প্রচ্ছদ প্রবাস

বিদেশের মাটিতে পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে কি করবেন ?

240
বিদেশের মাটিতে পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে কি করবেন ?
ছবি : সংগৃহীত

পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে- চাকরি, ব্যবসা, ভ্রমণ বা শিক্ষার্থী হিসেবে বিভিন্ন দেশে প্রতিনিয়তই যেতে হয়। বিদেশে যাওয়ার পর পরিচয় বহনের একমাত্র প্রমাণ হলো পাসপোর্ট। কিন্তু কোনো কারণে পাসপোর্ট যদি হারিয়ে যায় তাহলে বিদেশের মাটিতে নানা ঝামেলায় পড়তে হয়। বিদেশে পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে কী করা উচিত।

শান্ত থাকুন- এ সব পরিস্থিতিতে শান্ত থাকার চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কিছু নেই। তাই দিশেহারা না হয়ে মনকে শান্ত রাখুন ও পরবর্তী করণীয় গুলো পালন করুন।

পুলিশ কে অবহিত করুন- আপনি যখনই যেখানে জানতে পারবেন যে আপনার পাসপোর্ট হারিয়ে গেছে তখনই কাছে পুলিশ স্টেশন খুঁজে বের করুন এবং তাদেরকে অবহিত বা রিপোর্ট ফাইল করুন। সেখানে আপনার নাম-পরিচয় ও যোগাযোগের মাধ্যমটি পরিষ্কারভাবে লিখুন, যাতে তারা পাসপোর্ট খুঁজে পেলে আপনাকে জানাতে পারে।

স্থানীয় এজেন্সির সঙ্গে যোগাযোগ করুন- পুলিশকে অবহিত করার পর স্থানীয় ট্রান্সপোর্ট এজেন্সির সঙ্গে দ্রুত যোগাযোগ করুন। তাদেরকে বলুন যে আপনার পাসপোর্ট কিভাবে হারিয়েছে বা চুরি হয়ে গেছে।

তাদেরকে অনুরোধ করলে তারা রেডিও মেসেজের মাধ্যমে তাদের ট্যাক্সি, বাস বা অন্যান্য যানবাহন সংশ্লিষ্টদের জানিয়ে দেবে। যদি কোনও চালক এটি খুঁজে পায় তাহলে প্রধান কার্যালয়ে যোগাযোগ করবে যারা আপনার কাছে পাসপোর্টটি ফিরিয়ে দেবে।

দূতাবাসে যোগাযোগ করুন- যেখানে অবস্থান করছেন সেখানে কাছাকাছি অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস খুঁজে বের করুন ও জরুরি সাক্ষাতকার চান। এমনকি এমন পরিস্থিতিতে শিডিউল ছাড়াই সরাসরি গিয়েও উপস্থিত হতে পারেন। দূতাবাস আপনাকে অস্থায়ী ট্রাভেল ডকুমেন্ট অথবা জরুরী সার্টিফিকেট দিতে পারে, যার মাধ্যমে আপনি নিজ দেশে ফেরত আসতে পারবেন।

আরও পড়ুন:  ২০১৮ সালে নতুন বিধিমালা অনুসারে প্রবাসীরা দেশে কি আনতে পারবেন ?

আপনার যদি পাসপোর্টের সঙ্গে টাকাও হারিয়ে যায় তবে দূতাবাস আপনাকে সাহায্য করতে পারে, এমনকি খাবার ও পানীয় দিতে পারে। তারা আপনার টিকিট কেটে দিবে। পরবর্তীতে দেশে ফিরে ইমিগ্রেশন কিংবা নতুন পাসপোর্ট আবেদন করার সময় এই টাকা ফেরত দিতে হতে পারে।

তবে আর্থিক সাহায্য পেতে দূতাবাসের এই প্রক্রিয়ায় সময় লাগতে পারে। তাই যদি পরিচিত কেউ থাকে তাহলে তার কাছ থেকে টাকা নিয়ে বা টিকিট বুকিং করে দেশে ফিরতে পারেন এবং দূতাবাসকে বিষয়টি জানান। ফলে আপনার ও দূতাবাসের সময় বাঁচবে।

ধৈর্য ধরুন- প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের ধরণ ও দূতাবাসের কার্যক্রমের গতি অনুযায়ী পুরো প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হতে এক ঘণ্টা থেকে একদিন লাগতে পারে।

এই সময়ে আপনি ভুলে থাকার চেষ্টা করুন যে আপনার পাসপোর্ট হারিয়ে গেছে। এই সময়টা বিশ্রাম নিন, খাবার খান ও নিজেকে চাঙ্গা রাখুন। আপনার ব্যাগ প্রস্তুত করুন ও প্রিয়জনদের সঙ্গে কথা বলুন।

বিদেশে নিজের বৈধতার সনদ হচ্ছে পাসপোর্ট। এই পাসপোর্টের ভিত্তিতেই নির্ধারণ করা হবে আপনি বৈধ, না অবৈধ। তাই পাসপোর্ট যত্ন করে রেখে দেবেন। কোনোভাবেই হাতছাড়া করবেন না।

বিদেশে বৈধ পাসপোর্ট অনেকে অ-বৈধভাবে বেচাকেনা করে। টাকার বিনিময়ে একজনের বৈধ পাসপোর্ট অবৈধ ব্যক্তির কাছে বিক্রি করে দেয়। তাই পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে দ্রুত পদক্ষেপ নিন।

শেয়ার করুন :
  • 1.1K
    Shares

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন

Loading Facebook Comments ...