প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয়

২০২১ সালের ১৬ ডিসেম্বর মেট্রোরেলের উদ্বোধনের পরিকল্পনা

56
পড়া যাবে: < 1 minute

স্বাধীনতার ৫০ বছর উ’পলক্ষে ২০২১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশের প্রথম উ’ড়াল সেতু মেট্রোরেল-এর আনু’ষ্ঠানিক উদ্বোধন করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতু’মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বুধ’বার (১২ জানুয়ারি) জাতীয় সং’সদে প্রশ্নোত্তর পর্বে তিনি এ তথ্য জানান। সর’কার দলীয় সদস্য অসীম কুমার উকিলের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী আরো জানান, প্রায় ২২ হাজার কোটি টাকা প্রা’ক্কলিত ব্যয়ে উত্তরা ৩য় পর্ব হতে মতিঝিল পর্যন্ত মেট্রো’রেলের নির্মাণকাজ পুরো’দমে এগিয়ে চলছে। গত ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত এ প্রকল্পে সার্বিক গড় অগ্র’গতি ৪০ দশমিক ৩৬ শতাংশ।

২০ দশমিক ১০ কিলোমিটার দীর্ঘ ও ১৬ স্টেশন বিশিষ্ট আধু’নিক এই মেট্রোরেল ঘন্টায় ৬০ হাজার যাত্রী প’রিবহনে সক্ষম বলে তিনি উল্লেখ করেন। মন্ত্রী ওবায়’দুল কাদের জানান, আধু’নিক গণপরিবহন ব্যবস্থা প্রবর্তনের মাধ্যমে ঢাকা মহানগরী ও তৎসংলগ্ন পার্শ্ব’বর্তী এলাকার যানজট নিরসনে ও পরিবেশ উ’ন্নয়নে শতভাগ সর’কারি মালিকানাধীন ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড (ডিএমটিসিএল) এর আওতায় ৬টি ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিট (এমআরটি) বা মেট্রো’রেলের সমন্বয়ে মোট ১২৮ দশমিক ৭৪১ কিলো’মিটার দীর্ঘ উড়াল সেতু নির্মাণের কর্ম’পরিকল্পনা-২০৩০ গ্রহণ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:  মুজিববর্ষে কোন অন্ধকারের অপশক্তি দেখতে চাই না

এ কর্ম’পরিকল্পনা অনুসরণে প্রথম পর্যায়ে নির্মাণের জন্য নির্ধারিত উত্তরা তৃ’তীয় পর্ব হতে আগারগাঁও অং’শের পূর্ত কাজের অগ্রগতি ৬৭ দশ’মিক ৯৭ শতাংশ। দ্বিতীয় পর্যায়ে নির্মাণের জন্য নির্ধারিত আগারগাঁও থেকে মতি’ঝিল অংশের পূর্ত কাজের অগ্রগতি ৩৫ দশমিক ৯৯ শতাংশ। ইলেকট্রি’ক্যাল ও মেকানিক্যাল সিস্টেম এবং রোলিং স্টক (রেলকোচ) ও ডিপোতে ইকুই’পমেন্ট সং’গ্রহ কাজের সমন্বিত অগ্র’গতি ২৫ দশমিক ২৫ শ’তাংশ। ইতোমধ্যে ৯ কিলোমিটার ভায়াডাক্ট দৃশ্য’মান হয়েছে।

সর’কারী দলের সদস্য বেনজির আহমেদের প্র’শ্নের জবাবে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী জানান, আরিচা-পাটুরিয়া অংশে দ্বিতীয় পদ্মা সেতু নির্মাণের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। এ সেতু নির্মাণে পিডিপিপি নীতিগত’ভাবে অনুমোদন হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভা’পতিত্বে ২০১৮ সালে ৩০ মে অনু’ষ্ঠিত প্রাইভেট- পাবলিক পার্টনারশিপ (পিপিপি) কর্তৃপক্ষের বোর্ড সভায় দ্বি’তীয় পদ্মা সেতু নির্মাণের বিষয়ে আলোচনা হয়। সেখানে নির্মাণাধীন পদ্মা সেতুর কাজ শেষ হলে দ্বিতীয় পদ্মা সেতুর কাজ শুরু করা যেতে পারে বলে সি’দ্ধান্ত নেওয়া হয়।

আরও পড়ুন:  *ছাত্র'নেতাদের এমন কাজে আমি লজ্জা পাই*

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

  • 59
    Shares