প্রচ্ছদ অপরাধ

আওয়ামী লীগ নেতার ছেলে লিটনের ফাঁদে পড়ে অন্তসত্ত্বা স্কুলছাত্রী

27
আওয়ামী লীগ নেতার ছেলে লিটনের ফাঁদে পড়ে অন্তসত্ত্বা স্কুলছাত্রী

ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করে তা ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে স্কুল ছাত্রীকে কয়েকবার ধর্ষণ করেছে আওয়ামী লীগ নেতার ছেলে লিটন আহাম্মেদ।

শুক্রবার (৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ধর্ষিতা বাদী হয়ে উপজেলার কালিয়া ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি বড়চওনা গ্রামের মতিউর রহমানের ছেলে লিটন আহাম্মেদকে (৪৫) একমাত্র আসামি করে ধর্ষণের মামলা করা হয়েছে। মামলার এজাহার থেকে জানা গেছে, এ বছরের ফেব্রুয়ারিতে লিটনের বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হয় মেয়েটি। ওই দৃশ্য ভিডিও করা হয়। এরপর হুমকি দেওয়া হয়, ঘটনাটি প্রকাশ পেলে ভিডিওটি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়া হবে এবং মেয়ের মা-বাবাকে মেরে ফেলা হবে।

এই ভয় দেখিয়ে আরও ছয়-সাতবার মেয়েটিকে ধর্ষণ করা হয়। মেয়েটি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে ঘটনাটি প্রকাশ পায়। ২৩ আগস্ট স্থানীয় একটি ক্লিনিকে করা আলট্রাসনোগ্রাফি প্রতিবেদনে বলা হয়, মেয়েটি ১৭ সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা।

মেয়েটির বাবা বলেন, ‘বিষয়টি এলাকায় প্রকাশ পেলে লিটন আমাদের পরিবারকে মামলা না করার জন্য চাপ দেন। মেয়ের নামে জমি লিখে দিতে চান।’

লিটন আহাম্মেদের বাবা বলেন ‘এ ঘটনা শুনে আমি খুবই লজ্জা পেয়েছি। ১৫ দিন ধরে আমি ছেলের সঙ্গে কথা বলা বন্ধ করে দিয়েছি। ও খুবই খারাপ ছেলে। বাপ হয়েও আমি ছেলের বিচার চাই।’

এ বিষয়ে সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাকছুদুল আলম জানান, আসামি লিটন আহম্মেদকে গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে।

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন: