প্রচ্ছদ রেসিপি

আম দিয়ে তৈরি করুন মজাদার ২০ টি রেসিপি

21
আম দিয়ে তৈরি করুন মজাদার ২০ টি রেসিপি
পড়া যাবে: 9 মিনিটে

মধু মাস। বাঁজারে পাওয়া যাচ্ছে নানা জাতের নানা আম। আর এই আম খেতে আমরা সকলেই কম বেশি পছন্দ করে থাকি। তাই আজ আমরা জানবো কিভাবে এই আম দিয়ে তৈরি করবেন মজাদার রেসিপি।

১। আম দইয়ের ললি আইসক্রিম

যা যা লাগবেঃ

পাকা আম ২টি

কনডেনসড মিল্ক ৪ টেবিল চামচ

টক/মিষ্টি দই (স্বাদ মত যতটুকু প্রয়োজন)

চিনি (ইচ্ছা)

যেভাবে তৈরি করবেনঃ  প্রথমে পাকা আমের খোসা ছাড়িয়ে টুকরো করে নিন। এরপর আম গুলোকে হাত দিয়ে ভালো করে চটকে নিন। এরপর ব্লেন্ডারে পাকা আম ও কনডেনসড মিল্ক একসাথে ব্লেন্ড করে নিন। আমের মিশ্রণে জল মেশাবেন না। আমের মিষ্টি কম হলে প্রয়োজনে চিনি মেশাতে পারেন। এরপর আইসক্রিমের ছাঁচে প্রথমে আমের মিশ্রণ এরপর অল্প দই দিন। এভাবে আম ও দই দিয়ে কয়েক লেয়ারে ছাঁচ ভরে নিন। ডিপ ফ্রিজে কমপক্ষে ৬ ঘন্টা রেখে জমিয়ে ফেলুন।

২। ম্যাঙ্গো স্মুদি

যা যা লাগবেঃ

পাকা আম-১টা

দুধ-১/২ গ্লাস

বরফ কিউব

দই-১/৪ কাপ

মধু-১ টেবিল চামচ

যেভাবে তৈরি করবেনঃ আম, দুধ, বরফ, দই ও মধু একসঙ্গে ব্লেন্ডারে দিয়ে ব্লেন্ড করে নিন। যখন মিহি হয়ে মিশে ঘন হয়ে যাবে তখন গ্লাসে ঢেলে ওপরে বরফ দিয়ে পরিবেশন করুন।

৩। পাকা আমের মজাদার শরবত

যা যা লাগবেঃ

পাকা আমের রস = ১০ কাপ

পানি = ১০ কাপ

সোডিয়াম বেনজোয়েট = ২ চা চামচ (আমের স্কোয়াশ সংরক্ষনের জন্য। আপনি চাইলে নাও দিতে পারেন)

গোল মরিচের গুড়া = পছন্দ মত

বিট লবন = স্বাদ মত এবং

চিনি = ৫ কাপ।

যেভাবে বানাবেনঃ আপনি পাকা আম ছোট ছোট টুকরো করে কেটে পানি সহ ব্লেন্ডারে দিয়ে রস তৈরি করে নিন। তারপর আমের রসে ১ কাপের মত পানি দিয়ে হালকা জ্বাল দিয়ে নিন।তারপর একটি পাত্রে চিনি ও পানি দিয়ে সিরা তৈরি করে নিন। চিনি গলে গেলে অর্ধেক লেবুর রস দিয়ে কিছুক্ষন নাড়ুন (ফুটে জেনো না উঠে সে দিকে খেয়াল রাখবেন)।এবার বাকি লেবুর রস দিয়ে নাড়ুন। বেনজোয়েট একটু পানিতে গুলে দিয়ে দিন। বেনজোয়েট দিলে বেশি দিন সংরক্ষণ করে রাখতে পারবেন।খানিকটা গরম থাকতেই সংরক্ষণ করুন। পরিবেশনের সময় বরফ পানি, গোলমরিচের গুড়া ও বিট লবন দিয়ে গুলে সার্ভ করুন পাকা আমের শরবত।তো তৈরি হয়ে গেলো পাকা আমের মজাদার শরবত।

৪। আমের রাবড়ি

যা যা লাগবেঃ

পাকা আম তিন কাপ,

চিনি এক কাপ,

দুধ তিন কাপ,

এলাচ পাঁচটি,

কাজু বাদাম পেস্ট এক চা চামচ,

কেওড়া পানি এক চা চামচ,

বাদাম কুচি এক চা চামচ।

যেভাবে বানাবেনঃ আম ছোট ছোট করে কেটে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন।একটা পাত্রে গুঁড়ো দুধ পানি দিয়ে ঘন না হওয়া পর্যন্ত জ্বাল দিন।দুধ ঘন হয়ে এলে চুলা থেকে নামিয়ে তাতে চিনি দিয়ে নাড়ুন।দুধ ঠাণ্ডা হলে আম, এলাচ, বাদামের পেস্টটা দুধের সঙ্গে মিশিয়ে দিন। একটু কেওড়া পানি ছিটিয়ে ধীরে ধীরে কিছুক্ষণ নাড়ুন। বাদাম কুচি উপরে ছিটিয়ে দিন।ফ্রিজে রেখে দিন। ডিনারের শেষে ঠাণ্ডা রাবড়ি পরিবেশন করুন।

৫। আম পান্না কোট্টা

যা যা লাগবেঃ

আম- ৪ টা (ব্লেন্ড করে নেয়া)

আমের জুস – ১ কাপ

দুধ ঘন করে নেয়া – ৪ কাপ

ভ্যানিলা এসেন্স – ১ চামচ

হেভি ক্রিম – ১ কাপ

চিনি – ২ কাপ

আগার পাউডার – ৩ চামচ

যেভাবে বানাবেনঃ প্রথমে দুধ জাল দিয়ে ঘন করে এতে চিনি মিশিয়ে নিতে হবে।তারপর এতে ভেনিলা এসেন্স মিশাতে হবে।আগার পাউডার এর অর্ধেক দিয়ে দুধ কিছুক্ষণ ফুটিয়ে নিয়ে হেভি ক্রিম মিশিয়ে এবার গ্লাসের এক কোনায় ঢেলে ফ্রিজে ৩০মি. রেখে জমাতে হবে।এবার আমের জুসে বাকি অর্ধেক আগার পাউডার মিশিয়ে নিয়ে ব্লেন্ড করা আমের সাথে মিশিয়ে এক চামচ চিনি মিলিয়ে রাখতে হবে।ফ্রিজ থেকে গ্লাস বের করার পরে গ্লাসের বাকি অংশে আমের পিউরি ঢেলে ১ঘণ্টা অপেক্ষা করুন।ফ্রিজ থেকে বের করে পরিবেশন করুন।

টিপসঃ গ্লাসের বাকি অংশে মিশানোর আগে হাত দিয়ে পরিক্ষা করে নিন আগের অংশ জমেছে কিনা।প্রয়োজন হলে আরেকটু বেশি সময় অপেক্ষা করুন।

৬। ম্যাংগ মস্তানি

যা যা লাগবেঃ

১টি আম

৪ টেবিল চামচ চিনি

১ – ২ কাপ দুধ

৪ স্কুপ ভ্যানিলা আইস ক্রিম

পরিমাণ মতো বরফ

গার্নিশিংয়ের জন্য:প্রয়োজন অনুযায়ী কাজু পেস্তা বাদাম কুচি আর টুট্টি ফ্রুটি। প্রয়োজন অনুযায়ী চকলেট সিরাপ। প্রথমে আমের খোসা ছাড়িয়ে ছোট টুকরো করে নিন। সব আমের টুকরো ব্লেন্ডারে দিয়ে দিন।

