প্রচ্ছদ খেলা ক্রিকেট

প্রথমবারের মতো টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে ৮ নম্বরে বাংলাদেশ

26
প্রথমবারের মতো টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে ৮ নম্বরে বাংলাদেশ
টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে ৮ নম্বরে বাংলাদেশ

ওয়ানডে ক্রিকেটে বিস্ময়কর সাফল্যে ২০১৫ সাল থেকে আইসিসি’র র‌্যাঙ্কিয়ে ৭ নম্বর স্থানটি পাকা হয়ে গেছে বাংলাদেশের। হোমে সর্বশেষ ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজে পাকিস্তানকে টপকে ৬ নম্বরে উঠার হাতছানি ছিল। কিন্তু শ্রীলংকার বিপক্ষে শেষ ২ টি ম্যাচ হেরে ৭ নম্বরেই থেকে গেছে বাংলাদেশ। তবে ওয়ানডেতে র‌্যাঙ্কিং বাড়াতে না পারলেও টেস্টে ৪ বছর পর র‌্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হয়েছে বাংলাদেশের।

২০১৪ সালে টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে ৯ এ উঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের পিছু নিতে নিতে শেষ পর্যন্ত জিতেছে বাংলাদেশ। ১৯৭৫ এবং ১৯৭৯ বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজকে টপকে টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে ৮ নম্বরে ওঠার সুসংবাদ মঙ্গলবার দিয়েছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল ( আইসিসি)।

২০১৫ সালের মে থেকে ২০১৮ সালের এপ্রিল, এই সময়ের মধ্যে টেস্ট ম্যাচের ফলাফলের উপর নির্ভর করে টেস্ট র‌্যাঙ্কিং নির্ধারন করেছে আইসিসি। যে মানদন্ডে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে টপকে গেছে বাংলাদেশ। এই সময়ের মধ্যে বাংলাদেশ ১৮টি টেস্টে বড় তিনটি দলের বিপক্ষে পেয়েছে জয়। ৫টি ড্র’র পাশে হেরেছে বাংলাদেশ ১০টিতে।

হোমে হারিয়েছে ইংল্যান্ড,অস্ট্রেলিয়াকে। শততম টেস্টে শ্রীলংকার মাটিতে শ্রীলংকাকে হারিয়েছে। পাকিস্তানের বিপক্ষে খুলনা টেস্ট,ফতুল্লায় ভারতের বিপক্ষে টেস্ট, চট্টগ্রামে শ্রীংলার সঙ্গে ড্র’ ছাড়াও দক্ষিন আফ্রিকার বিপক্ষে বৃস্টি বিঘিœত ২ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ ০-০তে করেছে ড্র’।

বিপরীতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল এই সময়ে ২৮ টেস্টে ৫ জয় এবং ৫ ড্র’র বিপরীতে হেরেছে ১৮টিতে। ৭৫ রেটিং পয়েন্ট পেয়ে আইসিসি’র টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে এই প্রথম ৮এ বাংলাদেশ। সেখানে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৬৭ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে নেমে গেছে ৮ থেকে ৯ এ। এখন বাংলাদেশের সামনে ৭ এ ওঠার হাতছানি দিচ্ছে। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের ( ৮৬ রেটিং) সঙ্গে ব্যবধান বাংলাদেশের ১১ পয়েন্ট

আরও পড়ুন:  এশিয়া কাপ শেষ তামিমের

আইসিসি’র টেস্টের রাজদন্ড এবারো ভারতের হাতে । ২০১৫ সালের মে থেকে ২০১৮ সালের এপ্রিলের মধ্যে ২৮ টেস্টে ৩৪৯৯ পয়েন্ট পেয়ে ১২৫ রেটিংয়ে তারা যথারীতি ১ নম্বরে। টেস্টের সিংহাসনে থাকায় ১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার পুরস্কার পেয়েছে ভারত। র‌্যাঙ্কিংয়ে ২ নম্বর স্থান যথারীতি অক্ষুন্ন রেখেছে দক্ষিন আফ্রিকা। তারা পেয়েছে ৫ লাখ ডলার প্রাইজমানি। নিউজিল্যান্ড ১ ধাপ নিচে নেমেও ( ৩ নম্বর থেকে ৪ নম্বর) পাচ্ছে ২ লাখ ডলার প্রাইজমানি। র‌্যাঙ্কিংয়ে এক ধাপ উন্নতিত হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার। ৪ নম্বর থেকে উঠে এসেছে তারা ৩ নম্বরে।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্ট সিরিজেই ওয়েস্ট ইন্ডিজকে টপকে যাওয়ার হাতছানি ছিল বাংলাদেশের। চট্টগ্রাম টেস্ট ড্র’ করে সেই সুবাতাসই দিয়েছে বাংলাদেশ দল। তবে ঢাকা টেস্ট হেরে যাওয়ায় বেড়েছে প্রতীক্ষা। অবশেষে বাংলাদেশ পেলো সেই সুসংবাদ। তবে টেস্টে বাংলাদেশের র‌্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হলেও ওয়ানডেতে ৭-এ স্থির আছে বাংলাদেশ। টি-২০তে সেখানে আফগানিস্তানের নীচে বাংলাদেশের অবস্থান যথারীতি ১০ নম্বরে।

শেয়ার করুন :

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন

Loading Facebook Comments ...