প্রচ্ছদ বাংলাদেশ

সোনমের পেটের সন্তানের মৃত্যু কামনা!

47
সোনমের পেটের সন্তানের মৃত্যু কামনা!
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

গত ১৪ জুন অ’ভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহ’ত্যার খবর প্রকাশ্যে আসতেই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে স্টারকিডদের অনায়াসে কাজ মেলার ঘটনায় সরব হয়েছেন অনেক বলিউড তারকা ও নেটিজেনদের একটা বড় অংশ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় উগরে দিচ্ছেন ক্ষোভ। স্টারকিডদের কমেন্ট বক্সেও দেখতে পাওয়া যাচ্ছে সেই ক্ষোভের প্রতিফলন।

অ’ভিনেত্রী সোনম কাপুরও একজন স্টারকিড। তিনি সুপারস্টার অনিল কাপুরের মে’য়ে। তাই নেটিজেনদের সেই ক্ষোভের আ’গুন থেকে মুক্তি মেলেনি সোনমেরও। ক্রমাগত কমেন্ট বক্সে নায়িকার পরিবার, বাবা-মা’কে নিয়ে ব্যক্তিগত আক্রমণ উড়ে আসায় দিন কয়েক আগে তিনি ইনস্টাগ্রাম কমেন্ট বক্স বন্ধ করে দেন। তাতেও হাল ছাড়েননি নেটিজেনরা।

সোনমের কমেন্ট বক্স বন্ধ দেখে তাকে ব্যক্তিগত ভাবে মেসেজ করে অশ্লীল ভাষায় আক্রমণ করেছেন বেশ কয়েকজন নেটিজেন। যেখানে নায়িকার মৃ’ত্যু কামনা থেকে শুরু করে তার পেটের সন্তানেরও মৃ’ত্যু কামনা করা হয়েছে। যে এখনো পৃথিবীতেই আসেনি।

নেটিজেনদের সেসব বাজে মেসেজের কয়েকটি স্ক্রিনশট শেয়ার করে সোনম লিখেছেন, ‘হ্যাঁ, আমি আমা’র এবং বাবা-মায়ের কমেন্ট সেকশন বন্ধ করেছি। আমি চাই না আমা’র ৬৪ বছরের বাবা এসব খা’রাপ কথা শুনুক। ওদের এগুলো প্রাপ্য নয়। আমা’র ভাবী সন্তানের মৃ’ত্যু কামনা করছে মানুষ, আমাকে গালাগালি দিচ্ছে অকথ্য ভাষায়। এসব করে তোম’রা শুধুমাত্র নিজেদের জীবন নষ্ট করছো।’

অন্যদিকে বলিউডে যে স্বজনপোষণ প্রথা প্রচলিত আছে, তাও স্বীকার করেন সোনম। ইনস্টাগ্রামে নেটিজেনদের একের পর এক হেট মেসেজ শেয়ার করে নায়িকার সোজাসাপ্টা জবাব, ‘হ্যাঁ, আমি আমা’র বাবার মে’য়ে। আজ আমি বাবার জন্যই এখানে। বাবার জন্যই সুবিধা পাই। এটা কোনো অ’পমান নয়। আমা’র বাবা দিন-রাত এক করে খেটেছে। তাই এটা আমা’র কর্মফল এবং এমন একটা পরিবারে জন্মে আমি গর্বিত।’

কয়েক বছর আগে একবার পরিচালক ও প্রযোজক করণ জোহারের ‘কফি উইথ করণ’অনুষ্ঠানে সোনমকে যখন জিজ্ঞাসা করা হয় সুশান্ত সিং রাজপুত কি হট? সোনম তখন খানিক ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ে বলেন, “জানিনা, হটই হবে।’ সুশান্তের আত্মহ’ত্যায় যখন ‘বহিরাগত তত্ত্ব’ বারেবারেই উঠে আসছিল, তখন সুশান্তকে না চেনার এই প্রসঙ্গে সোনমকে একহাত নেন নেটিজেনরা।

সেই প্রসঙ্গে সোনমের বক্তব্য, ‘ওটা সাত বছরের পুরনো একটি ভিডিও। সুশান্তের তখন একটি মাত্র ছবি মুক্তি পেয়েছিল। সে সময়ে আমি ওকে তেমন চিনতাম না। এরকম অনেক এপিসোড রয়েছে যেখানে আমা’র সহকর্মীরাও আমা’র স’ম্পর্কে একটি বাক্যও বলেননি। সেগুলোকে আমি স্পিরিট হিসেবে নিয়েছি সব সময়। এত ঘৃ’ণা! ভগবান যেন আপনাদের ক্ষমা করেন।’

এ দিকে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্রমাগত হেট মেসেজ পেয়ে টুইটারকে বিদায় জানিয়েছেন আরেক স্টারকিড সোনাক্ষী সিনহা। তিনি অ’ভিনেতা ও রাজনীতিক শত্রুঘ্ন সিনহার মে’য়ে। টুইটারকে ‘টাটা’ করেছেন সালমান খানের ভগ্নীপতি আয়ুষ শর্মা’ও। সব মিলিয়ে সুশান্তের মৃ’ত্যু যে বলিউডের চাকচিক্যের ভেতর লুকিয়ে থাকা অন্ধকারকে সামনে এনে রেখে দিয়েছে, তা বলাই বাহুল্য।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 8
    Shares