প্রচ্ছদ অর্থ ও বাণিজ্য

*লকডাউন ঘোষণা করা হলেও ব্যাংকের কোনো শাখা বন্ধ হবে না*

124
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

*দেশে করোনা ভাই’রাসের বি’স্তার ঠে’কাতে লক’ডাউন ঘো’ষণা করা হলেও ব্যাং’কের কোনো শাখা ব’ন্ধ করা যাবে না। সাধা’রণ মানুষ যেন নির্বিঘ্নে নগদ অর্থের লেন’দেন করতে পারে সেই জন্য যে’কোনো অবস্থায়’ই ব্যাং’কের সব শাখা খোলা রাখতে হবে। রোব’বার (২২ মার্চ) কে’ন্দ্রীয় ব্যাংকের এক বি’শেষ স’ভায় এসব সি’দ্ধান্ত নে’য়া হয়েছে। স’ভায় সভা’পতিত্ব করেন বাংলা’দেশ ব্যাং’কের গভ’র্নর ফজলে কবির।*

*বৈ’ঠক সূত্রে জা’না গেছে, করোনা ভাই’রাসের বিস্তার ঠে’কাতে মাদারী’পুরের শিব’চর ও গাই’বান্ধার সাদুল্লা’পুর লক’ডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। পরিস্থিতি বিবেচনায় আরো এ’লাকা লক’ডাউন হতে পারে। তবে সাধা’রণ মানুষ যেন নির্বিঘ্নে নগদ অর্থের লেন’দেন করতে পারে সেই জন্য যে’কোনো অবস্থায়’ই ব্যাং’কের সব শাখা খোলা রাখতে হবে। লক’ডাউন হলেও শাখা ব’ন্ধ করা যাবে না।*

*এ বিষয়ে বাংলা’দেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরি’চালক ও মুখপাত্র সিরাজুল ইস’লাম জা’নান, বিশ্ব মহা’মারী করোনা ভাই’রাসের সং’ক্রমণ রোধে সব ধরনের প্রশি’ক্ষণ কর্ম’সূচি বন্ধের সি’দ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এই মুহূর্তে বাংলা’দেশ ব্যাং’কের যেসব কর্ম’কর্তা প্রশি’ক্ষণ অথবা অফি’সিয়াল কাজে দেশের বাইরে অব’স্থান করছেন, তাদের ১৪ দিনের ছুটি দেওয়া হবে। এমনকি যাদের পরি’বারে কোনো স’দস্য বিদেশ থেকে এসেছে তাদের ক্ষেত্রেও ১৪ দিন বাধ্যতা’মূলক ছুটি নির্ধা’রণ করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।*

আরও পড়ুন:  গণপরিবহণ চালুর বিষয়ে নতুন নির্দেশনায় যা বলা হয়েছে

*তিনি বলেন, খুব শিগ’গির বাংলাদেশ ব্যাং’কের প্রতিটি বিভা’গের সামনে থার্মাল স্ক্যানা’রের ব্য’বস্থা করা হবে। ইতি’মধ্যেই বেশির’ভাগ বিভা’গের সামনে হ্যান্ড স্যানি’টাইজারের ব্য’বস্থা করা হয়েছে। আজ’কের বৈঠক সূত্রে জানা যায়, ব্যাংকের কয়েক’টি শাখা বন্ধ রেখে অন্যান্য শাখা’গুলো বন্ধ ঘোষণার অনু’রোধ করে’ছিল একটি ব্যাংক। কিন্তু সেটা সরা’সরি না’কচ করে দিয়েছে কে’ন্দ্রীয় ব্যাংক। কারণ সং’কটের সময়’গুলোতে মানুষের টাকার প্রয়োজন বেশি হয়। স’তর্কতা অব’লম্বন করে সবাই ব্যাংক থেকে টাকা উঠা’তে ও জমা দিতে পার’বেন।*

*এছাড়া প্রত্যেক’টি ব্যাংক’কে তাদের বোর্ড মিটিংগুলো ভিডিও কন’ফারেন্সের মাধ্যমে ক’রার নির্দে’শনা দেয়া হয়েছে। পাশা’পাশি বন্ধ করতে হবে ১০ জনের বেশি অংশগ্রহণ’কারী সব ধরনের প্রশি’ক্ষণ কর্ম’সূচি। করোনা পরি’স্থিতি স্বাভা’বিক হলে একই স্থান থেকে সেই প্রশি’ক্ষণ শুরু হবে। আর যে’সব প্রশি’ক্ষণে অংশগ্রহণ’কারীর সংখ্যা ১০ জ’নের কম তারা বড় কক্ষে দুই মিটার দূরত্ব বজায় রেখে প্রশি’ক্ষণ শেষ করবে।*

আরও পড়ুন:  ইসলামে নিষিদ্ধ হারাম খাওয়ার কুফল পাচ্ছে চীন

*সূত্র জা’নায়, প্রয়ো’জনে দীর্ঘ’মেয়াদী বন্ড’গুলো ক্যাশ করতে পারবে ব্যাংক’গুলো। এতে স’ময় হিসাব করে মুনাফা পরি’শোধ করা হবে। যদিও অধি’কাংশ ব্যাং’কের তারল্যে কোনো সমস্য নেই। তার’পরও যাদের স’মস্যা হবে তারা বন্ডের পরি’বর্তে কেন্দ্রীয় ব্যাং’কের কাছ থেকে টাকা নিতে পারবে। খুব শিগি’গির এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞা’পন জারি করা হবে।*

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

  • 196
    Shares