গার্নিশিংয়ের উপকরণগুলো বাদ দিয়ে সবগুলি উপকরণ একসাথে ব্লেন্ডারে দিয়ে ফেটিয়ে নিন। একটি গ্লাসে ঢেলে দিন। গার্নিশিংয়ের উপকরণ আর চকলেট সিরাপ দিয়ে সাজিয়ে দিন।

৭। আম-সুজির কেক

যা যা লাগবেঃ

সুজি ১ কাপ। আমের শাঁস (পাল্প) ১ কাপ।

তেল অথবা বাটার আধা কাপ।

চিনি আধা কাপ। বেইকিং পাউডার ১ চা-চামচ।

এলাচগুঁড়া আধা চা-চামচ।

কিশমিশ ১/৪ কাপ(ইচ্ছা)।

সুজি ১ কাপ। গলানো মাখন ১ কাপ।

চিনি আধা কাপ।

বেইকিং পাউডার ১ চা-চামচ।

এলাচ আধা চা-চামচ।

যেভাবে বানাবেনঃ ওভেন ১৬০/৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় প্রি হিট হতে দিন। আমের শাঁস ছাড়া সুজির সঙ্গে সব উপকরণ মিশিয়ে নিন।তারপর আমের শাঁস (পাল্প) মিশিয়ে বেইকিং ডিশে ঢেলে দিন।ওভেনে দেওয়ার আগে ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন। ২৫ থেকে ৩০ মিনিট বেইক করুন।সময় শেষ হলে কেকের ভেতরে একটি কাঠি ঢুকিয়ে দেখে নিন কাঁচা রয়েছে কিনা।কাঁচা থাকলে সময় আর একটু বাড়িয়ে দেবেন। আর হয়ে গেলে সম্পূর্ণ ঠাণ্ডা করে নিন।পরিবেশন পাত্রে কেক উল্টিয়ে বের করে কেটে পরিবেশন করুন।

৮। আমের লস্যি

যা যা লাগবেঃ

হিমসাগর আম: ২টি

চিনি: প্রয়োজন মতো

টক দই: ১ কাপ

এলাচ গুঁড়ো: আধ চা চামচ

গোলাপ জল: কয়েক ফোঁটা

বরফ কুচি: প্রয়োজন মতো

লবণ: এক চিমটে

যেভাবে বানাবেনঃ খোসা ছাড়িয়ে আঁটি বাদ দিয়ে আমের শাঁস বের করে নিন।মিক্সারে আমের শাঁস, বরফ কুচি, টক দই, নুন, চিনি আর এলাচ গুঁড়ো এক সঙ্গে মিহি করে বেটে নিন।এ বার পরিবেশন করার গ্লাসে আমের লস্যি ঢেলে উপর থেকে কয়েক ফোঁটা গোলাপ জল ঢেলে ভাল করে মিশিয়ে নিন।ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করে পরিবেশন করুন আমের লস্যি।

৯। পাকা আমের পুডিং

যা যা লাগবেঃ

৩টি ডিমের কুসুম,

৩ চামচ চিনি,

১ কাপ পাকা আমের রস,

১/২ লিটার দুধ,

১ টেবিল চামচ জেলাটিন,

২ টেবিল চামচ পানি, ক্রিম,

১/২ কাপ টুকরো করা আম,

১/৪ কাপ ডালিম ও পুদিনা পাতা।

যেভাবে বানাবেনঃ জেলাটিন পানিতে কয়েক মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। একটি পাত্রে ডিমের কুসুম, চিনি এবং দুধ ভালো করে ফেটে নিন।ভালো করে মেশানো হয়ে গেলে এতে জেলাটিন দিয়ে দিন। জেলাটিন দেয়ার পর চুলা নিভিয়ে ফেলুন।চুলা থেকে জেলাটিন ভালো করে মেশান। তারপর এতে আমের রস দিয়ে দিন।আমের রস দিয়ে আরো কিছুক্ষণ নাড়ুন। এরপর পরিবেশন পাত্রে ঢেলে ফ্রিজে ২ ঘণ্টার জন্য রেখে দিন।দুই ঘণ্টা পর ফ্রিজ থেকে বের করে ক্রিম, আমের টুকরো, ডালিম এবং পুদিনা পাতা দিয়ে পরিবেশন করুন।

১০। পাকা আমের জেলী

প্রয়োজনীয় উপকরণ ও প্রস্তুত প্রণালিঃ পাকা আম এক কেজি নিয়ে খোসা ফেলে আম গুলো ডুবো পানিতে সিদ্ধ করবেন।পানি শুকিয়ে অর্ধেক হয়ে আসলে আম গুলো তুলে রস বার করে মোটা ছাকনিতে ছেকে নিন যাতে আশ গুলো রসে না আসে।এরপরে আধকেজি চিনি দিয়ে আমের রস আর সিদ্ধকরা পানি চুলোয়ে বসান।ফুটে উঠে যখন সাদা ফেনা উঠবে তখন এরমধ্যে দুই টেবিল চামচ লেবুর রস দিয়ে নাড়তে থাকবেন।এভাবে ১০/১২ মি: জ্বাল করে দেখতে হবে জেলি হলো কিনা । এটা চেক করা সহজ একটা সিস্টেম আছে।এক কাপ পানিতে কয়েক ফোটা জেলি ফেলতে হবে, জেলী হয়ে গেলে সেটা নিচে জমা হবে, না হলে পানিতে মিশে যাবে বোঝা যাবে না।রস ঘন হয়ে আসলে নামিয়ে ফেলুন, একটু ঠান্ডা হলে শুকনো বয়ামে ঢেলে ফেলুন।

১১। আমের মোরব্বা

যা লাগবেঃ

১। কাঁচা আম ১০টি

২। ফিটকিরি গুঁড়ো ১ চা চামচ

৩। চুন ভেজানো ১ চা চামচ

৪। চিনি ১ কেজি

৫। পানি ২ কাপ

যেভাবে বানাবেনঃ আমের খোসা ছাড়িয়ে লম্বালম্বিভাবে ২ টুকরো করে নিতে হবে। আঁটিটি ফেলে দিতে হবে।আঁটি ফেলানো টুকরো আমগুলি পানিতে বেশ কিছুক্ষণ রেখে দিন।ভালোভাবে পরিষ্কার করে কাঁটা চামচ দিয়ে খুব করে আমের প্রতিটি টুকরো কেঁচে নিতে হবে।এরপর সব আম পরিষ্কার পানিতে ডুবিয়ে রাখতে হবে। ১ ঘন্টা পরপর দুইবার পানি বদলিয়ে দিন।এবার পরিষ্কার পানিতে ফিটকিরি ও চুন গুলিয়ে নিতে হবে। এই পানিতে আমের টুকরোগুলো অন্তত ৩ ঘন্টা ডুবিয়ে রাখুন।৩ ঘন্টা পর পানি থেকে আম তুলে পানি নিংড়ে নিতে হবে। ফুটন্ত পানিতে আমগুলো দিয়ে ৫-৭ মিনি ফুটিয়ে পানি নিংড়িয়ে নিন।১ কেজি চিনিতে ২ কাপ পানি দিয়ে সিরা বানাতে হবে। ২ টেবিল চামচ দুধ দিয়ে সিরার ময়লা কেটে সিরা ছেঁকে নিতে হবে।সিরায় আমের টুকরোগুলো দিয়ে মৃদু আঁচে ১ ঘন্টা জ্বাল করে নিন। চুলা থেকে নামিয়ে সারা রাত রেখে দিতে হবে।পরের দিন আবার জ্বাল দিয়ে সিরা ঘন হলে নামিয়ে নিন। মোরব্বা হয়ে গেল।এবার মোরব্বাগুলোকে বোতলে ভরে রেখে দিন।

