প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জেলা

টাঙ্গাইলে তৃতীয় শ্রেণির পদবী পরিবর্তনের দাবিতে সরকারি কর্মচারীদের কর্মবিরতি

29
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

সারা দেশে সর’কারি তৃতীয় শ্রেণির কর্ম’চারীরা পদবী পরি’বর্তনের দাবিতে পর্ন’দিবস কর্ম’বিরতি পালন শুরু করেছে। এ আন্দোলন চলবে ২৭ ফে’ব্রুয়ারি পর্যন্ত। গত সোম’বার থেকে বাংলা’দেশ কালেক্ট’রেট সহ’কারী সমিতির (বাকাসস) ডাকে টাঙ্গা’ইল জেলার সর’কারি কর্ম’চারীরাও এ কর্ম’বিরতিতে অংশ নেন। এতে করে ভো’গান্তিতে পড়েছে দুর’দরান্ত থেকে সেবা নিতে আসা সেবা গ্রহীতা’রা। কষ্ট করে আসলেও কর্ম’বিরতির কারণে তারা কা’ঙ্খিত সেবা পাচ্ছে না। ফলে ভোগা’ন্তীর স্বী’কার হচ্ছে মানুষ। আন্দোল’নকারীরা জানান, ২০০১ সাল থেকে কালেক্ট’রেটে কর্ম’রত তৃতীয় শ্রেণির কর্ম’চারীদের পদবী পরি’বর্তন এবং বেতন গ্রেড উন্নীত’করণের দাবি জানিয়ে আসছেন তারা। ২০১১ সালে প্রধান’মন্ত্রী এ পদবী পরি’বর্তন সং’ক্রান্ত সার সং’ক্ষেপ অনু’মোদন দিলেও তা বাস্ত’বায়ন হয়’নি।

এর প্রেক্ষি’তে সারা দেশের ন্যায় টাঙ্গা’ইলেও ২৫ তারিখ থেকে শুরু হওয়া ২৭ ফে’ব্রুয়ারি পর্যন্ত আন্দো’লনের এ কর্ম’সূচি দিয়ে’ছেন তারা। এর আগেও ২০ ও ২১ জানু’য়ারি স’কাল ৯ থেকে ১১টা পর্যন্ত দুই ঘণ্টা, ২২ ও ২৩ জানু’য়ারি স’কাল ৯ থেকে ১২টা পর্যন্ত তিন ঘণ্টা, ২৭ ও ২৮ জানু’য়ারি স’কাল ৯ থেকে ১টা পর্যন্ত চার ঘণ্টা কর্ম’বিরতি পালন করেছেন তারা। এর’পরও দাবি আদায় না হলে আন্দো’লন অব্যা’হত রেখে টানা পূর্ণ’দিবস কর্ম’বিরতি পালন করবেন বলে হুশি’য়ারি দেন তারা। এতে করে ভোগা’ন্তির স্বী’কার হচ্ছে স্বাধা’রণ মানুষ। শহ’রের আকুর টাকুর পাড়া এলা’কার আব্দুর রাজ্জাক বলেন, শহরের লৌহজং নদী উদ্ধা’রের কাজ চলছে। আমিও নদীর পাড়ের মানুষ। যে জায়’গায় ভাং’চুর করা হচ্ছে সেই জায়’গায় আমার জমিও পড়েছে। সেই বিষয়ে নিয়ে জেলা প্রশা’সক স্যা’রের সাথে কথা বলতে এসে’ছিলাম।

আরও পড়ুন:  দেশের ২০৮ উপজেলা-ইউপিতে ভোট চলছে

কিন্তু কর্ম’চারীদের আন্দো’লনের কারণে জেলা প্রশাসক স্যা’রের সাথে কথা বলতে পারছি না। আমার অনেক ক্ষতি হয়ে যাবে। হালিমা বেগম বলেন, আমি খুব গরীব মানুষ। ডিসি স্যা’রের কাছে এসে’ছিলাম কথা বলতে। কিন্তু কয়েক ঘন্টা দাড়িয়ে থেকেও তার সাথে কোন কথা বলতে পার’লাম না। ঢাকা থেকে আসা এক সেবা গ্রহীতা রুমা আক্তার বলেন, জেলা প্রশাসক ও অতি’রিক্ত জেলা প্রশাসক স্যা’রের সাথে কথা বলা আমার খুব প্রয়োজন। কিন্তু এখানে এসে দেখি আন্দো’লন চল’মান। আমি কি চলে যাবো না কি করবো আমি স’ঠিক বুঝতে পারছি না। তাদের আন্দো’লনের কারণে আমা’দের কেন ভোগা’ন্তি পোহা’তে হবে। আফজাল হোসেন বলেন, আমি মাদক সেবী’দের বিষয়ে অভি’যোগ নিয়ে এসে’ছিলাম। কিন্তু জেলা প্রশাসন কার্যা’লয়ে আন্দো’লন চল’মান। কার কাছে অভিযোগ দিবো সঠিক বুঝতে পার’ছি না।

