দিল্লির মুসলমানদের ওপর নির্যাতনের প্রতিবাদে টঙ্গীতে বিক্ষোভ মিছিল

144
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

দিল্লির মুসলমান’দের ওপর হামলা ও নির্যা’তনের প্রতি’বাদে বি’শাল বি’ক্ষোভ মিছিল ও প্রতি’বাদ সমা’বেশ অনু’ষ্ঠিত হয়েছে। শুক্র’বার (২৮ ফে’ব্রুয়ারি) জুমার নামাজ শেষে নগ’রীর টঙ্গী বাজার বড় মস’জিদ চত্বর থেকে স্থা’নীয় ওলা’মায়ে কেরা’মের নে’তৃত্বে একটি বি’ক্ষোভ মি’ছিল বের হয়। মিছিল’টি টঙ্গী বাজার হয়ে স্টে’শন রোড এলা’কায় সামনে গিয়ে অব’স্থান নিয়ে স’ড়ক অব’রোধ করে। এ স’ময় সড়কে যান’বাহন চলা’চল বন্ধ হয়ে যায়। প্রতি’বাদ স’ভায় বক্তা’রা মোদী সর’কারের প্রতি এ ব্যা’পারে প্রতি’বাদ জানা’নোর আ’হ্বান জানিয়ে বলেন, দিল্লির মুসলিম’দের হত্যা করা হচ্ছে, মস’জিদ ভাঙচুর ও পবিত্র কোর’আন শরিফে অগ্নি’সংযোগ করা হয়েছে। এসব নির্মম হত্যা’কাণ্ড কোন’ভাবেই বর’দাশত করা যায় না।

আমরা বাংলা’দেশ সর’কারে কাছে রাষ্ট্রীয়’ভাবে এ নির্যা’তন ও হত্যা’কাণ্ডের প্রতি’বাদ এবং নিন্দা জানা’নোর দাবি জানাচ্ছি। বক্তা’রা আরো বলেন, অবি’লম্বে দিল্লির মুস’লিম নির্যা’তন বন্ধ করতে হবে। একই সঙ্গে মুস’লিম নির্যা’তন হত্যার বি’রুদ্ধে সারা বি’শ্বের মুসল’মানকে ঐক্যবদ্ধ’ভাবে সোচ্চার হতে হবে। এ’দিকে ভারতের দিল্লিতে মুসল’মানদের ওপর হাম’লার প্রতি’বাদে রাজ’ধানী ঢাকায় বায়’তুল মোকা’ররম জাতীয় মস’জিদ এলা’কায় বি’ক্ষোভ করে’ছেন মুসল্লিরা। শুক্রবা’র (২৮ ফেব্রুয়ারি) জুমার নামাজের পর সমমনা ইসলামী দলগুলোর ব্যানারে মস’জিদের গেটে এ বি’ক্ষোভ হয়। এ’সময় মুসল্লিরা বিভিন্ন স্লোগান দেন। এর আগে শুক্র’বার জুমার নামাজ পর বায়’তুল মোকা’ররমের উত্তর গেটে বি’ক্ষোভ কর্মসূচি শুরু হয়।

আরও পড়ুন:  হাসপাতালের বিল পরিশোধ করতে না পেরে নিজের নব'জাতক সন্তানকে বিক্রি করে দিতে বাধ্য হন মা

বি’ক্ষোভ কর্ম’সূচিতে বক্তারা বলেন, মুসল’মানদের উপর নির্যাত’নকারী মোদিকে বাংলা’দেশের মাটিতে পা রাখতে দেয়া হবে না। যেকোন মূল্যে মোদি’কে প্রতি’হত করা হবে। মোদি যদি বাংলা’দেশে আসে তাহলে তাকে স্বাগত জানাতে আমরা কাফ’নের কাপড় পড়ে বায়’তুল মোকা’ররম থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত দাঁ’ড়াব। মোদিকে স্বাগত জানাতে সর’কারের প্রয়ো’জন নেই। আম’রাই যথেষ্ট। উল্লেখ্য, বিতর্কিত নাগ’রিকত্ব সং’শোধনী (সিএএ) আইনকে কেন্দ্র করে দাঙ্গা-সহিং’সতায় ভার’তের রাজ’ধানী দিল্লি’তে এখন পর্যন্ত ৩৯ জন প্রাণ হারিয়েছে। সহিং’সতার ঘটনা তদন্তে দু’টি বিশেষ তদন্ত’কারী দল গঠন করা হয়েছে।

গত রোব’বার নাগ’রিকত্ব সং’শোধনী আইনের (সিএএ) সমর্থক-বিরোধী’দের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হলেও ধীরে ধীরে এটি সাম্প্রদায়িক সহিং’সতায় রূপ নেয়। এতে প্রতি’দিনই বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। বৃ’হস্পতিবারও অন্তত সাত’জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। তিন দিনের দাঙ্গায় আ’হত হয়েছেন অন্তত ২০০। তাদের মধ্যে গুলিতে আহ’তের সংখ্যা ৪৬। বুধ’বার রাতেও উত্তর–পূর্ব দিল্লির ভজন’পুরা–জোহরা’পুরী এ’লাকা থেকে গোল’মালের খবর পাওয়া যায়। তবে মারা’ত্মক কিছু ঘটে’নি। তিন দিন নিষ্ক্রিয় থাকা পুলিশ বৃ’হস্পতিবার কিছুটা নড়েচ’ড়ে বসেছে। এলা’কায় এলা’কায় শান্তি কমি’টিও সক্রিয়।

আরও পড়ুন:  কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার নিজের তৈরি মই বেয়ে পলায়ন

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 1.1K
    Shares