১২। পাকা আমের আমসত্ত্ব

যা যা লাগবেঃ

১) আম চটকে নেয়া( মিষ্টি আমসত্ত্ব খেতে চাইলে পাকা আম আঁটি ফেলে চটকে নেবেন। আর টক মিষ্টি খেতে চাইলে কাঁচা ও পাকা আম মিলিয়ে নেবেন। সেক্ষেত্রে কাঁচা আম সিদ্ধ করে আঁটি ফেলে চটকে নিতে হবে)

২) চিনি (যতখানি আম তার সম পরিমাণ চিনি।

৩) সরিষার তেল প্রয়োজনমত

যেভাবে তৈরি করবেনঃ আম চটকে নিন ভালো মত। তারপর ব্লেন্ডারে দিয়ে মিহি পেস্ট তৈরি করে নিন কোন পানি ছাড়া। আমে আঁশ থাকলে চালনি দিয়ে চেলে নেবেন।এবার একটি ভারি তলার কড়াইতে এই আম ও চিনি দিয়ে জ্বাল দিন। ঘন ঘন নাড়তে থাকুন। আম থকথকে হালুয়ার মত হয়ে গেলে নামিয়ে নিন।এবার একটি বাঁশের কুলা বা ডালায় সরিষার তেল মাখিয়ে নিন। তার ওপরে এই জ্বাল দেয়া থকথকে আম হাত দিয়ে লেপে দিন। তারপর এই কুলা বা ডালাকে রেখে দিন চুলার নিচে! আপনি চাইলে রোদে দিতে পারেন, তবে যাদের বাসায় রোদের দেয়া সমস্যা তারা চুলার নিচে রেখে দিলেও চমৎকার আমসত্ত্ব হবে। চাইলে ওভেনেও বেক করতে পারেন। ১৮০ ডিগ্রি তাপমাত্রায় বেক করতে পারেন শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত।আপনি চাইলে একটি লেয়ার শুকিয়ে গেলে ওপরে আরও একটি লেয়ার দিতে পারেন। এভাবে কয়েকটি করে লেয়ার দেয়া যায় প্রত্যেকটি লেয়ার দেয়ার পরই ভালো করে শুকিয়ে নিতে হবে।শুকিয়ে গেলে তুলে ফ্রিজে বা এয়ার টাইট কৌটায় ভরে সংরক্ষণ করুন।

১৩। আম দই

যা যা লাগবেঃ

আমের ক্বাথ – ১ কাপ,

পানি ঝরানো দই ১ কাপ বা-১৬০ গ্রাম,

ঘন দুধ দেড়- কাপ,

কনডেন্সড মিল্ক- ১টা ।

যেভাবে তৈরি করবেনঃ প্রথমে দুধ ও কনডেন্সড মিল্ক মিশিয়ে নিয়ে চুলায় জ্বাল দিয়ে আরো ঘন করে নিন। একটু ঠাণ্ডা করে আমের ক্বাথ মেশান। তারপর দই ফেটে মিশিয়ে নিন।এখন, যে পাত্রে দই বসাবেন, তাতে ঢেলে নিন। মাটির পাত্র বা সিরামিকের পাত্র হলে দই ভালো জমে।এখন ২৫০ ডিগ্রি তাপমাত্রায় ওভেন ১০মিনিট প্রি-হিট করে নিন। তারপর ১৭০ ডিগ্রি তাপমাত্রায় ২-৩ ঘণ্টা বেক করুন বা জমে যাওয়া পর্যন্ত বেক করুন।বেক করা শেষ হলে ওভাবেই ওভেনে রেখে দিন আরো কয়েক ঘণ্টা। ফ্রিজে রাখুন ২-৩ ঘণ্টা। বের করে ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা পরিবেশন করুন মজাদার আমের দই।

১৪। আম সন্দেশ

যা যা লাগবেঃ

১. ১.৫ লিটার দুধ

২. ৩/৪ কাপ টকদই

৩. ১/৩ কাপ চিনির গুঁড়ো

৪. ১/২ চা চামচ এলাচ গুঁড়ো

৫. ১ এবং ১/৩ কাপ আমের পিউরি

৬. পেস্তা বা কাঠবাদাম কুচি

যেভাবে তৈরি করবেনঃ

প্রথমে একটি পাত্রে দুই লিটার দুধ দিয়ে জ্বাল দিন। এরপর অল্প আঁচে জ্বাল দিতে থাকুন। দুধ জ্বাল হয়ে এলে এতে টকদই দিয়ে দিন। দুধ এবং টকদই ভালো ভাবে নাড়তে থাকুন। দুধ ছানা হয়ে হওয়া পর্যন্ত নাড়তে থাকুন। যদি ছানা না হয়, তবে আরেকটু টকদই মিশিয়ে নিন। ছানা হয়ে এলে চুলা বন্ধ করে দিন।

এবার একটি সুতির কাপড়ে পানি ঢেলে ছানা আলাদা করে নিন। খুব ভালোভাবে পানি নিড়িয়ে নিবেন, যেন ছানার মধ্যে কোনো পানি না থাকে। দুই বা তিন কাপ পানি দিয়ে ছানা ভালো করে ধুয়ে নিন। কাপড় দিয়ে ছানা ভালো করে গিঁট দিয়ে বেঁধে রাখুন ৪৫ মিনিট।

এতে ছানার ভিতর থেকে পানি সব বের হয়ে যাবে। একটি পাত্রে ছানা নিয়ে ৮-১০ মিনিট মথে নিন। এরসাথে চিনির গুঁড়ো এবং এলাচ গুঁড়ো মিশিয়ে আবার মথুন। চুলায় প্যান গরম হয়ে এলে এতে ছানা এবং চিনির মিশ্রণ দিয়ে অল্প আঁচে রান্না করুন। ছানা চিনির মিশ্রণের সাথে আমের পিউরি দিয়ে দিন। ছানার মিশ্রণ এবং আমের পিউরি নাড়তে থাকুন। পানি শুকিয়ে ছানা না হওয়া পর্যন্ত চুলায় রাখুন।

অল্প আঁচে এটি ১০-১৫ মিনিট রান্না করুন। ঘন ডো হয়ে গেলে নামিয়ে ফেলুন। পছন্দমত আকৃতি তৈরি করে নিন সন্দেশ দিয়ে। এটি ফ্রিজে রাখুন ৩০ মিনিট। পেস্তা কুচি দিয়ে পরিবেশন করুন আম স্বাদের ম্যাঙ্গো সন্দেশ।

১৫। ম্যাংগো মুজ

যা যা লাগবেঃ

ম্যাংগো পিউরি- ১ কাপ

ম্যাংগো- ১টি টুকরো করা

লেবুর রস- ১ টে.চা.

চিনি- ১/২ কাপ

জেলাটিন- ২ টে.চা.

২ টি ডিমের সাদা অংশ (এগ হোয়াইট)

ক্রিম- ১ কাপ ( যেকোনো ব্র্যান্ড এর ফ্রেশ ক্রিম বাজারে পাওয়া যায়)

যেভাবে তৈরি করবেনঃ একটি বোলে ম্যাংগো পিউরি নিন। তাতে লেবুর রস দিন।গরম পানিতে জেলাটিন গলান। সম্পূর্ণ গলে গেলে এটি বোলের মিশ্রণটিতে ঢেলে দিন।অন্য একটি বাটিতে এজ্ঞ হোয়াইট বিট করে ফ্লাফি ( ঘন সাদা ফোম) করুন এবং উঠিয়ে রাখুন।আরেকটি বোলে ক্রিম বিট করুন এবং হুইপড ক্রিমটি উঠিয়ে রাখুন।ম্যাংগো পিউরি এর বোলে চিনি দিয়ে বিট করুন। এরপর তাতে বিটেন এগ হোয়াইট ও হুইপড ক্রিম অ্যাড করুন। মিশ্রণটিকে ব্লেন্ড করুন।একটি বোল/গ্লাসে ব্লেন্ডেড মিশ্রণটি ঢালুন। ১-২ ঘণ্টা ফ্রীজে রাখুন।কিছু পাকা আমের টুকরো দিয়ে ডেকরেট করে পরিবেষণ করুন মজাদার ম্যাংগো মুজ।

