প্রচ্ছদ রেসিপি

পুষ্টিকর ছোট মাছের মজাদার ৮ টি রেসিপি একসাথে

33
পুষ্টিকর ছোট মাছের মজাদার ৮ টি রেসিপি একসাথে
পড়া যাবে: 4 মিনিটে

বাঙ্গালীর মাছ ছাড়া একদিনও চলে না। প্রকৃত পক্ষে মাছ দিয়ে ভাত খাবার মজাই আলাদা। আর তাই আজ আপনাদের জন্য নিয়ে এলাম ছোট মাছের মজাদাত৮ টি রেসিপি। তাহলে চলুন যেনে নেই রেসিপিগুলি।

মৌরলা মাছের আম চচ্চড়ি

যা যা লাগবে :১. মৌরলা মাছ ৪০০ গ্রাম,২. পেঁয়াজ বাটা ২ টেবিল চামচ,৩. সরিষা বাটা ১ চা-চামচ,৪. কাঁচা মরিচ বাটা ২টি,৫. নারকেল বাটা (ইচ্ছামতো) ১ টেবিল চামচ,৬. রসুন বাটা ১ চা-চামচ,৭. হলুদ ও মরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ করে,৮. কাঁচা আম চার টুকরা,৯. আলু কুচি ১টি (মাঝারি),১০. লবণ স্বাদমতো,১১. সরিষার তেল প্রয়োজনমতো,১২. পানি ১ কাপ।

যেভাবে তৈরি করবেনঃ  আম ছাড়া বাকি সব উপকরণ দিয়ে একটি কড়াইয়ে মেখে ১০ মিনিট মেরিনেট করে রাখুন। মাঝারি আঁচে চুলায় দিয়ে রান্না করুন। সব উপকরণ সেদ্ধ হয়ে এলে কাঁচা আম দিন। কিছুক্ষণ চুলায় রেখে ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

কাজলি মাছের ঝোল

যা যা লাগবেঃ ১. কাজলি মাছ ৫০০ গ্রাম,২. পেঁয়াজ কুচি এক কাপ,৩. পেঁয়াজ বাটা এক টেবিল চামচ,৪. রসুন বাটা এক চা-চামচ,৫. হলুদ গুঁড়া আধা চা-চামচ,৬. মরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ,৭. কাঁচা মরিচ ৩-৪টি,৮. টমেটো কুচি একটি,৯. ভাজা জিরার গুঁড়া আধা চা-চামচ,১০. তেল পরিমাণমতো,১১. লবণ স্বাদমতো।

যেভাবে তৈরি করবেনঃ  মাছ ধুয়ে ঝরিয়ে নিন। এবার তাতে হলুদ ও মরিচের গুঁড়া, লবণ মেখে ১০ মিনিট রেখে দিন। ফ্রাইপ্যানে তেল দিয়ে কাটা পেঁয়াজ দিন। পেঁয়াজ একটু নরম হলে সব মসলা, লবণ ও সামান্য পানি দিয়ে কষান। মসলা কষা হলে তাতে দুই কাপ পানি দিন। অন্য একটি ফ্রাইপ্যানে তেল দিয়ে মাছ একটু লাল করে ভাজুন। এবার ভাজা মাছগুলো ফুটন্ত ঝোলের মধ্যে দিন। টমেটো কুচি দিন। কাঁচা মরিচ দিয়ে একটু ঝোল রেখে নামিয়ে গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

টেংরা-ঝিঙের মাখামাখি

যা যা লাগবেঃ ১. টেংরা মাছ ১০-১২টি,২. ঝিঙে ১ কাপ,৩. হলুদ গুঁড়া আধা চা-চামচ,৪. মরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ,৫. জিরা বাটা আধা চা-চামচ,৬. কাঁচা মরিচ ২-৩টি,৭. পেঁয়াজ বাটা ১ টেবিল চামচ,৮. রসুন বাটা ১ চা-চামচ,৯. লবণ স্বাদমতো,১০. তেল প্রয়োজনমতো,১১. পানি ১ কাপ।

