প্রচ্ছদ Featured News

বিশ্ব মন্দার কারণে কঠিন সঙ্কটের মুখে থেকে যেভাবে ঘুরে দাঁড়াবে বাংলাদেশ

35
বিশ্ব মন্দার কারণে কঠিন সঙ্কটের মুখে থেকে যেভাবে ঘুরে দাঁড়াবে বাংলাদেশ
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

ক’রোনা পরিস্থিতিতে সা’রাবিশ্বে অর্থনৈতিক মন্দা বা তীব্র অ’র্থনৈতিক সঙ্কটের পূ’র্ভাবাস দেয়া হচ্ছে। বাংলাদেশের পক্ষ থেকেও বলা হচ্ছে যে, বাংলাদেশ একটি অর্থনৈতিক সঙ্কট এবং কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী নিজেই বলেছেন যে, বিশ্ব মন্দার আঁচড় বাংলাদেশের গায়ে লাগবে এবং এজন্য সকলকে প্রস্তুত থাকতে বলেছেন। ইতিমধ্যে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ৯২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্র’ণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়েছে সঙ্কট মোকাবেলার জন্য এবং অর্থনৈতিক দুর্গতি আর অর্থনৈতিক স্থবিরতা কাটিয়ে ওঠার জন্য।

বিশ্ব ব্যাংক জানিয়েছে যে, বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি দুই থেকে তিন শতাংশে নেমে যাবে, যদিও বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল এই বি’ষয়টিকে নাকচ করে দিয়ে বলেছেন যে এই সম্পর্কে পূর্ভাবাস পা’বার মতো সময় এখনো আসেনি। তবে অ’তীতের অভিজ্ঞতা এবং বাংলাদেশের বাস্তবতা বিশ্লেষণ করে কোনো কোনো বিশ্লেষক মনে করছেন যে, বাংলাদেশ অর্থনৈতিক সঙ্কট মোকাবেলায় ভালো করবে এবং খুব দ্রুতই বাংলাদেশ ঘু’রে দাঁড়াবে সঙ্কট কাটিয়ে। এই প্রসঙ্গে বিশেষজ্ঞরা ২০০৮ এর বিশ্ব মন্দার উদাহরণ দিয়ে বলেন যে, সেসময় ধারণা করা হয়েছিল যে, বিশ্ব মন্দার কারণে বাংলাদেশ কঠিন সঙ্কটের মুখে পড়বে।

আমরা যদি তার-ও আগে ফিরে যাই, তাহলে দেখা যাবে যে, ১৯৯৮ সালের ব’ন্যার সময় বিশ্বব্যাংক, আইএমএফ-সহ অনেক প্রতিষ্ঠান বলেছিল যে, বাংলাদেশে কয়েক লাখ মানুষ দূর্ভিক্ষে মারা যাবে। এর আগে ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশের সম্পর্কে যে সকল পণ্ডিতরা যেসব ভবিষ্যৎবাণী করেছিল, তা সবই ভুল প্রমাণিত হয়েছে।

আরও পড়ুন:  করো'নায় আক্রান্তে সেঞ্চুরি করলো দিনাজ'পুর

আর এ’জন্যেই অর্থনীতিবিদরা বলছেন, বাংলাদেশের ভে’তরে কিছু সহজাত শক্তি আছে, কিছু প্রাণসঞ্জীবনী শক্তি আছে যা দিয়ে বাংলাদেশ সবসময় সঙ্কট মোকাবেলা করতে পারে এবং ঘুরে দাঁড়াতে পারে। বিশ্ব অর্থনৈতিক ম’ন্দার ঢেউ বাংলাদেশে লাগলেও বাংলাদেশ তাতে খুব বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবেনা, বাংলাদেশ এখান থেকে ঘুরে দাঁড়াতে পারবে ব’লে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। এর পেছনে তাঁরা পাঁচটি কারণ উল্লেখ করছেন-

