প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয়

সিএনজি চালালেন করোনা রোগী, গেছেন সেলুনেও

39
সিএনজি চালালেন করোনা রোগী, গেছেন সেলুনেও
পড়া যাবে: < 1 minute

করো’নাভাই’রাস পরীক্ষার জন্য ১০ জুন তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এরপর ১৬ জুন করো’না পজিটিভ রিপোর্ট আসে তার।

বিষয়টি জানিয়ে মৌলভীবাজার সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে তাকে আইসোলেশনে থাকতে বলা হয়। মৌলভীবাজার সদর উপজে’লার মোস্তফাপুর ইউনিয়নের ওই সিএনজিচালক আইসোলেশনে না থেকে সেদিন থেকেই সিএনজি চালিয়েছেন।

জানা গেছে, গতকাল শুক্রবার (১৯ জুন) পর্যন্ত যাত্রী পরিবহন করেছেন। এরই মধ্যে বিভিন্ন চায়ের দোকানে আড্ডা দিয়েছেন। জানা গেছে, সেলুনে গিয়ে চুল-দাড়িও কে’টেছেন তিনি। মৌলভীবাজার সদর উপজে’লা নির্বাহী কর্মক’র্তা (ইউএনও) শরীফুল ইস’লাম এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, স্বাস্থ্য বিভাগের মাধ্যমে অ’ভিযোগ পেয়ে ওই ব্যক্তির আইসোলেশন নিশ্চিত করেছি। সেই সঙ্গে তার বাড়ি, সেলুন ও চায়ের দোকান লকডাউন করেছি। আ’ক্রান্ত ব্যক্তির বয়স ৫০ বছর। ঘরে প্রাপ্তবয়স্ক ছে’লে-মে’য়ে রয়েছে তার।

তিনি আরও জানান, এক সপ্তাহ আগে করো’না পজিটিভ জানা সত্ত্বেও গতকাল শুক্রবার পর্যন্ত সেলুন, চায়ের দোকান ও বিভিন্ন স্থানে সিএনজি চালিয়েছেন তিনি। আ’ক্রান্ত ব্যক্তির বাড়ির পাশে কাবাডি খেলারত অনেক তরুণকে পেয়েছি। তার এমন দায়িত্বজ্ঞানহীন আচরণ আমাদের অ’বাক করেছে। আম’রা আজ তার বাড়ি, সেলুন ও সম্ভাব্য অন্যান্য জায়গা লকডাউন করেছি।

সংক্রমণ আইনে তাকে কোনো শা’স্তি দেয়া হয়েছে কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, আম’রা সতর্ক করে দিয়ে এসেছি তাকে। কোনো শা’স্তি দেয়া হয়নি। আম’রা নজর রাখছি তার ওপর।

মৌলভীবাজারের সিভিল সার্জন ডা. তউহীদ আহম’দ কল্লোল বলেন, এদের মতো লোকের দায়িত্বজ্ঞানহীন কাজ করো’নার বি’রুদ্ধে আমাদের যু’দ্ধকে কঠিন করে দিচ্ছে। সবার পেছনে পু’লিশ বা স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মী দেয়া যায় না। মানুষ নিজে সচেতন না হলে করো’নার সংক্রমণ ঠেকানো কঠিন।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 27
    Shares