প্রচ্ছদ ভিন্ন স্বাদের খবর

রাত ফিকে হয়ে আসে, জমতে থাকে টাকার পর টাকা। এক রাতে এত আয় !!

192
রাত ফিকে হয়ে আসে, জমতে থাকে টাকার পর টাকা।
প্রতীকী ছবি

মাথা ঘুরিয়ে দেওয়া বাজনা! সঙ্গে তাল দিচ্ছে চোখে বিভ্রম তোলা আলো। আর সেই পরিবেশেই মঞ্চে একে একে জমছেন স্বল্পবসনা স্বপ্নসুন্দরীরা। মার্কিন নাইট ক্লাবের এটাই চেনা চেহারা।

ক্রমশ নাচ শুরু হলে স্টেজ ঘিরে দাঁড়ান উৎসাহীরা। নর্তকীরা অনেকেই স্টেজ ছেড়ে নীচে নেমে আসেন। টেবিলে পানাহাররত পুরুষের কোলের কাছে গিয়ে বিভঙ্গ তোলেন শরীরে। তাঁদের সেই স্বল্প পোশাকের খাঁজেই পুরুষ গুঁজে দেন টাকা। এভাবেই জমতে থাকে খেলা। রাত ফিকে হয়ে আসে। জমতে থাকে ডলারের পর ডলার। নর্তকীর বসনের ফাঁকে জমতে থাকে টাকা।

এ ভাবে কত টাকা আয় হয় এক রাতে একজন নাইট ক্লাব নর্তকীর? সম্প্রতি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘কসমোপলিটান’-কে প্রদত্ত এক সাক্ষাৎকারে রুবি নাম্নী জনৈকা ল্যাপ ডান্সার জানালেন তাঁর আয়ের কথা।

রুবির মতে, নাইট ক্লাব নর্তকীদের নিছক নাচিয়ে হিসেবে দেখলে ভুল হবে। তাঁরা আসলে থং পরিহিতা থেরাপিস্ট। পুরুষরা তাঁদের কাছে মন খুলে কথা বলেন। জীবনের বহু কথাই তাঁরা বলে ফেলেন ল্যাপ ডান্সের ঘনিষ্ঠ মুহূর্তগুলিতে।

আরও পড়ুন:  ৩০ জন মানুষের মাংস খেয়েছেন , এরপর...

রুবি আরও জানিয়েছেন, নর্তকীরা সাধারণত নাইট ক্লাবের দ্বারা নিয়োগপ্রাপ্ত নন। তাঁদের ক্লাব ভাড়া করে আনে। একটা নির্দিষ্ট সময়ের জন্যই এই ভাড়া। তাঁদের আয় থেকে তাঁরাই ক্লাবকে টাকা দেন। রাত শেষ হয়ে এলে ১০ থেকে ৪৫০ ব্রিটিশ পাউন্ড থংয়ের স্ট্র্যাপ থেকে তুলে দিতে হয় ক্লাব কর্মচারীর হাতে। তার বাইরে ডিজে-ও টিপস পান তাঁদের কাছ থেকে। বাকি টাকা তাঁরা ঘরে নিয়ে আসেন।

ঠিক কত টাকা সেটা? রুবি জানাচ্ছেন, প্রতি রাতে ৩০০-৩৮০ ব্রিটিশ পাউন্ড তিনি নিজের জন্য রাখতে পারেন। ভারতীয় অর্থমূল্যে যা ২৯,০০০-৩৬,০০০ টাকা।

শেয়ার করুন :
  • 75
    Shares

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন

Loading Facebook Comments ...