দানি করি সেখানেও পেঁয়াজের দাম কমেছে। কিন্তু ওরা এখনো সরকারি’ভাবে পেঁয়াজ রফতানির সিদ্ধান্ত’টা নেয়নি। গতকাল নাসিকে পাইকারি বাজারে পেঁ’য়াজের দাম ছিল ৩৬-৩৭ রুপি। কলকাতার বাজারে দাম ছিল ৪৫ রুপি, আমাদের টাকায় সেটা ৫৫-৬০ টাকা।ভারতে কৃষক’দেরও চাপ রয়েছে, তাই সেখানে দাম ২৫-৩০ টাকায় নেমে এলেই ভারত হয়তো রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যা’হার করে নেবে। ভারতের মোট পেঁয়াজের ৩৮ শতাংশ হয় নাসিকে। নাসিকের পেঁয়াজই আমরা আম’দানি করি।

আরও পড়ুন:  সীমান্তে হত্যাকাণ্ডে ভারতের সাথে বাণিজ্য ক্ষেত্রে প্রভাব ফেলবে না

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 131
    Shares