প্রচ্ছদ ধর্ম ও জীবন

ফজর নামাজ হওয়ার আগ পর্যন্তই এশা নামাজ পড়া যায়

34
Default featured image
পড়া যাবে: < 1 minute

অনেকে বলে থাকেন এশার নামা’জের ওয়াক্ত রাত ১২ টা প্রর্যন্ত। আসলে কি তাই ? রাতের ভেতর চারটি প্রহর থাকে। ধরে নিন, চার ঘণ্টা করে। প্রথম প্রহরের এশা পড়া উত্তম। দ্বিতীয় প্রহর পার হয়ে গেলে মাকরূ’হ ওয়াক্ত এসে যায়। তবে এমনি’তে কোনো উজর বশতঃ ফজর হওয়ার আগ পর্যন্তই এশা পড়া যায়। এশার নামা’জের আগে ঘুমানো মাকরূহ

অধিক রাত্রি জাগরণ না করে দ্রুত ঘুমিয়ে পড়া মোস্তাহাব। হ’জরত রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম’ এশার নামাজের পূর্বে ঘুমানো’ এবং নামাজের পর’ অহেতুক গল্প-গুজব করাকে খুব অপছন্দ’ করতেন। কিন্তু ভা’লো ও নেক কাজের জন্য এশার নামাজের পর জাগ্রত’ থাকাতে কোনো ক্ষতি নেই।

যেমন মেহমানের সঙ্গে কথা বলা, জ্ঞানার্জন সম্পর্কে আলো’চনা করা কিংবা পরিবারকে সময় দেওয়া ইত্যাদি। মোট’কথা, যে জাগ্রত থাকা কোনো ক্ষতির’ কারণ হবে না- যেমন ফজরের ‘নামাজ নষ্ট হয়ে যাওয়া; সে জাগ্রত থাকাতে কোনো ক্ষতি নেই।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

  • 32
    Shares