প্রচ্ছদ অপরাধ

পোস্ট মাস্টারকে গু’লি করে ৫০ লাখ টাকা ছি’নতা’ইয়ের সাথে যুবলীগ ও ছাত্রলীগ জড়িত

61
পোস্ট মাস্টারকে গু’লি করে ৫০ লাখ টাকা ছি’নতা’ইয়ের সাথে যুবলীগ ও ছাত্রলীগ জড়িত
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে পোস্ট মাস্টারকে গু’লি করে ৫০ লাখ টাকা ছি’নতা’ইয়ের সাথে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতা-কর্মীর সম্পৃক্ততা পেয়েছে পুলিশ। এই ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে গোয়েন্দা পুলিশ জেলা ছাত্রলীগের এক নেতাকে গ্রে’প্তার করেছে।

ওই ছাত্রলীগ নেতার আদালতে দেয়া জ’বানব’ন্দিতে ছি’নতা’ইয়ের সাথে জড়িত আরও কয়েকজন যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীর নাম বের হয়ে এসেছে। গ্রে’প্তার হয়ে আদালতে জ’বানব’ন্দি দেয়া ওই ছাত্রলীগ নেতার নাম তানজিদুল ইসলাম ওরফে জিসান। তিনি টাঙ্গাইল জেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য।

গত ১৭ মে কালিহাতী পোস্ট অফিস থেকে সঞ্চয়পত্র ও এফডিআর-এর ৫০ লাখ টাকা তুলেন বল্লা পোস্ট অফিসের পোস্ট মাস্টার মুজিবর রহমান (৫০)। পরে তিনি তার অফিসের রানার রফিকুল ইসলামকে সাথে নিয়ে মোটরসাইকেলে কালিহাতী উপজেলা পোস্ট অফিস থেকে বল্লা পোস্ট অফিসের উদ্দেশ্যে রওনা হন। দুপুর ২টার দিকে তারা বল্লা তাঁত বোর্ডের কাছে পৌঁছালে অপর একটি মোটরসাইকেলে তিন ব্যক্তি তাদের প’থরোধ করে। তারা পোস্ট মাস্টার মুজিবর রহমানের পায়ে গু’লি করে ৫০ লাখ টাকার ব্যাগটি ছি’নতাই করে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় পোস্ট অফিস পরিদর্শক শেখ হোসেন জোবায়ের বাদি হয়ে অ’জ্ঞাত ব্যক্তিদের আ’সামি করে ওই দিনই কালিহাতী থানায় মা’মলা দা’য়ের করেন। মা’মলাটি ত’দন্তের দায়িত্ব দেয়া হয় জেলা গোয়েন্দা পুলিশকে।

পুলিশ সূত্র জানায়, তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার করে তারা এ ঘটনার সাথে জড়িত কয়েকজনকে শনাক্ত করেন। গত ২১ মে টাঙ্গাইল শহর থেকে ছাত্রলীগ নেতা তানজিদুল ইসলাম ওরফে জিসানকে গ্রে’প্তার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে ছি’নতাই হওয়া দুই লাখ টাকাও উদ্ধার করা হয়। জি’জ্ঞাসাবাদে জিসান ছি’নতাইয়ের ঘটনার সাথে জ’ড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন এবং আদালতে জ’বানব’ন্দি দিতে রাজি হন।

আরও পড়ুন:  ঝাঁকে ঝাঁকে পাখিদের কিচিরমিচির শব্দে মুখরিত হয়ে উঠেছে চাপড়া বিল

পরদিন (২২ মে) তাকে টাঙ্গাইল চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হলে তিনি স্বী’কারো’ক্তিমূলক জ’বানব’ন্দি দেন। সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রূপম কুমার দাশ তার জ’বানব’ন্দি লিপিবদ্ধ করেন। পরে তাকে কা’রাগা’রে পাঠিয়ে দেয়া হয়।

পুলিশ ও আদালত সূত্র জানায়, জ’বানব’ন্দিতে জিসান জানিয়েছেন এই ছি’নতা’ইয়ের মূল পরিকল্পনা করেন কালিহাতী উপজেলা যুবলীগের ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক মনিরুল ইসলাম ওরফে সজীব। ঘটনার দিন জিসান এবং সজীবের সহযোগী যুবলীগ কর্মী রিপন বল্লা পোস্ট অফিস এলাকায় অবস্থান করেন।

পোস্ট মাস্টার মুজিবর রহমান টাকা তোলার জন্য কালিহাতীর উদ্দেশ্যে রওনা হলে জিসান ও রিপন একটি মোটরসাইকেল নিয়ে তাদের অনুসরণ করতে থাকেন। কালিহাতী পোস্ট অফিসে পৌঁছার পর টাকা তুলে বল্লার উদ্দেশ্যে পোস্ট মাস্টার রওনা দিলে মোবাইল ফোনে জিসান সজীবকে এ তথ্য জানিয়ে দেন। তার কিছুক্ষণ পর জিসান বল্লার উদ্দেশ্যে রওনা হন। পথেই সজীব ফোন করে জিসানকে জানান যে, কাজ হয়ে গেছে। পরে জিসান অন্য পথে টাঙ্গাইল শহরে চলে আসেন।

আরও পড়ুন:  টাঙ্গাইলে সড়ক দুর্ঘটনায় এক কলেজ ছাত্র নিহত

জিসান জ’বানব’ন্দিতে জানিয়েছেন, সজীব তাকে জানিয়েছিল ছাত্রলীগ কর্মী আবীর সিদ্দিকী ছি’নতা’ইয়ের সময় তার সাথে থাকবে। ঘটনার পর সন্ধ্যায় তাকে টাঙ্গাইল এসে সজীব দুই লাখ টাকা দেন। পরে জিসান বাসায় ফিরে টেলিভিশনের খবরে জানতে পারেন ৫০ লাখ টাকা ছি’নতা’ইয়ের কথা। তখন জিসান সজীবকে ফোন করে এত কম টাকা কেন দিল সে বিষয়ে জানতে চান। কিন্তু সজীব জানান, ফোনে এসব বলা যাবে না।

এদিকে নিজেদের সংগঠনের নেতা-কর্মীরা যারাই জড়িত আছে এ ঘটনায়, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন কালিহাতী উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ ও টাঙ্গাইল জেলা ছাত্রলীগ নেতারা।  কালিহাতী উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহ্ আলম মোল্লা বলেন, তাকে বহিস্কারের চিন্তা ভাবনা চলছে।

জেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল জানান, জিসানের বিরুদ্ধে সাংগঠনিকভাবে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। তাকে বহিস্কারের জন্য কেন্দ্রে প্রস্তাব পাঠানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি শ্যামল কুমার দত্ত বলেন, মা’মলাটি আমরা গুরুত্ব সহকারে দেখছি। জড়িতদের গ্রে’ফতারে অভিযান অব্যহত আছে।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।