খাদ্য নিরাপত্তা :বাংলাদেশ গত কয়েক বছর ধরেই খাদ্য নি’রাপত্তার উপর জোর দিয়েছে এবং স’হনীয় মাত্রায় মজুদ খাদ্য রয়েছে। তী খাদ্য সঙ্কটে মানুষ মারা যাবে- এমন পরিস্থিতিতে সরকারের পড়ার কোন কারণ নেই। এই খাদ্য নিরাপত্তা বাংলাদেশের ঘুরে দাঁড়ানোর পেছনে একটি গুরুত্বপূর্ণ কারণ।

ফসলের বাম্পার ফলন : যখন করোনা সঙ্কটে সবাই উদ্বিগ্ন, উৎকণ্ঠিত এবং হতাশ, তখন বাংলাদেশের জন্য সুখবর এনে দিয়েছে ফসলের বাম্পার ফলন। বোরো ধানের যে বাম্পার ফলন হয়েছে এবং সকলের সম্বিলিত উদ্যোগে ধান কাটাও শুরু হয়েছে তাতে এই বাম্পার ফলন দেশের দূর্ভিক্ষ ঠেকাতে এবং অর্থনৈতিক সঙ্কট ঠেকাতে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলে বিশেষজ্ঞরা ধারণা করছেন।

বাংলাদেশের মানুষের অদম্য প্রাণশক্তি : বাংলাদেশের মানুষের অদম্য প্রাণশক্তি আছে। বাংলাদেশ এমন একটি দেশ, যেদেশের মানুষ জ্বলে-পুড়ে ছারখার হলেও মাথা নোয়াবার নয়। বিভিন্ন প্রাকৃতিক দূর্যোগে বাংলাদেশের মানুষের প্রাণশক্তি দেখা গেছে। করোনা সঙ্কটেও মানুষ তাঁর সহজাত অদম্য প্রাণশক্তিতে ভরপুর হয়ে কর্মউদ্দীপনায় ঝাঁপিয়ে পড়বে যেটা করোনা এবং করোনা পরবর্তী অর্থনৈতিক সঙ্কট মোকাবেলার ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

আরও পড়ুন:  ইসলামে নিষিদ্ধ হারাম খাওয়ার কুফল পাচ্ছে চীন

ক্ষুদ্র এবং মাঝারি উদ্যোক্তাদের উদ্ভাবনী : বাংলাদেশের অর্থনীতির প্রাণকেন্দ্র হচ্ছে ক্ষুদ্র এবং মাঝারি শিল্প এবং এই শিল্পগুলোকে দেশের অর্থনীতির প্রাণস্পন্দন মনে করা হয়। করোনা মোকাবেলার ক্ষেত্রে ক্ষুদ্র এবং মাঝারি উদ্যোক্তারা সঙ্কটে পড়েছেন এবং এই সঙ্কট থেকে উত্তরণের জন্য তাঁরা বিভিন্ন রকম নতুন নতুন কৌশল গ্রহন করবেন এবং তাঁদের সৃজনশীলতার প্রয়োগ ঘটাবেন- এটাও বাংলাদেশকে ঘুরে দাঁড়াতে সাহায্য করবে বলে ধারণা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

সঠিক রাজনৈতিক নেতৃত্ব : বাংলাদেশ করোনা সঙ্কটের শুরু থেকেই পাশাপাশি দুটি জিনিস দেখতে পাচ্ছে। একটি জনস্বাস্থ্যের বিষয় এবং অন্যটি অর্থনৈতিক সঙ্কটের বিষয়। বাংলাদেশ যত দ্রুত প্রণোদনা প্যাকেজসহ অর্থনৈতিক সঙ্কট মোকাবেলার জন্য পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে, তা বিশ্বের উন্নত দেশগুলোও করতে পারেনি। আর সেকারণেই মনে করা হচ্ছে যে, সঠিক রাজনৈতিক পরিকল্পনার কারণে বাংলাদেশ খুব দ্রুতই ঘুরে দাঁড়াবে এবং করোনার কারণে সৃষ্ট অর্থনৈতিক সঙ্কটে বাংলাদেশ জটিল পরিস্থিতিতে পড়বে না, বরং এই অর্থনৈতিক সঙ্কট কাটিয়ে বাংলাদেশ তাঁর উন্নতি-অগ্রগতির ধারায় এগিয়ে যাবে।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

  • 26
    Shares