প্রচ্ছদ বাংলাদেশ উপজেলা

শশুর বাড়িতে প্রবাসীর ঝুলন্ত লাশ

0

কুমিল্লা বরুড়া উপজেলার বাতাবাড়িয়া গ্রামের হানিফ মিয়ার প্রবাসী পুত্র ইকবাল হোসেন (৩২)। ২০০৮ সালে বিয়ে করেন একই জেলার বুড়িচং উপজেলার এবদারপুর গ্রামের মৃত মতিন মিয়ার মেয়ে রোকসানা আক্তারকে পারিবারিক ভাবেই।

সংসার জীবনটা খুব একটা সুখের হয়নি রোকসানা ও ইকবালের। পারিবারিক নানা ঝামেলায় ২০১৩ সালে ভেঙ্গেই যায় সংসারটা তাদের।

তালাকের মাধ্যমে আলাদা হয়ে গলেও স্বামী স্ত্রীর যোগাযোগ ছিলো ফোনে, দাবী নিহতের পরিবারের। যদিও রোকসানা এখন নতুন করে আবার সংবার করছেন ২য় স্বামীর ঘরে।

প্রবাসী ইকবাল বিদেশ থেকে এসে আর ফিরে যায়নি নিজের বাড়িতেও। পরিবারের অজান্তে দেশে এসে ঢাকায় চাকরি করতেন।

শনিবার সকালে দরজা খুলে ৪ বছর আগে তালাক দেয়া স্ত্রী রোকসানার বাবার বাড়ির উঠানের বড়ই গাছের সাথে দড়ি দিয়ে ফাঁসিতে ঝোলা ইকবালের লাশ দেখতে পায় রোকসানার পরিবারের লোকজন।

আরও পড়ুন:  ঘরে সিঁদ কেটেছে কে মালিক না চোর ?

রোকসানার পরিবারের সাথে কথা বলে জানা যায় সকালে ঘর থেকে বেরিয়ে উঠানে ঝুলন্ত লাশ দেখে পুলিশে খবর দেয় তারা। পরে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

দেবপুড় ফাঁড়ী ইনচার্জ ইন্সপেক্টর আবু ইউসুফ উজ্জামান বলেন আত্মহত্যা নাকি হত্যাকান্ড তা এখনো সঠিক ভাবে বলা সম্ভব নয়। পোস্টমর্টেমের রিপোর্ট হাতে পেলে সঠিক কারন জানা যাবে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্যে মর্গে প্ররণ করা হচ্ছে।

শেয়ার করুন :

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন

Loading Facebook Comments ...