যেভাবে তৈরি করবেনঃ  টেংরা মাছ হলুদ, মরিচ, লবণ ও রসুন বাটা দিয়ে মেখে হালকা ভেজে রাখুন। কড়াইয়ে আরও কিছু তেল দিয়ে তাতে পেঁয়াজ বাটা, রসুন বাটা, জিরা বাটা, হলুদ-মরিচ গুঁড়া, লবণ ও সামান্য পানি দিয়ে কষিয়ে নিন। কষা হলে ঝিঙে দিন, একটু কষিয়ে পানি দিন, পানি ফুটে উঠলে মাছ দিন। কাঁচা মরিচ দিন। মাছ ও ঝিঙে মাখামাখা হলে নামিয়ে নিন।

তোপসে তেঁতুল

যা যা লাগবেঃ ১. তোপসে মাছ ৫০০ গ্রাম,২. লেবুর রস ১ টেবিল চামচ,৩. পেঁয়াজ বাটা ২ টেবিল চামচ,৪. রসুন বাটা ১ চা-চামচ,৫. কাঁচা মরিচ ফালি ২টি,৬. হলুদ গুঁড়া ১ চা-চামচ,৭. গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ,৮. তেঁতুলের কাথ ১ টেবিল চামচ,৯. চিনি আধা চা-চামচ,১০. লবণ স্বাদমতো,১১. তেল প্রয়োজনমতো।ব্যাটার তৈরি করতে লাগবে :১. বেসন বা ময়দা ১ কাপ,২. ডিম ১টি,৩. লবণ স্বাদমতো,৪. আদা বাটা ১ চা-চামচ,৫. গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ,৬. তেল ১ টেবিল চামচ,সব উপকরণ প্রয়োজনমতো, পানি দিয়ে গুলে ঘন ব্যাটার তৈরি করে নিতে হবে।

যেভাবে তৈরি করবেনঃ  মাছে লবণ, হলুদ ও লেবুর রস দিয়ে মেখে ব্যাটারে চুবিয়ে ডুবো তেলে ভেজে নিতে হবে। অন্য একটি ফ্রাইপ্যানে ২ টেবিল চামচ তেল দিয়ে তাতে পেঁয়াজ বাটা, রসুন বাটা, হলুদ-মরিচের গুঁড়া ও সামান্য পানি দিয়ে কষিয়ে নিতে হবে। এবার তেঁতুলের মাড় ও চিনি দিন। ঝোল ঘন হয়ে এলে সার্ভিং ডিশে ভাজা মাছের ওপর ঢেলে দিন। সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

বেলে-টমেটোর টক

যা যা লাগবেঃ ১. বেলে মাছ ৪০০ গ্রাম,২. টমেটো কুচি ১টি,৩. পেঁয়াজ বাটা ২ টেবিল চামচ,৪. রসুন বাটা ১ চা-চামচ,৫. জিরা বাটা ১ চা-চামচ,৬. কাঁচা মরিচ ফালি ২-৩টি,৭. হলুদ গুঁড়া আধা চা-চামচ,৮. মরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ,৯. লবণ স্বাদমতো,১০. তেল প্রয়োজনমতো,১১. পানি আধা কাপ।

যেভাবে তৈরি করবেনঃ  মাছ কেটে ধুয়ে তাতে লবণ, হলুদ ও রসুন বাটা মেখে ফ্রাইপ্যানে তেল দিয়ে ভেজে তুলে রাখুন। কড়াইয়ে তেল দিয়ে তাতে পেঁয়াজ বাটা, রসুন বাটা, জিরা বাটা, হলুদ গুঁড়া, মরিচ গুঁড়া, লবণ ও সামান্য পানি দিয়ে কষিয়ে নিন। কষানো হলে টমেটো কুচি দিয়ে একটু নেড়েচেড়ে পানি দিন। পানি ফুটে উঠলে বেলে মাছগুলো দিন। ঝোল ঘন হলে কাঁচা মরিচ দিয়ে নামিয়ে নিন।

