প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয়

জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে দেশের প্রধান ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত

23
জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে দেশের প্রধান ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত

ত্যাগ আর আনন্দে সারা দেশে উদযাপিত হচ্ছে পবিত্র ঈদুল আজহা। জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে দেশের প্রধান ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। নামাজ শেষে মোনাজাতে দেশের শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করা হয়। এসময় ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের এবং পঁচাত্তরে নিহত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্য, জাতীয় চার নেতার আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়।

সাধারণ মানুষের পাশাপাশি এ জামাতে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন।

এছাড়া মন্ত্রিসভার সদস্য, কূটনীতিক, সরকারি উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাসহ দেশের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা অংশ নেন। নামাজ শেষে মুসল্লিরা একে অপরের সঙ্গে কোলাকুলি করেন।

প্রধান ঈদ জামাতের ইমামতি করছেন বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের পেশ ইমাম এহসানুল হক।

জাতীয় ঈদগাহে ৪ স্তরের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়। পাশাপাশি নিরবচ্ছিন্ন বিদুৎ ও জেনারেটরের ব্যবস্থা রাখা হয়।

জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে ঈদের জামাতে নারীদের অংশ নেওয়ার জন্য আলাদা প্রবেশপথ ও বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। মুসল্লিদের গাড়ি রাখা ও ঈদগাহকে নামাজ আদায়ের উপযোগী করার জন্য ময়দানের মাটি সমান করা, ঘাস কাটা, অজুর পানি নিশ্চিত করা ইত্যাদি বিষয়ে কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলেও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন:  বজ্রপাতে প্রাণহানিতে রাষ্ট্রপতির দুঃখ প্রকাশ

ঈদুল আজহা উপলক্ষে আজ কেন্দ্রীয় কারাগারসহ দেশের সব কারাগার, সরকারি হাসপাতাল, ভবঘুরে কল্যাণকেন্দ্র, বৃদ্ধাশ্রম, শিশুসদন, ছোটমনি নিবাস, সামাজিক প্রতিবন্ধী কেন্দ্র সরকারি আশ্রয়কেন্দ্র, সেফ হোমস, দুস্থ কল্যাণকেন্দ্র এবং শিশু ও মাতৃসদনগুলোতে উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হচ্ছে।

প্রায় চার হাজার বছর আগে আল্লাহ পাকের সন্তুষ্টি লাভের জন্য হজরত ইব্রাহিম (আ.) নিজ পুত্র হজরত ইসমাইলকে (আ.) কোরবানি করার উদ্যোগ নিয়েছিলেন। কিন্তু পরম করুণাময়ের অপার কুদরতে হজরত ইসমাইল (আ.)-এর পরিবর্তে একটি দুম্বা কোরবানি হয়ে যায়। হজরত ইব্রাহিম (আ.)-এর ত্যাগের মহিমার কথা স্মরণ করে বিশ্বব্যাপী মুসলিম সম্প্রদায় জিলহজ মাসের ১০ তারিখে আল্লাহ পাকের অনুগ্রহ লাভের আশায় পশু কোরবানি করে থাকে।

রাজধানীর দুই সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে ৪০৯টি স্থানে ঈদ জামাতের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের এলাকায় জাতীয় ঈদগাহের প্রধান জামাতসহ ঈদুল আজহার ২৩০টি এবং উত্তর সিটি করপোরেশনের ১৭৯টি জামাত হচ্ছে।

শেয়ার করুন :
  • 1
    Share

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন

Loading Facebook Comments ...