প্রচ্ছদ বিশ্ব সংবাদ

চাঞ্চল্যকর তথ্য, আ’মেরিকায় করো’না আ’ক্রান্তের সংখ্যা নিয়ে বেরিয়ে আসলো গো’পন তথ্য!

32
চাঞ্চল্যকর তথ্য, আ'মেরিকায় করো'না আ'ক্রান্তের সংখ্যা নিয়ে বেরিয়ে আসলো গো'পন তথ্য!

পড়া যাবে: < 1 minute

প্রা’ণঘাতী করো’নাভাই’রাসের তা’ণ্ডবে দিশেহারা বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর রাষ্ট্র আ’মেরিকা। সরকারি হিসাব অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত (শুক্রবার সকাল সোয়া ৮টা) দেশটিতে আ’ক্রান্ত হয়েছে ২৫ লাখ ৪ হাজার ৫৮৮ জন।

কিন্তু দেশটির একজন স্বাস্থ্য কর্মক’র্তা বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন, যু’ক্তরাষ্ট্রে আ’ক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটির উপরে। এমন অনেকেই আছেন যারা আ’ক্রান্ত হয়েছেন কিন্তু জানেন না। খবর আল জাজিরা, ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল ও শিকাগো সানটাইমসের।

সম্প্রতি যু’ক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন রাজ্যে বাড়তে শুরু করেছে করো’না আ’ক্রান্তের সংখ্যা। ওই কর্মক’র্তা মনে করছেন দেশব্যাপী আতঙ্ক যাতে না ছাড়ায় সে কারণে ট্রা’ম্প প্রশাসন প্রকৃত তথ্য জানাচ্ছে না। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে দেশটিতে আ’ক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটির উপরে। ২ কোটি আ’ক্রান্ত হওয়ার মানে দাঁড়াচ্ছে দেশটির ৬ শতাংশ মানুষ ইতিমধ্যে করো’নায় আ’ক্রান্ত হয়েছে (মোট জনসংখ্যা ৩৩ কোটি ১ লাখ)।

আরও পড়ুন:  নয়া বিপাকে চীন, আন্তর্জাতিক আ'দালতের দ্বারস্থ উইঘুর মু'সলিম'রা!

এর আগে আ’মেরিকার রোগ নিয়ন্ত্রণ ও নিরাময় কেন্দ্রের (সিডিসি) বিশেষজ্ঞ ডা. অ্যান্থনি ফাউচি জানিয়েছিলেন, দেশটির মোট আ’ক্রান্তের ২৫ শতাংশ জানেনই না যে তারা করো’না আ’ক্রান্ত হয়েছেন। কারণ, তাদের মধ্যে কোনও লক্ষণ প্রকাশ পায়নি।

সম্প্রতি সিডিসি দেশব্যাপী ব্লাড স্যাম্পল সংগ্রহ করতে শুরু করেছে। সেটার ভিত্তিতে দেখা যাচ্ছে মহামা’রীর শুরুতে অনেকে বুঝতেই পারেননি যে তারা করো’নায় আ’ক্রান্ত হয়েছেন। তাছাড়া শুরুর দিকে অনেকে টেস্ট করারই সুযোগ পাননি। তখন যাদের মধ্যে করো’নার লক্ষণ ছিল কেবল তাদের টেস্ট করানো হয়েছিল।

এদিকে ট্রা’ম্প প্রশাসন প্রচারণা চালাচ্ছে যে করো’নাভাই’রাস যু’ক্তরাষ্ট্রে দুর্বল হয়ে পড়েছে। আস্তে আস্তে বিদায় নিচ্ছে। কিন্তু প্রকৃত চিত্র ঠিক তার বিপরীত।

আরও পড়ুন:  বহু করো'না রোগীর জীবন বাঁ'চানো সেই ডাক্তারের মৃ'ত্যু করো'নাতেই

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন banglanewsmagazine আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।