সরিষা বাটায় মলা মাছ

যা যা লাগবেঃ ১. মলা মাছ ২৫০ গ্রাম,২. পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ,৩. রসুন বাটা ১ চা-চামচ,৪. সরষের তেল ২ টেবিল চামচ,৫. লবণ স্বাদমতো,৬. পানি পরিমাণমতো,৭. হলুদ গুঁড়া ১ চা-চামচ,৮. ধনিয়াপাতার কুচি ২ টেবিল চামচ,৯. সরিষা বাটা ১ টেবিল চামচ,১০. টমেটো কুচি ১ টেবিল চামচ,১১. শুকনা মরিচের গুঁড়া আধা চা-চামচ,১২. কাঁচা মরিচ মাঝখান দিয়ে ফাড়া ৬-৭টি।

যেভাবে তৈরি করবেনঃ  মাছে হলুদ, লবণ মাখিয়ে রাখুন। এবার চুলায় প্যান গরম হলে সরষের তেল (২ টেবিল চামচ) দিন। পেঁয়াজ কুচি, লবণ ও টমেটো কুচি দিয়ে হালকা ভেজে রসুন বাটা, ফাড়া করা কাঁচা মরিচ, হলুদগুঁড়া, মরিচগুঁড়া দিতে হবে। এবার মাখানো মাছ কিছুক্ষণ কষানোর পর সরিষা বাটা, পরিমাণমতো পানি দিয়ে ঢেকে দিতে হবে। নামানোর আগে ধনিয়াপাতার কুচি ওপরে ছড়িয়ে দিন। ছড়ানো প্লেটে ঢেলে ১ টেবিল চামচ কাঁচা সরষের তেল ওপরে দিয়ে পরিবেশন করুন।

আম দিয়ে কাচকি মাছ

যা যা লাগবেঃ ১. কাচকি মাছ ২৫০ গ্রাম,২. কাঁচা আম ৬ টুকরা,৩. পেঁয়াজ বাটা ১ টেবিল চামচ,৪. পেঁয়াজ কুচি ১ চা-চামচ,৫. রসুন বাটা আধা চা-চামচ,৬. হলুদ গুঁড়া আধা চা-চামচ,৭. মরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ,৮. লবণ স্বাদমতো,৯. তেল ১ টেবিল চামচ,১০. কাঁচা মরিচ ফালি ৪টা,১১. ধনিয়াপাতা কুচি ১ টেবিল চামচ।

যেভাবে তৈরি করবেনঃ  কাচকি মাছ পরিষ্কার করে ধুয়ে ধনিয়াপাতা ছাড়া অন্য সব উপকরণ দিয়ে মেখে নিন। অল্প পানি দিয়ে বসান। মাছ সেদ্ধ হয়ে তেল ওপরে উঠে এলে ধনিয়াপাতা দিয়ে নামিয়ে নিন।

মলা মাছ ভুনা

যা যা লাগবেঃ কেটেবেছে, ধুয়ে নেয়া মলা মাছ, পেঁয়াজ, রসুন কুচি, ১টা টোমেটো কুচি, হলুদ ১ চা-চামচ, মরিচ আধ চা চামচ, জিরে গুড়ো ১ চা চামচ, কাঁচামরিচ ৭/৮টি তেল, লবন পরিমান মত। আমি মেপে রান্না করিনা। চোখের আন্দাজে রান্না করি। আমি ধনে গুড়ো শুধু গরুর মাংসে ব্যাবহার করি। ধনে শুধু তরকারীর ঘনত্ব বাড়ায়, আর বাড়ায় গেষ্ট্রিক।

যেভাবে তৈরি করবেনঃ কড়াইতে পেঁয়াজ, রসুন কুচি, মসলা, লবন, তেল, টমেটোকুচি দিয়ে ভালো করে কঁচলে নিয়ে মাছ দিয়ে ভালো করে মসলা মাখিয়ে নিন। এখন আন্দাজ মত পানি দিন। কাঁচামরিচ দিন। চুলায় মাঝারি আঁচে মিনিট দশেক রান্না করলেই হয়ে যাবে। ধনেপাতা ছিটিয়ে নামিয়ে নিন।

তথ্যসূত্রঃ মজার রান্না

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

0/5 (0 Reviews)
  • 1
    Share