প্রচ্ছদ খেলা ক্রিকেট

অভিষেকেই রেকর্ড করলেন বিলাল আসিফ

28
অভিষেকেই রেকর্ড করলেন বিলাল আসিফ
ছবি : সংগৃহীত

যে বয়সে অনেকেরই বিদায় ঘন্টা বাজতে থাকে, সেখানে তাঁর অভিষেক হল মাত্র। হ্যাঁ ৩৩ বছর বয়সে পাকিস্তান টেস্ট দলে অভিষেক হল বিলাল আসিফের। আর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অভিষেক ম্যাচেই বাজিমাত করেছেন তিনি। ঘূর্ণি যাদুতে একাই ৬ উইকেট নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার প্রথম ইনিংস ধসিয়ে দিয়েছেন এ অলরাউন্ডার।

পাশাপাশি বেশ কয়েকটি রেকর্ড নিজের করে নিলেন বিলাল আসিফ। পাকিস্তানের সবচেয়ে বেশি বয়সী বোলার হিসেবে টেস্ট অভিষেকে এক ইনিংসে ন্যূনতম ৫ উইকেট নিলেন তা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। ৩৩ বছর ১৩দিন বয়সে এই কীর্তি গড়লেন তিনি।

শুধু তাই নয়, টেস্ট ক্রিকেটে গত তিন-চার দশক হিসেবে আনলেও বিলালের চেয়ে বেশি বয়সে টেস্টে অভিষিক্ত হয়ে এক ইনিংসে কেউ ন্যূনতম ৫ উইকেট নিতে পারেনি। আরেকটু খোলাসা করে বলা যায়, টেস্ট ক্রিকেটে গত ৫০ বছরে বিলালই সবচেয়ে বেশি বয়সী ক্রিকেটার যিনি অভিষেকেই এক ইনিংসে ৫ উইকেট নিলেন। আর উপমহাদেশের দলগুলোর মধ্যে মধ্যে সবচেয়ে বেশি বয়সী বোলার হিসেবে এই রেকর্ডটাও নিজের করে নিলেন আসিফ।

দুবাইয়ে পাকিস্তানের প্রথম ইনিংসে ৪৮২ রানের বিশাল সংগ্রহের পর অস্ট্রেলিয়ার লিডের প্রত্যাশায় ছিল দলটির সমর্থকরা। কিন্তু লিড দূরের কথা বিলাল আসিফের ঘূর্ণিতে পথ হারিয়ে ২০২ রানে থামতে হয়েছে তাদের। এরপর দ্বিতীয় ইনিংসে ৪৫ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করেছে পাকিস্তান। চতুর্থ দিনে মাঠে নামার আগে অস্ট্রেলিয়ার সামনে এখন লিড ৩২৫ রানের।

আরও পড়ুন:  অস্ট্রেলিয়া-পাকিস্তান সিরিজের সূচি ঘোষণা পিসিবির

শেষপর্যন্ত ২০২ রানে গুটিয়ে গেলেও, শুরুটা দুর্দান্ত ছিল অস্ট্রেলিয়ার। দুই ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ আর উসমান খাজা মিলে ১৪২ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়েছিলেন। কিন্তু তাদের আউটের পর দুমড়ে-মুচড়ে যায় অসিদের প্রথম ইনিংস। উদ্বোধনী দুই ব্যাটসম্যানের পর টপ, মিডল আর লোয়ার অর্ডারের ৮ ব্যাটসম্যান মিলে করেন মাত্র ৬০ রান।

এদিকে অ্যারন ফিঞ্চ অভিষেকেই খেলেন অর্ধশত রানের ইনিংস। ১৬১ বলে আট চারে করেন ৬২ রান। আরেক ওপেনার উসমান খাজা করেন ১৬১ বলে ৬২ রান। তাদের সাজঘরে ফেরার পর বাকিরা আসা-যাওয়ার মিছিলে ব্যস্ত ছিলেন।

বল হাতে পাকিস্তানের হয়ে অভিষিক্ত বিলাল আসিফের ৬ উইকেটের সঙ্গে বাকি ৪টি উইকেট নেন মোহাম্মদ আব্বাস। অভিষেক ম্যাচেই ৬ উইকেট নেয়ার কৃতিত্ব গড়লেন বিলাল আসিফ। ২১.৩ ওভার বল করে মাত্র ৩৬ রান দিয়ে নেন ৬ উইকেট তিনি। তার সঙ্গে ১৯ ওভারে ৯ মেডেন ২৯ রানের খরচায় ৪টি উইকেট নেন মোহাম্মদ আব্বাস।

শেয়ার করুন :
  • 15
    Shares

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন

Loading Facebook Comments ...