প্রচ্ছদ আন্তর্জাতিক

বাংলাদেশের কাছে আনন্দবাজারের নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা

35
বাংলাদেশের কাছে আনন্দবাজারের নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা
পড়া যাবে: < 1 minute

বাংলাদেশকে ‘খয়রাতি’ বলে তোপের মুখে পড়েছে ভা’রতীয় সংবাদ মাধ্যমগুলো, বিশেষ করে আনন্দবাজার পত্রিকাটি। এ নিয়ে নিজেদের ভুল স্বীকার করে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েছে আনন্দবাজার পত্রিকা।

মঙ্গলবার (২৩ জুন) ওই পত্রিকার প্রিন্ট ভা’র্সনের চতুর্থ পৃষ্ঠায় এ ক্ষমা প্রার্থনা করা হয়।

আনন্দবাজার পত্রিকা ‘ভ্রম সংশোধন’ শিরোনামে বাংলাদেশের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেছে। সেখানে তারা লিখেছে ‘লাদাখের পরে ঢাকাকে পাশে টানছে বেজিং’ শীর্ষক খবরে (২০-৬, পৃ ৮) খয়রাতি শব্দের ব্যবহারে অনেক পাঠক আ’হত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন। অনিচ্ছাকৃত এই ভুলের জন্য আম’রা দুঃখিত ও নিঃশর্ত ক্ষমাপ্রার্থী।’

এর আগে গত শনিবার ‘লাদাখের পরে ঢাকাকে পাশে টানছে বেজিং’ শিরোনামে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এই আ’পত্তিজনক শব্দটি ব্যবহার করে পত্রিকাটি।

ইতিমধ্যে এই প্রতিবেদনের সমালোচনা করেছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন। তিনি এই শব্দ চয়নকে ভা’রতীয় মিডিয়ার ‘ছোট মানসিকতার পরিচয় বলে’ উল্লেখ করেন। এর মাত্র একদিন পরই ক্ষমা চাইলো আনন্দবাজার।

সোমবার বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, চীন আমাদের প্রায় আট হাজার পণ্য ৯৭ শতাংশ বিনা শুল্কে রপ্তানির সুযোগ দিয়েছে। চীনের দেওয়া এমন সুবিধাকে আনন্দবাজারসহ ভা’রতের বিভিন্ন গণমাধ্যমের ‘খয়রাতি’ উল্লেখ করে খবর প্রকাশ করা মোটেও সমীচীন হয়নি। মিডিয়ার এই শব্দটি ব্যবহার ছোট মানসিকতার পরিচয়।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গত ১৯ জুন জানায়, চীনের বাজারে আরও পাঁচ হাজার ১৬১টি পণ্যের শুল্কমুক্ত রফতানি সুবিধা পেয়েছে বাংলাদেশ। এর মাধ্যমে দেশটিতে মোট শুল্কমুক্ত পণ্যের সংখ্যা দাঁড়াল আট হাজার ২৫৬টি। এর ফলে চীনে বাংলাদেশের মোট রপ্তানি পণ্যের ৯৭ শতাংশই শুল্কমুক্ত সুবিধার আওতায় এলো।

সীমান্ত ঝগড়াকে কেন্দ্র করে সম্প্রতি চীনা সে’নাদের সঙ্গে র’ক্তক্ষী সংঘাতের পর বাংলাদেশের সঙ্গে চীনের এই বাণিজ্যিক স’ম্পর্ককে সুনজরে দেখছে না নয়াদিল্লি। যে কারণে বাংলাদেশকে নিয়ে এ জাতীয় সংবাদ প্রকাশ করেছে ভা’রতীয় সংবাদ মাধ্যমগুলো। যদিও এ ধরনের সমালোচনাকে পাত্তা দিতে রাজি না বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 5
    Shares