প্রচ্ছদ রাজনীতি আওয়ামী লীগ

আমি আল্লাহকে ভয় পাই। পরিস্কার কথা, টাকার বিনিময়ে আমি ভোট কিনমু না

71
টাকার বিনিময়ে আমি ভোট কিনমু না
ছবি : সংগৃহীত

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মাদক ব্যবসায়ী ও অসৎ জনপ্রতিনিধিকে ভোট না দেয়ার পরামর্শ দিয়ে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান ভোটারদেরকে বলেছেন, সামনের নির্বাচনে আপনার এলাকার জনপ্রতিনিধি যদি ভালো না হয়, বা আপনি মাদক ব্যবসায়ী বা অসৎ জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করলে ওই এলাকায় সন্ত্রাস হবে। মাদক ব্যবসা হবে। তাহলে ওই এলাকার উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড হবে না। সবচেয়ে বড় ব্যাপার হচ্ছে তখন আপনার সন্তান অন্ধকারের দিকে পা দিবে।

সুতরাং সামনের নির্বাচনে কোন প্রার্থীকে নির্বাচিত করবেন তার চয়েজ আপনার। তবে আমি টাকার বিনিময়ে ভোট কিনমু না। শামীম ওসমান বলেন, আমি মানুষের জন্য কাজ করে মানুষকে খুশি করে আল্লাহকে খুশি করতে চাই। রাজনীতি একটা ইবাদত। আপনি আপনার বাড়ির আঙ্গিনায় কাটাযুক্ত গাছ লাগাবেন, না কি ফলের গাছ লাগাবেন তার সিদ্ধান্ত আপনার।

শুক্রবার (১৬ নভেম্বর) সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার সিদ্ধিরগঞ্জে তার নির্বাচনী এলাকায় সিটি করপোরেশনের ১০ নং ওয়ার্ডের নির্বাচনী গণসংযোগ এসে এক পথসভায় সংসদ সদস্য শামীম ওসমান এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমি আল্লাহকে ভয় পাই। পরিস্কার কথা, টাকার বিনিময়ে আমি ভোট কিনমু না। কারণ প্রবলেম আমার না। প্রবলেম আপনার। আপনার বাচ্চার ভবিষ্যতকে আপনারই ঠিক করতে হবে। আপনাকে ভাবতে হবে, কোন বাংলাদেশ চান আপনি। আফগানিস্তান মার্কা জঙ্গি দেশ ? নাকি সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়ার চেয়েও উন্নত বাংলাদেশ?।

এসময় তিনি ১০ নম্বর ওয়ার্ডের সিদ্ধিরগঞ্জের পাঠানটুলী, এসিআই, লক্ষীনারায়ণ কটন মিল, হাজারীপাড়া, তিনগাট্টির মাজার, গোদনাইল আরামবাগ, ঋষিপাড়া, চিত্তরঞ্জন কটন মিল এলাকাসহ ১০টি সংক্ষিপ্ত পথসভা করেন। তার সঙ্গে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি মজিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক ইয়াছিন মিয়া, নাসিক প্যানেল মেয়র মতিউর রহমান মতি, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এহসানুল হক নিপু, ১০ নম্বর কাউন্সিলর ইফতেখার আলম খোকন, আওয়ামীলীগ নেতা মাহবুব হোসেন, নাসিক ৬ নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর আওয়ামীলীগ নেতা সিরাজুল ইসলাম মন্ডল, জেলা যুবলীগের স্বাস্থ্য ও পরিবেশ বিষয়ক সহ-সম্পাদক হাজী সুমন কাজী, আদমজী আঞ্চলিক শ্রমিকলীগ সভাপতি আব্দুস সামাদ বেপারী, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনূল হক ভূইয়া রাজু, যুবলীগ কাজী আমির হোসেন ও হায়দার আলী প্রমুখ। গণসংযোগের পূর্বে সংসদ সদস্য স্থানীয় এলাকাবাসীর উদ্দেশ্যে শামীম ওসমান বলেন, আপনারা যাচাই-বাছাই করে জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করবেন। যেমন যাচাই-বাছাই আপনারা করে থাকেন আপনাদের সন্তানদের বিয়ের সময়।

আরও পড়ুন:  জেনারেল জিয়াকে স্বাধীনতার ঘোষক বলা হলে স্বাধীন বাংলাদেশের কন্সেপশনই থাকে না

তিনি আবারও উল্লেখ করেন, আমার শরীর যদি হয় বাংলাদেশ, তবে ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ হচ্ছে আমার হৃদপিন্ড। আমি যদি এবার নির্বাচিত হই, তবে আমি এই হৃদপিন্ডটাকে হাতিরঝিলের থেকেও বেশী উন্নত এলাকা করে সাজাবো। যেন মানুষ আমার এলাকাকে দেখতে আসে। তিনি বলেন, কিছু প্রার্থী আসবে মসজিদে নামাজ পড়তে এসে মসজিদের মধ্যে সবার সামনে অনুদান দিবে।

ভোট চাইবে। কিংবা কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে সবাইকে দেখিয়ে টাকা দিবে। ভোট চাইবে। তাছাড়া এ প্রার্থীরা দরিদ্র লোকদের টাকা দিয়ে ভোট দেয়ার জন্য কসম কাটাবে। তাই আপনাদের বলছি, আপনারা টাকার বিনিময়ে ঈমান বিক্রি করবেন না। আমার কর্মকান্ড সম্পর্কে আপনারা খবর নিবেন, আরেকজনের কর্মকান্ড সম্পর্কে খবর নিবেন।

শেয়ার করুন :
  • 156
    Shares

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন

Loading Facebook Comments ...