প্রচ্ছদ বিশ্ব সংবাদ

মেয়ের বান্ধবীকে হাত ধরে পাশের ঘরে নিয়ে বাবার ধর্ষণ

762
মেয়ের বান্ধবীকে হাত ধরে পাশের ঘরে নিয়ে ধর্ষণ
ছবি ঃ প্রতীকী

ধর্ষক বাবার বিরুদ্ধে গিয়ে নির্যাতিতা বান্ধবীর পাশে দাঁড়িয়ে শাস্তি চাইলেন এক কিশোরী। নিজের বাবার যৌন নির্যাতনের শিকার সেই বান্ধবীর পাশে দাঁড়িয়েছেন ওই কিশোরীর মাও। বর্তমানে নির্যাতিতা ওই কিশোরীর জবানবন্দির ভিত্তিতেই আপাতত শ্রীঘরে রয়েছে পেশায় ব্যবসায়ী গুরুগ্রামের ওই ব্যক্তি। শুক্রবার (৬ জুলাই) তাকে গ্রেফতার করেছে গুরুগ্রাম পুলিশ।

ভারতের গুরুগ্রামের বেলাইরে শুক্রবার ভোরে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

জানা গেছে, ওই কিশোরী বেলাইরের একটি ফ্ল্যাটে বাবা-মার সঙ্গে থাকেন। ভুক্তভোগী নির্যাতিতা তার ছোটবেলার বন্ধু। তৃতীয় শ্রেণি থেকেই ওই কিশোরীর বাড়িতে যাতায়াত করত সে।

এমনকি, এ ঘটনায় অভিযুক্ত ওই কিশোরীর বাবাকেও নির্যাতিতা কিশোরী আঙ্কেল সম্বোধন করতেন। বর্তমানে নির্যাতিতার বয়স ১৮ বছর। সে এখন আইনের ছাত্রী।

পুলিশের কাছে নির্যাতিতা বলেন, গত বৃহস্পতিবার তিনি বেলাইরে ছোটবেলার বন্ধুর বাড়িতে যান। তখন বন্ধুর মা বাড়িতে ছিলেন না। আঙ্কেলই তাদের সঙ্গে নিয়ে স্থানীয় একটি সাইবার হাবে নিয়ে যান। সেখানে জোর করে তাদের দু’জনকেই মদ্যপান করান তিনি। তারপর গভীর রাতে বাড়ি ফিরে বন্ধুর ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন নির্যাতিতা। ভোর রাতে আঙ্কেল তাদের ঘরে ঢোকেন। তাকে হাত ধরে পাশের ঘরে নিয়ে যান এবং ধর্ষণ করেন বলে অভিযোগ নির্যাতিতার।

আরও পড়ুন:  মন্দিরে ঈদের নামাজ পড়লেন কেরালার মুসলিমরা

নির্যাতিতা জানান, মদ্যপানের ঘোর তখনো কাটেনি তার। তাই সে ভাবে প্রতিরোধও করতে পারেননি তিনি।

এরপর তার বন্ধুকে ঘুম থেকে তুলে পুরো ঘটনাটি জানায় নির্যাতিতা তরুণী। নিজের বাবার এ রকম ন্যাক্কারজনক কাণ্ড শুনে প্রথমে ভেঙে পড়েছিলেন ওই কিশোরী। কিছুক্ষণ পরে ওই কিশোরীর নির্যাতিতা বান্ধবীকে নিয়ে ফ্ল্যাট থেকে বেরিয়ে যান। নির্যাতিতা কিশোরীর বাড়িতে যান এবং তার মাকে সব খুলে বলেন।

তারপর সেখান থেকে থানায় গিয়ে অভিযোগ করেন নির্যাতিতা তরুণী। এসময় বাবার বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে বয়ান দেন ওই কিশোরীও। এ ঘটনার দিনই অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

ভুক্তভোগী নির্যাতিতা তরুণীর বাবা পেশায় একজন ব্যবসায়ী। ব্যবসা সূত্রে তিনি রাজস্থানে রয়েছেন। মেয়ের সঙ্গে ঘটা এই খবর শোনার পর তিনিও বাড়ির উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন বলে জানা গেছে। এই মামলায় অভিযুক্ত ব্যক্তিকে উপযুক্ত শাস্তির জন্য তিনি বড় আইনজীবীকে নিযুক্ত করতে চান।

শেয়ার করুন :
  • 8
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    8
    Shares

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন

Loading Facebook Comments ...