১৬। পাকা আমের হালুয়া

যা যা লাগবেঃ

পাকা আম- ২ কাপ

ঘি- ১/২ কাপ

চিনি- ১ কাপ

আমন্ড কুচি- কয়েকটি

ক্যাশিউ নাট- কয়েকটি

যেভাবে তৈরি করবেনঃ একটি পাত্রে চিনি ও আম নিয়ে একসঙ্গে মেশান। ফ্রাইপ্যানে সামান্য ঘি গরম করুন।আমন্ড ও ক্যাশিউ নাট ১ মিনিট ঘিয়ে ভেজে নামিয়ে রাখুন। আরেকটি পাত্রে আমের মিশ্রণ নিয়ে চুলায় দিন।মাঝারি আঁচে নাড়তে থাকুন। থকথকে হয়ে আসলে ঘি দিয়ে নাড়ুন।ভেজে রাখা বাদাম ছিটিয়ে পরিবেশন করুন আমের হালুয়া।

১৭। আমের আইক্রিম

যা যা লাগবেঃ

• এক কাপ ম্যাঙ্গ পাল্প বা আমের কাথ।

• এক কাপ ফ্রেশ ক্রিম।

• এক কাপ দুধ।

• এক কাপ মিল্ক ক্রিম পাউডার।

• হাফ কাপ পাউডার সুগার বা গুঁড়ো চিনি।

• একটা পুদিনা পাতা।

যেভাবে তৈরি করবেনঃ ম্যাঙ্গ পাল্প বা আমের কাথ মিক্সি মেশিনে দিন।এবার একে একে বাকি উপকরনগুলো মিশিয়ে মিক্সিতে ঢালুন।ভালো করে মিক্স করুন। যদি মিক্সি মেসিন না থাকে তাহলে ডাল ঘুঁটনি দিয়ে সবকটা উপকরন ভালো করে মিশিয়ে পেস্ট বানান।এবার একটি বক্সের মধ্যে এটি ঢেলে ফ্রিজে রেখে দিন একঘণ্টা।একঘণ্টা পর বের করে, কাঁচের বাটিতে আইস্ক্রিম সাজিয়ে ওপরে পুদিনা পাতা দিয়ে পরিবেশন করুন।রেডি আপনার আইস্ক্রিম।

১৮। আমের পায়েস

যা যা লাগবেঃ

দুধ-১ লিটার

বাসমতী চাল-১/৪ কাপ

পাকা আমের পিউরি-১ ও ১/২ কাপ

চিনি-3/৪ কাপ

কাজু-৫ টা

কিসমিস-৬,৭টা

এলাচ-২,৩টে

লবণ-১ চিমটে

যেভাবে তৈরি করবেনঃ চাল ধুয়ে জল ঝরিয়ে নিন। দুধ ফুটিয়ে নিয়ে আঁচ কমিয়ে হালকা আঁচে রাখুন।ওর মধ্যে চাল, নুন, এলাচ, কাজু, কিসমিস দিয়ে নাড়তে থাকুন। চাল সেদ্ধ হয়ে এলে চিনি দিয়ে ঘন করতে থাকুন।ঘন হয়ে এলে আমের পিউরি দিয়ে হালকা আঁচে ২-৩ মিনিট ফুটিয়ে নামিয়ে নিন।কাজু, কিসমিস দিয়ে হালকা করে ফ্রিজে ঢুকিয়ে রাখুন।জমে গেলে বের করে পরিবেশন করুন আমের পায়েস।

