প্রচ্ছদ আন্তর্জাতিক

করোনার মধ্যেই চীনে শুরু হলো কুকুর খাওয়ার উৎসব!

19
করোনার মধ্যেই চীনে শুরু হলো কুকুর খাওয়ার উৎসব!
পড়া যাবে: < 1 minute

বিশ্বজুড়ে চলমান মহামা’রি করো’নাভাই’রাসের মধ্যেই চীনে শুরু হয়েছে বাৎসরিক কুকুরের মাংস খাওয়ার উৎসব। মহামা’রির কারণে চলতি বছর এই উৎসবের আয়োজন নিয়ে শ’ঙ্কা তৈরি হলেও সবকিছুকে উড়িয়ে দিয়ে শুরু হয়েছে এটি। চলবে আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত।

চীনের অন্যতম একটি ঐতিহ্যবাহী খাবার হলো এই কুকুরের মাংস। দেশটির দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় ইউলিন শহরে প্রতিবছরই অনুষ্ঠিত হয় এই উৎসবের। এতে যোগ দেন হাজার হাজার মানুষ। নানা পদের খাবারের পাশাপাশি সেখানে বিক্রি হয় খাঁচায় ব’ন্দি জীবন্ত কুকুরও। বাদ পড়ে না কয়েকদিন বয়সী ছোট ছোট কুকুরছানাও।

গত বছরের শেষভাগে চীনের উহান শহর থেকে করো’নাভাই’রাস ছড়িয়ে পড়ে গোটা বিশ্বে। সেখানে প্রা’ণঘাতী এই ভাই’রাস সংক্রমণের পেছনে বাদুড় খাওয়ার অভ্যাসকেই দায়ী করা হচ্ছে। তবে করো’না মহামা’রির মধ্যে চীনে বাদুড়, সাপ, প্যাঙ্গোলিন, গিরগিটি ইত্যাদি খাওয়া অনেকটাই কমেছে। গত এপ্রিলে দেশটির শেনজেন শহরে কুকুরের মাংস খাওয়া নিষিদ্ধও হয়েছে। তবে এসবেও আ’ট’কায়নি ইউলিন শহরের মেলা।

পশুপ্রে’মীদের বিশ্বা’স, এই বছরের পরেই হয়তো বন্ধ হবে চীনে কুকুর খাওয়ার এই উৎসব। চীনা প্রশাসন বন্যপ্রা’ণী খাওয়া রোধে আইন করছে বলে জানা গেছে। পোষ্য প্রা’ণীদের রক্ষায়ও নতুন আইন আসতে পারে। ফলে এরপরে হয়তো কুকুরের প্রতি এমন নি’র্মমতার মেলা বন্ধ সম্ভব হবে।

চীনে পশুদের অধিকার নিয়ে কাজ করে হিউম্যান সোসাইটি ইন্টারন্যাশনাল। সংস্থাটির মুখপাত্র পিটার লি বলেন, তার প্রত্যাশা, প্রা’ণীদের কথা ভেবে না হলেও শুধু নিজেদের স্বাস্থ্যের কথা মা’থায় রেখে এমন অবস্থার পরিবর্তন হবে।

তিনি জানান, চীনে প্রতি বছর এক কোটি কুকুর ও ৪০ লাখ বিড়াল মা’রা হয় ব্যবসার জন্য।

এছাড়া মহামা’রির মধ্যেই কুকুর ও কুকুরের মাংস কেনার জন্য স্থানীয় বাজার-রেস্তোঁরাগুলোতে যেভাবে ভিড় হচ্ছে তা বর্তমান পরিস্থিতিতে জনস্বাস্থ্যের জন্য অ’ত্যন্ত বিপজ্জনক। ফলে এটি বন্ধে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া প্রয়োজন।

সূত্র: রয়টার্স

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।