টাঙ্গা’ইলের ঘাটা’ইল উপ’জেলা থেকে আসা বিথী আক্তার বলেন, আমি নার্সিং শেষ করে বে’কার অবস্থায় বাসায় বসে আছি। ইতি’পূর্বে আমি জেলা প্রশা’সক কার্যা’লয়ে দর’খাস্ত করেছি। আগামী ২৮ ফে’ব্রুয়ারি আমার পরীক্ষা। তাই ডিসি স্যা’রের কাছে আমি সাক্ষাত করতে এসেছি। কর্ম’বিরতি চলায় স্যা’রের কাছে কোন সাক্ষাত করতে পারি নাই। আমার মতো অনেকেই ভোগা’ন্তির স্বী’কার হচ্ছে। অনেক টাকা গাড়ি ভাড়া দিয়ে এসেও কোন সুফল পেলাম না। আন্দোলন’কারী বাংলাদেশ কালেক্ট’রেট সহ’কারী সমি’তির (বাকাসস) টাঙ্গা’ইল জেলা শাখার সভাপতি মজিবুর রহমান, সাধা’রণ সম্পা’দদক মোতা’লেব সিদ্দিকী ও সাং’গঠনিক সম্পা’দক কবির হোসেন বলেন, গত দেড় যুগে একাধিক’বার জন’প্রশাসন মন্ত্র’ণালয় সচিব কমি’টির মাধ্যমে একাধি’কবার আশ্বাস দিলেও এখনও তা বাস্ত’বায়ন হয়’নি।

আরও পড়ুন:  প্রত্যে'কটি জেলা হাস'পাতালে আই'সি'ইউ ইউনিট স্থাপনের নির্দেশ দিয়ে'ছেন প্রধানমন্ত্রীর

সারা বাংলা’দেশে ৫০টি ডিপার্টমেন্টের পদ পদবী পরি’বর্তন করা হয়েছে। সে’খানে কোন প্’রকার কমিটি লাগেনি। আমা’দের বেলা কেন এতো তাল’বাহানা। আমা’দের আন্দো’লনের জন্য সাধা’রণ জন’গনের ভোগা’ন্তি হচ্ছে। আমরা মানুষকে ভোগা’ন্তিতে ফেলার জন্য আসি’নি। আমরা মানুষকে সেবা দিতে এসেছি। বক্তা’রা আরও বলেন, আমা’দের প’দবী পরি’বর্তনের জন্য প্রধান’মন্ত্রীর হস্ত’ক্ষেপ কামনা করেন আন্দোলন’কারীরা। আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে আমা’দের দাবি মেনে নিতে হবে। অন্য’থায় লাগা’তার কর্ম’সূচির হুশি’য়ারি দেন বক্তারা। এ বিষয়ে জেলা প্রশা’সক মো. শহীদুল ইসলাম বলেন, আন্দোলনের কারণে আমরা অ’স্বস্তিকর অব’স্থায় রয়েছি।

অনেক দূর থেকে অনেক সেবা প্রার্থী’রা এখানে এসে ফে’রত যা’চ্ছেন। কারন আমা’দের কার্যা’লয়ের যারা ফাইল ও’য়ার্ক করেন তারা স্টাইক করেছেন। এটা দীর্ঘ’দিনের তাদের আন্দো’লন। এ দাবিটি তাদের যৌ’ক্তিক দাবি বলে আমি মনে করি। দাবি যৌ’ক্তিক বলেন, আমরা স’কল জেলা প্রশাসক উর্দ্ধ’তম কর্তৃ’পক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করেছি। দাবির বিষয়ে মন্ত্রী পরিষদ বি’ভাগে পত্রও লিখেছি। মন্ত্রী পরি’ষদ বি’ভাগ থেকে জন প্রশা’সন মন্ত্র’ণালয়ে বাস্ত’বায়নের জন্য নির্দে’শনা দিয়েছেন। জন’প্রশাসন মন্ত্র’ণালয় ইতি মধ্যে ব্যবস্থা নিয়েছে। আশা করি শি’ঘ্রই এ দাবিও বাস্ত’বায়িত হবে।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 18
    Shares