১৯। পাকা আম দিয়ে কেক

যা যা লাগবেঃ

ময়দা-১ কাপ,

আম-১টি,

কন্ডেন্স মিল্ক-১/২ কাপ,

চিনি-১/২ কাপ,

দুধ-৩ থেকে ৪ টেবিল চামচ,

মাখন-১/৩ কাপ,

কাজুবাদাম-২ টেবিল চামচ,

কিশমিশ-২ টেবিল চামচ,

বেকিং পাউডার-১ চা চামচ,

বেকিং সোডা-১/৪ চা চামচ।

যেভাবে তৈরি করবেনঃ বেকিং সোডা এবং বেকিং পাউডার ময়দার সাথে যোগ করুণ এবং খুব ভালোভাবে মেশান।এবার মাখন, আমের পেস্ট এবং কন্ডেন্স মিল্ক একটি বাটিতে খুব ভালোভাবে মেশান।এছাড়াও এর সাথে চিনির গুঁড়া যোগ করুন এবং সব উপকরণ একসাথে করে বিটার দিয়ে ভালোভাবে বিট করুণ যতক্ষণ পর্যন্ত সব উপকরণ একসাথে মিশে না যায়।কাজুবাদামগুলোকে ছোটো ছোটো টুকরো করে নিন।কিশমিশের বোটা ফেলে দিয়ে একটি পরিষ্কার কাপড় দিয়ে মুছে ফেলেন।

২০। ম্যাংগো কাস্টার্ড

যা যা লাগবেঃ

পাকা আম ৬টি,

গুঁড়া দুধ ১ কাপ।

কাস্টার্ডের জন্য:

ডিমের কুসুম ৬টি,

তরল দুধ ২ লিটার,

কাস্টার্ড পাউডার ৪ টেবিল চামচ,

কর্নফ্লাওয়ার ২ টেবিল চামচ,

চিনি ১ কাপ,

গুঁড়া দুধ পৌনে এক কাপ,

লবণ ১ চিমটি।

যেভাবে তৈরি করবেনঃ হালকা গরম পানিতে সামান্য লবণ মিশিয়ে সেই পানিতে আমগুলো ২ ঘণ্টা ভিজিয়ে রেখে ধুয়ে নিন।কাস্টার্ডের জন্য ২ লিটার দুধ জ্বাল দিন। ঘন হয়ে ৪ কাপ হলে পৌনে এক কাপ গুঁড়া দুধ মিশিয়ে জ্বাল দিয়ে নাড়ুন।চুলা থেকে নামিয়ে ঠান্ডা হলে কার্স্টাডের বাকি উপকরণ একত্রে মিশিয়ে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে চুলায় দিয়ে অনবরত নাড়ুন।ফুটে ওঠার পর ঘন হয়ে এলে নামিয়ে ফ্যানের নিচে রেখে নেড়ে ঠান্ডা করুন।কাস্টার্ড ঠান্ডা হলে বাটিতে উঠিয়ে ঢেকে ফ্রিজে রেখে দিন।এবার ৪টি আম খোসা ছাড়িয়ে রস বের করে নিয়ে তার সঙ্গে এক কাপ গুঁড়া দুধ মিশিয়ে ব্লেন্ড করে নিন।আমের মিশ্রণও একটি বায়ুরোধী পাত্রে ঢেলে মুখ বন্ধ করে ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা হতে দিন।পরিবেশনের আগে দুটি আম খোসা ছাড়িয়ে কিউব করে কেটে নিন।তারপর ডেজার্ট কাপ বা বাটিতে প্রথমে কাস্টার্ড, তারপর আমের মিশ্রণ ঢেলে ওপরে কিছু কাটা আম দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

তথ্যসূত্রঃ মজার রান্না

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

0/5 (0 Reviews)
  • 2
    Shares