প্রচ্ছদ স্বাস্থ্য

ওষুধ ছাড়াই ডায়াবেটিস চিকিৎসা

577
ওষুধ ছাড়াই ডায়াবেটিস চিকিৎসা
ছবি : সংগৃহীত

যখন পর্যাপ্ত ইনসুলিন উৎপাদন করতে পারে না বা যখন শরীর ইনসুলিন ব্যবহার করতে পারে না, তখন ডায়াবেটিস দেখা যায়। এই রোগ রক্তে গ্লুকোজ বৃদ্ধি ঘটায়। আয়ুর্বেদে ডায়াবেটিসকে বিপাকীয় রোগ হিসেবেই চিহ্নিত করে। ডায়াবেটিস সম্পূর্ণ নিরাময় করা যায় না, তবে সঠিকভাবে চেষ্টা করলে নিয়ন্ত্রণ করা যেতে পারে

আযুর্বেদ অনুযায়ী ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রেণে তিনটি উপাদানের মিশ্রণের কথা উল্লেখ করা হলো-

১) তেজপাতা

তেজপাতা ইনসুলিন ফাংশন বাড়ায়। এক গবেষণায় দেখা গেছে, প্রায় একমাস তেজপাতা খাওয়ার ফলে টাইপ-২ ডায়াবেটিস রোগীদের ইনসুলিন ফাংশনে উল্লেখযোগ্য উন্নতি ঘটেছে। তেজপাতার হাইপোগ্লাইসেমিক বৈশিষ্ট্যগুলি ইনসুলিন বিপাকে সহায়তা করে। অপরিহার্য তেল এবং ফাইটোকেমিক্যালের জন্যই এই পাতা এত সক্রিয়।

২) হলুদ

রান্নাঘরের একটি অপরিহার্য অংশ হল হলুদ। হলুদে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস রয়েছে যা সংক্রমণ এবং প্রদাহ রোধ করতে সাহায্য করতে পারে। গবেষণায় দেখা যায় যে, হলুদে থাকা কারকিউমিন নামক যৌগটি ডায়াবেটিস প্রতিরোধে সক্রিয় ভূমিকা গ্রহণ করে। এটি ​​রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা কমায়।

আরও পড়ুন:  হঠাৎ কেউ স্ট্রোক করলে কি করবেন? আপনিও পারেন জীবন বাচাতে সাহায্য করতে।

৩) অ্যালোভেরা জেল

প্রাথমিক গবেষণায় দেখা যায় যে অ্যালোভেরা জেলের ব্যবহার রক্তে শর্করার মাত্রা এবং ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করতে পারে। এই ইতিবাচক প্রভাবের কারণ হল, এতে থাকা লেকটিন,ম্যান্নান্সঅ্যান্থ্রাকুইনোনের মতো যৌগ।

ডায়াবেটিসের জন্য আপনি কীভাবে তিন উপাদানের এই মিশ্রণটি তৈরি করতে পারেন তা দেখে নিন :

উপকরণ

১) দুই থেকে তিনটি তেজপাতা।

২) আধা চা চামচ হলুদ এবং

৩) এক টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল।

পদ্ধতি :

রক্তের শর্করার মাত্রা ঠিক রাখতে সব উপাদান একসঙ্গে মিশিয়ে নিয়ে পিষে নিন কিংবা ব্লেন্ডার করে দুপুরে খাবার আগে আর রাত্রে খাবার আগে এই মিশ্রণটি খেতে হবে।

ওষুধ এবং এই মিশ্রণ দুই খাওয়ার আগে অবশ্যই ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করে নিশ্চিত হন।

শেয়ার করুন :
  • 270
    Shares

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন

Loading Facebook Comments ...